মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১২:২৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
লাখাইয়ে ২ ডাকাতকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে জনতা মাধবপুরে ৪০ লাখ টাকার ভারতীয় চুলসহ গ্রেপ্তার ২ শায়েস্তাগঞ্জে রেলের জায়গা দখলের অভিযোগে সাবেক কাউন্সিলরসহ ৩ জন আটক নবীগঞ্জে বন্যার্তদের পাশে হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আলি হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের অর্ধবার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত নবীগঞ্জের বন্যার্ত পরিবারের মধ্যে যুক্তরাজ্য বিএনপি নেতা তানহা চৌধুরী তালহা’র পক্ষ থেকে ত্রান সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত হবিগঞ্জ পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডে বন্যা দুর্গতদের মাঝে মেয়রের চাল বিতরণ নবীগঞ্জ পৌরসভায় বন্যায় আশ্রয় কেন্দ্র গুলোতে নগদ অর্থ বিতরণ নবীগঞ্জে রাজরানী সুভাসীনি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে বন্যার্তদের মাঝে খাদ্য বিতরণ মাধবপুরে দুর্ঘটনায় হাডল্যান্ড সিরামিক কর্মকর্তা নিহত

মাধবপুরে যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীর গালে খুন্তির ছ্যাঁকা!

  • আপডেট টাইম বৃহস্পতিবার, ১৯ মে, ২০২২
  • ১৭ বা পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মাধবপুরে দেড় লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী মৌসুমী আক্তার (২১) বাম গালে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করেছে স্বামী সাইফুল ইসলাম (২৫)। রবিবার (১৫ মে) তাকে উদ্ধার করে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে চিকিৎসা করা হয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ৩ বছর আগে উপজেলার ২নং চৌমুহনী ইউনিয়নের রাজনগর গ্রামের মিজান মিয়ার মেয়ে মৌসুমী আক্তারের বিয়ে হয় বাঘাসুরা ইউনিয়নের বাঘাসুরা গ্রামের আব্দুল নুরের ছেলে সাইফুল ইসলামের সাথে। সাইফুল স্ত্রী, মা, বোনকে নিয়ে নোয়াপাড়া ভাড়া বাসায় বসবাস করছে। তাদের ১৮ মাসের রাব্বি নামে একটি ছেলে সন্তান রয়েছে।
গত কয়েক মাস ধরে মৌসুমীকে পিত্রালয় থেকে দেড় লাখ টাকা আনার জন্য স্বামী, শাশুড়ী ও ননদ চাপ সৃষ্টি করে। গরীব পিতার পক্ষে এ টাকা দিতে অস্বীকার করায় তাকে শারীরিক ও মানষিকভাবে নির্যাতন করা হয়। ওইদিন দুপুরে সাইফুল, তার বোন নাইমা খাতুন ও মা বেদেনা খাতুন বেধরক মারধর করেন মৌসুমীকে। এক পর্যায়ে মৌসুমীর বাম গালে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দেয়া দেয়। চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে। ওইদিনই মৌসুমীকে ১৮ মাসের শিশু সন্তানসহ পিত্রালয়ে পাঠিয়ে দেয়া হয়। পিতা মিজান মিয়া মেয়েকে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন।
মিজান মিয়া জানান, বিয়ের পর থেকে তার মেয়েকে বিভিন্নভাবে নির্যাতন করে আসছে জামাতা সাইফুল। গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দিয়েছে। পার্শ্ববর্তী লোক না গেলে ওরা আমার মেয়েকে মেরেই ফেলতো। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।
গুরুতর আহত মৌসুমী আক্তার কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, বিয়ের পর আমাকে প্রায়ই যৌতুকের জন্য মারধর ও নির্যাতন করতো। আমার গরীব বাবার পক্ষে যৌতুক দেয়া সম্ভব ছিলো না। ওইদিন আমার কাছে দেড় লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। আমি এ টাকা দিতে অস্বীকার করায় আমাকে স্বামী, শাশুড়ি ও ননদ মিলে মারধর করে গালে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দেন। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।
মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। দ্রুত আসামীকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Design and Development BY ThemesBazar.Com