রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০৫:৩৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আজ পবিত্র শব-ই-কদর নয় সহশ্রাধিক মানুষের মাঝে সরকারি সহায়তা বিতরণে এমপি আবু জাহির নবীগঞ্জে জাহির হত্যার মামলা ॥ ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে আসামীদের গোপন বৈঠক ‘হৃদ্যতা হবিগঞ্জ’র দরিদ্রদের মাঝে অর্থ সহায়তা বিতরণ শহরের শায়েস্তানগরে তুচ্ছ ঘটনায় যুবককে ছুরিকাঘাত নবীগঞ্জ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পদক উজ্জ্বল সরদারকে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা উপ কমিটির সদস্য মনোনীত নবীগঞ্জের বিশিষ্ট মুরুব্বী ওয়াহিদ চৌধুরী আর নেই সুশীল সমাজ, এতিম ও শিক্ষার্থীদের সম্মানে নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত আজমিরীগঞ্জে ছুরিকাঘাতে নাড়ি-ভুড়ি বের হয়ে গেছে নবীগঞ্জে নুরানী মার্কেটে মহিলা ক্রেতাকে মারধোর ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ ॥ এলাকায় উত্তেজনা
কাল খুশির ঈদ

কাল খুশির ঈদ

সাফ রিপোর্টার ॥ বছর ঘুরে মুসলমানদের দুয়ারে আত্মত্যাগ ও খুশির বার্তা নিয়ে হাজির হয়েছে বৃহৎ ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আযহা। বিশ্ব মুসলিমের প্রধান দুটি ধর্মীয় উৎসবের একটি ঈদুল আযহা। আগামীকাল শনিবার সারাদেশে যথাযথ ধর্মীয় মর্যাদার মধ্য দিয়ে উদযাপিত হবে পবিত্র ঈদুল আজহা বা কোরবানির ঈদ। ঈদ মোবারক। পবিত্র ঈদুল আযহার দিনে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে। আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের প্রতি পূর্ণ আনুগত্য এবং তারই রাহে সর্বোচ্চ আত্মত্যাগের ঐতিহাসিক ঘটনার স্মরণে পালিত হয়ে আসছে ঈদুল আযহা। হজরত ইবরাহিম (আ.)-এর আত্মত্যাগ ও অনুপম আদর্শের প্রতীকী নিদর্শন হিসেবে কোরবানি প্রচলিত হয়েছে। যাকে কেন্দ্র করে ঈদুল আজহার এই উৎসব।
আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের নির্দেশে প্রায় সাড়ে ৪ হাজার বছর পূর্বে হজরত ইবরাহিম (আ.) তার প্রাণপ্রিয় পুত্র হজরত ইসমাইলকে (আ.)-কে কোরবানি করার ঘটনার স্মরণে কোরবানি প্রচলিত হয়। পুত্র কোরবানির পরীক্ষায় হজরত ইবরাহিম (আ.) উত্তীর্ণ হয়েছিলেন এবং আল্লাহর পক্ষ থেকে খলিলুল্লাহ উপাধি পেয়েছিলেন। পরবর্তীতে তিনি যতদিন জীবিত ছিলেন, ততদিন প্রতি বছরই পশু কোরবানির মাধ্যমে আল্লাহপাকের আনুগত্যের আদর্শ প্রতিষ্ঠা করে গেছেন। হজরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামও আদিষ্ট হয়ে প্রতিবছরই পশু কোরবানি করেছেন এবং তার উম্মতের জন্য এ আদর্শ ও প্রথা অনুসরণের কঠোর নির্দেশ দিয়ে গেছেন। যাদের ওপর কোরবানি ওয়াজিব তাদের জন্য কোরবানি করা বাধ্যতামূলক। রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, যাদের ওপর ওয়াজিব তারা কোরবানি না করলে যেন ঈদগাহে গমণ না করে। তিনি আরও বলেছেন, কোরবানির দিন কোন ব্যক্তির কোরবানির পশুর রক্ত ঝরানোর মতো আল্লাহপাকের কাছে অধিক প্রিয় ও পছন্দনীয় কাজ আর কিছু নেই। কোরবানিকে আল্লাহ এবাদত হিসেবে নির্দেশ করেছেন। পশু কোরবানির মাধ্যমে আল্লাহর নির্দেশের প্রতি একনিষ্ঠ আনুগত্য প্রদর্শন করে তাঁর সন্তুষ্টি লাভ করাটাই উদ্দেশ্য। এ উদ্দেশ্য যথাযথভাবে অর্জিত হলে কোরবানি করা সার্থক হয়ে থাকে। আল্লাহপাক সুস্পষ্টভাবে ঘোষণা করেছেন ‘আল্লাহর কাছে পৌঁছায় না তাদের (পশুর) গোশত ও রক্ত বরং পৌঁছায় তোমাদের তাকওয়া।’ কোরবানির জন্য হজরত ইবরাহিম (আ.)-এর ত্যাগ ও আত্মসমর্পণের আদর্শ। তিনি পুত্র ইসমাইলকে (আ.) কোরবানি করতে উদ্যত হলে আল্লাহপাক তার প্রতি সন্তুষ্ট হয়ে হজরত ইসমাইল (আ.) এর পরিবর্তে হজরত জিবরাইল (আ.) এর মাধ্যমে দুম্বা উপস্থিত করেন এবং দুম্বা জবাই হয়ে যায়। আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টি অর্জনে যে নজির হজরত ইবরাহিম (আ.) রেখে গেছেন, মানব ইতিহাসে তা নজিরবিহীন। ঈদুল আজহা বা কোরবানির ঈদ মিল্লাতে ইবরাহিমের জন্য এক মহান আদর্শ, এ গৌরবের স্তম্ভ। এ উৎসবে ধর্মীয়, আধ্যাত্মিক ও ঐতিহাসিক তাৎপর্য যেমন রয়েছে, তেমনি পারিবারিক, সামাজিক ও মানবিক নানা কল্যাণকর দিকও রয়েছে। সৌভ্রাতৃত্ব, ঐক্য সংহতি, বন্ধুত্ব, সম্প্রীতি ও সহমর্মিতা সহানুভূতি প্রকাশের এক দুর্লভ সুযোগ এনে দেয় এই ঈদ। কোরবানি অর্থ ত্যাগ এবং ত্যাগের মহিমার মধ্য দিয়ে সামর্থ্যবানরা পশু কোরবানি করেন। এই কোরবানির একটি অংশ দরিদ্রদের মধ্যে ভাগ করে দেয়া হয়। ধনী দরিদ্র সকলেই যাতে সমভাবে ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে পারে, সেজন্য ইসলামে সুস্পষ্ট বিধান রয়েছে। কোরবানির গোশতের ভাগ বাটোয়ারা করার ক্ষেত্রে ইসলামের বিধান মানতে হবে।
ঈদ উপলক্ষে সংবাদপত্রসমূহ বিশেষ সংখ্যা প্রকাশ করেছে, রেডিও বিটিভি এবং বিভিন্ন টিভি চ্যানেল ৩ দিন এবং কোন কোন চ্যানেল ৫/৭ দিন বিশেষ অনুষ্ঠানমালা প্রচার করবে।
অপর দিকে সরকারি ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হবে। ঈদের দিনে কারাগার, বিভিন্ন হাসপাতাল, এতিমখানা, ভবঘুরে কেন্দ্র ও দুঃস্থ কল্যাণ কেন্দ্রে উন্নতমানের খাদ্য পরিবেশিত হবে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com