রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০৪:১৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আজ পবিত্র শব-ই-কদর নয় সহশ্রাধিক মানুষের মাঝে সরকারি সহায়তা বিতরণে এমপি আবু জাহির নবীগঞ্জে জাহির হত্যার মামলা ॥ ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে আসামীদের গোপন বৈঠক ‘হৃদ্যতা হবিগঞ্জ’র দরিদ্রদের মাঝে অর্থ সহায়তা বিতরণ শহরের শায়েস্তানগরে তুচ্ছ ঘটনায় যুবককে ছুরিকাঘাত নবীগঞ্জ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পদক উজ্জ্বল সরদারকে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা উপ কমিটির সদস্য মনোনীত নবীগঞ্জের বিশিষ্ট মুরুব্বী ওয়াহিদ চৌধুরী আর নেই সুশীল সমাজ, এতিম ও শিক্ষার্থীদের সম্মানে নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত আজমিরীগঞ্জে ছুরিকাঘাতে নাড়ি-ভুড়ি বের হয়ে গেছে নবীগঞ্জে নুরানী মার্কেটে মহিলা ক্রেতাকে মারধোর ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ ॥ এলাকায় উত্তেজনা
উত্তপ্ত নবীগঞ্জের কানাইপুর সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ২০

উত্তপ্ত নবীগঞ্জের কানাইপুর সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ২০

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ দীর্ঘদিন নীরব থাকার পর ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে নবীগঞ্জ সদর ইউনিয়নের কানাইপুর গ্রাম। আধিপত্য বিস্তার ও নেতৃত্বকে কেন্দ্র করে এ অবস্থা শুরু হয়েছে। গতকাল বুধবার বিকালে উভয় পক্ষে এক রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে নবীগঞ্জ থানার এসআইসহ অনন্ত ২০ জন আহত হয়েছে। গুরুতর আহতদের সিলেট ও নবীগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি ও চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এক পক্ষের নেতৃত্বে রয়েছে ওই গ্রামের রঙ্গিলা মিয়া এবং অপর পক্ষে আসাম উদ্দিন। গত দু’দিন ধরে ওই এলাকার জনপদ উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র তৈরী করে সংঘর্ষের প্রস্তুতি নিয়েছে। যে কোন মুহুর্তে বড় ধরনের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকার কথা দু’দিন ধরেই শোনা যাচ্ছিলো। খবর পেয়ে পুলিশ দু’দিন আগেই ঘটনাস্থলে গিয়ে উভয় পক্ষকে দাঙ্গা হাঙ্গামা না করার জন্য সর্তক করে দিয়ে আসেন। গতকাল বুধবার বিকালে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের খবর পেয়ে ওসি (অপারেশন) জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, নবীগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের কানাইপুর গ্রামে দীর্ঘদিন ধরে আধিপত্য বিস্তার ও নেতৃত্ব নিয়ে সাবেক মেম্বার ইসমত মিয়ার পিতা রঙ্গিলা মিয়া ও প্রাক্তন মেম্বার ফরজ আলী, বারিকগংদের মধ্যে দাঙ্গা হাঙ্গামা চলে আসছিল। একাধিক মামলাও রয়েছে। এক পর্যায়ে তৎকালীন ওসি’র নেতৃত্বে উভয় পক্ষ’কে নিয়ে নবীগঞ্জ থানায় শালিস বৈঠক বসে উভয় পক্ষের বিরোধ নিষ্পত্তি হয়। এর পর থেকে কানাইপুর গ্রামে শান্তি বিরাজ করে আসছে। সম্প্রতি ছোট দু’বাচ্চার ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত ক’দিন ধরে দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র তৈরী করে উভয় পক্ষ মজুদ করে বিভিন্ন স্থানে। পুরো গ্রাম মুহুর্তের মধ্যে উত্তপ্ত হয়ে উঠে। সাধারণ মানুষ এ অবস্থায় চরম আতংক ও উৎকন্ঠায় জীবন যাপন করছেন। খবর পেয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম আতাউর রহমান এর নির্দেশে একদল পুলিশ কানাইপুর গিয়ে উভয় পক্ষকে দাঙ্গা হাঙ্গামা না করার জন্য শাসিয়ে আসেন। এরপরও দমে থাকেনি তাদের উত্তেজনা। এমতাবস্থায় গতকাল বুধবার রঙ্গিলা মিয়ার পক্ষের জনৈকা বয়স্ক মহিলাকে একা পেয়ে মতিন ও বারিকের লোকজন মারপিট করে। খবর পেয়ে রঙ্গিলা মিয়া পক্ষের লোকজন প্রতিবাদ করলে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষে গুরুতর আহত রাজা মিয়া (৩৭)কে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। বাকী আহত রঙ্গিলা মিয়া (৭০), তার ছেলে মুহিব উল্লা (৪৫), পুত্রবধু করিমা বেগম (৩৫), রুবেল মিয়া (২২), নাজিম উদ্দিন (৩০), আকাশ মিয়া (২০) ও মংলা মিয়া (৪০)কে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ও বাকীদের চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। সংঘর্ষের খবর পেয়ে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। এ সময় ইটপাটকেলে আঘাতে নবীগঞ্জ থানার এসআই মাজহারুল ইসলাম আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com