শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ০৮:০৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
জমে উঠেছে হবিগঞ্জ, শায়েস্তাগঞ্জ ও লাখাই উপজেলা নির্বাচন নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মুকুল এর আমও গেল, ছালাও গেল শচীন্দ্র কলেজের প্রতিষ্ঠাতা স্বর্গীয় শচীন্দ লাল সরকারের ৪র্থ মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে প্রতিষ্ঠানটির ২দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানমালা শহরে বিদ্যুৎ বিভ্রাটের ঘটনায় আদালতে নির্বাহী প্রকৌশলীর জবাব দাখিল ॥ ১০ জুন শুনানী হবিগঞ্জ জেলায় প্রথম সাংবাদিক ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন সাইফুল জাহান চৌধুরী এড়ালিয়ায় ঈদগাঁহে ধান শুকানো নিয়ে সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ২০ বিগত ১০ বৎসর আমার অফিস দলমত ও ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবার জন্য উম্মুক্ত ছিল- সৈয়দ মোঃ শাহজাহান নবীগঞ্জে জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ উদ্বোধন মাধবপুরে পানিতে ডুবে ২২ মাসের শিশুর মৃত্যু নবীগঞ্জ-বাহুবল উপজেলা নির্বাচনে বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যানসহ ২২ প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত

চুনারুঘাটে স্বামী মারা যাওয়ার পর দ্বিতীয় বিয়ে করার অপরাধে ৭ মাস ধরে ঘরে তালা দিয়ে সমাজচ্যুত নারী

  • আপডেট টাইম বুধবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২২
  • ১৬২ বা পড়া হয়েছে

চুনারুঘাট প্রতিনিধি ॥ চুনারুঘাটের আহম্মদাবাদ ইউনিয়নের খাসপাড়া গ্রামে স্বামী মারা যাওয়ার পর দ্বিতীয় বিয়ে করার অপরাধে ৭ মাস ধরে তার বসত ঘরে তালা দিয়ে সমাজচ্যুত করেছে গ্রামের মাতবররা।
গতকাল নির্যাতিত মহিলা হামিদা আক্তার কান্না জড়িত কন্ঠে ঘটনার বিবরণ করেন। সমাজচ্যুত হামিদা বলেন, তার প্রথম স্বামী মারা যাওয়ার পর এলাকার কিছু খারাপ চরিত্রের লোক তাকে কুপ্রস্তাব দিত। তাই তিনি বাদ্য হয়ে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। বিয়ে করার অপরাধে খাসপাড়া গ্রামের মুরুব্বী কতিপয় মাতবর মিলে তার বসত ঘরে তালা দেন। ৭ মাস ধরে তালাবদ্ধ ঘরের লক্ষ টাকার আসবা পত্র ঝড়াজীর্ণ অবস্থায় নষ্ট হচ্ছে। দীর্ঘ সাতমাসে তারা অন্যত্রে বসববাস করছে এবং স্বামী স্ত্রী মিলে আমু চা বাগানের পুলপাড়ে একটি চা স্টল দিয়ে জীবন যাপন করছে।
গ্রামের মুরুব্বী ঈমান আলী সহ কয়েকজন হামিদার ঘরে তালা বন্ধ করার কথা স্বীকার করে বলেন, তারা গ্রাম বাসী একত্র হয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে এ কাজ করেছেন।
এ ব্যাপারে হামিদার আপন বোন জ্যোসনা আক্তার বলেন, গ্রামের মুরুব্বীয়ানরা ডাকলে হামিদা আসেনি তাই ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক তার ঘরে তালা মারা হয়েছে।
স্থানীয় আহম্মদাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন পলাশ বলেন, ঘটনাটি তিনি জানেন না। তবে যারা অতি উৎসাহী হয়ে এমন নেক্কার জনক কাজ করেছেন তা আইন বিরোধী। অন্যায় করলে বিচার আছে, প্রচলিত আইন আছে। ঘরে তালা মেরে অসহায় মহিলা ও বাচ্চাদের বের করে দেয়া কোন ভাবেই ঠিক হয়নি।
এ ব্যাপারে জানতে চুনারুঘাট থানার ওসি মোঃ আলী আশরাফ এর সরকারী মোবাইলে ফোন দিলে তিনি কল ধরেন নি।
চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিদ্ধার্থ ভৌমিক বলেন, বিষয়টি তিনি আজই জেনেছেন এবং আগামীকাল ব্যবস্থা নিবেন।
চুনারুঘাট প্রেসক্লাব সভাপতি জামাল হোসেন লিটন ঘটনার বিবরণ শুনে তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করেন এবং জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের দৃৃষ্টিকার্ষন কামনা করেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Design and Development BY ThemesBazar.Com