শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৫৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
চুনারুঘাটে র‌্যাবের অভিযানে ১২ কেজি গাঁজাসহ যুবক গ্রেপ্তার নবীগঞ্জে একরাতে তিন মন্দিরে চুরি খোয়া গেল মূর্তিসহ আসবাবপত্র বেগম খালেদা জিয়ার সু-স্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনায় জেলা বিএনপির মিলাদ মাহফিল হবিগঞ্জ জেলা এসোসিয়শন বাফেলোর থ্যাংকস গিভিং ডে ফ্যামিলি পার্টি ও সাধারন সভা অনুষ্টিত চুনারুঘাটে আকল মিয়া হত্যায় জড়িত মোশাহিদ মিয়া আটক নবীগঞ্জে বাল্য বিয়ে বন্ধ করলেন এসিল্যান্ড সদর উপজেলার গোপালপুরে ব্যবসায়ীকে হত্যার অভিযোগ পইলে ইউপি চেয়ারম্যান আরিফকে সংবধর্না প্রদান লন্ডনে বেঙ্গলী ওয়ার্কার্স এসোসিয়েশনের উদ্যোগে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন চুনারুঘাটে বিপুল পরিমাণ অনুমোদনহীন বিড়ি জব্দ

মানবপাচির তৈরী করে নিরাপত্তা বেষ্টনী ॥ নবীগঞ্জকে দাঙ্গা থেকে রক্ষা করলেন আলমগীর চৌধুরী, ইউএনও এবং ওসি

  • আপডেট টাইম শনিবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২১
  • ৮৩ বা পড়া হয়েছে

এটিএম সালাম, নবীগঞ্জ থেকে ॥ কুমিল্লায় ঘটে যাওয়া ঘটনার জেরধরে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার করগাও ইউনিয়নের গুমগুমিয়া গ্রামসহ নবীগঞ্জ বাসীকে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার হাত থেকে জীবন বাজি রেখে বাচাঁলেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট আলমগীর চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ মহি উদ্দিন ও থানার ওসি ডালিম আহমদ। বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) সন্ধ্যায় দুর্গা মন্দরিরের পূজাম-পের সামনে পুজারী ও মাদ্রাসার ছাত্র এবং মুসল্লীদের মাঝে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে থানার ওসি’সহ ২০ জন আহত হয়েছে। সংঘর্ষে ব্যাপক ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়। অবশেষে ওসি মোঃ ডালিম আহমদ নিজের শরীরের রক্ত দিয়ে পুজা মন্ডপের প্রতীমা রক্ষা করেছেন। স্থানীয় লোকদের সহযোগিতায় জীবন বাজি রেখে ও কঠোর হস্তক্ষেপে বড় ধরনের সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা-হাঙ্গামার কবল থেকে গুমগুমিয়া গ্রামসহ নবীগঞ্জবাসীকে রক্ষা করেছেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এড. আলমগীর চৌধুরী ও ইউএনও শেখ মহি উদ্দিন। সংঘর্ষে এলাকার মুসল্লীরা জড়িয়ে পড়লে পরিস্থিতি বেসামাল হয়ে উঠে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কুমিল্লার ঘটনাকে কেন্দ্র করে নবীগঞ্জ উপজেলার করগাও ইউনিয়নের গুমগুমিয়া গ্রামের পাঞ্জারাই জি.কে.ওয়াই দাখিল মাদ্রাসার ছাত্ররা ¯’ানীয় যুবকদের নিয়ে ওই দিন বিকাল সাড়ে ৫ টার দিকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি গুমগুমিয়া গ্রামের দুর্গা মন্দিরের পুজা মন্ডপের সামনে আসা মাত্রই সনাতন ধর্মাবলম্বী কতেক যুবকের সাথে মাদ্রাসা ছাত্রদের বাকবিতন্ডায় হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়। খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার ওসি মোঃ ডালিম আহমদের নেতৃত্বে একদল পুলিশ, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এড. আলমগীর চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ মহি উদ্দিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয়দের সহযোগিতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেন। কিন্তু মাদ্রাসার ছাত্র ও যুবকদের সাথে এলাকার মুসল্লীগণ যোগ দেয়ায় পরিস্থিতি বেসামাল হয়ে উঠে। শুরু হয় ইটপাটকেল নিক্ষেপ। এ সময় নবীগঞ্জ থানার ওসি মো. ডালিম আহমদ একদল পুলিশ নিয়ে মন্ডপের আশপাশ মানবপাচির তৈরী করে নিরাপত্তা বেষ্টনী গড়ে তোলেন। এ সময় একটি ইট তার মাথায় পড়ে রক্তাক্ত আঘাতপ্রাপ্ত হন। ওসি আঘাতপ্রাপ্তের খবরে উত্তেজিত লোকজন পিছু হটেন। ফলে নবীগঞ্জবাসী সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার হাত থেকে রক্ষা পেয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ। পরে গুরুতর আহত ওসিকে নবীগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার রাতে আহত ওসি দেখতে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি এডঃ আবুল ফজল, সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুল আমীন বুলবুল ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ইমদাদুর রহমান মুকুলসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Design and Development BY ThemesBazar.Com