শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৪:১৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
প্রসঙ্গ নিম্বর টাওয়ার ॥ ৫০ লাখ টাকা ঘুষ দাবি! নবীগঞ্জের ভূমি উপসহকারী কর্মকর্তা আবিদ আলী বরখাস্ত হবিগঞ্জে জমে উঠেছে ঈদ বাজার ॥ স্বাস্থ্যবিধি পালনে প্রশাসন কঠোর বাংলাদেশি-আমেরিকান দুই ভাই তীর্থ ও তন্ময়ের সাফল্য খোশ আমদেদ মাহে রমজান ॥ আজ ২৫ রমজান লোকড়ায় অর্থ সহায়তা বিতরণ করলেন এমপি আবু জাহির বানিয়াচংয়ের ঐতিহ্যবাহী ঠাকুরানী দিঘী রক্ষায় এলাকাবাসীর অভিযোগ ॥ ড্রেজার মেশিন জব্দ খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় জেলা যুবদলের দোয়া ও ইফতার মাহফিল বানিয়াচংয়ে অভ্যন্তরীণ বোরে ধান সংগ্রহের উদ্বোধন রিচি গ্রামে ট্রাক্টরের চাপায় স্কুল ছাত্র নিহত শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রীজে বাস উল্টে ১৫ জন যাত্রী আহত
তীব্র শীত আর ঘন কুয়াশায় স্থবির জনজীবন \ ৫ জনের মৃত্যু

তীব্র শীত আর ঘন কুয়াশায় স্থবির জনজীবন \ ৫ জনের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার \ হঠাৎ করে বৃষ্টির পর শুরু হয়েছে শৈত্যপ্রবাহ। তীব্র শীত ও ঘন কুয়াশায় জনজীবন স্থবির হয়ে পড়েছে। শীতের কারনে সর্দি, কাশি, ডায়রিয়া, নিউমোনিয়া, হাপানিসহ ঠান্ডাজনিত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। গতকাল শীতের প্রকোপে ঠান্ডাজনিত রোগে আনন্ত হয়ে জেলায় ৪ নবজাতকসহ এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। গত দুই দিনে দুপুর পর্যন্ত জেলায় সূর্যের মুখ দেখা যায়নি। তুষারাচ্ছন্ন বাতাস আর ঘন কুয়াশায়সহ হাড় কাপাঁনো শীতে জবুথবু হয়ে পড়েছে জেলার মানুষ। মজুর পরিবারের মধ্য বয়সী ও বৃদ্ধরা কর্মহীন হয়ে পড়েছে। ঘন কুয়াশার কারণে যাবাহনগুলোকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত হেডলাইট জ্বালিয়ে চলাচল করতে দেখা গেছে। শীতের প্রকোপে অভাবী মানুষের জীবন বাঁচানোই দায় হয়ে পড়েছে। শিশু ও বৃদ্ধরা ঠান্ডাজনিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন। এতে সর্দি, কাশি ও হাপানিজনিত রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। গত দুই দিনের ঠান্ডায় জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে শতাধিক রোগী হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়। এর মাঝে গতকাল হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ২ নবজাতক, চুনারুঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ১ নবজাতক, মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে ১ নবজাতক ও রমজান আলী (৬০) নামের এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সরেজমিনে হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায় বিভিন্ন ওয়ার্ডে তিল ধারণের ঠাই নেই। অনেক রোগী সিট না পেয়ে মেঝেতে পড়ে রয়েছে। শিশু ওয়ার্ডে রোগীদের উপচে পড়া ভীড় দেখা গেছে। রোগীদের প্রচন্ড চাপের কারণে সেবা দিতে ডাক্তার, নার্সরা হিমশিম খাচ্ছেন। রোগীরা অভিযোগ করেন, একমাত্র খাবার স্যালাইন ছাড়া হাসপাতাল থেকে কিছুই দেয়া হচ্ছে না। সব ধরনের ঔষধ বাহির থেকে কিনে আনতে হয়।
এ ব্যাপারে মেডিকেল অফিসার দেবাশীষ দাস শিশুদের ক্ষেত্রে সাবধনতা অবলম্বনের পরামর্শ দেন তিনি।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com