বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০৬:৪৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
কাল খুশির ঈদ পাথারিয়ায় ভাগ্নের ফিকলের আঘাতে মামা নিহত কাকাইলছেওয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের ॥ আটক ৩৫ আউশকান্দির মেম্বার উস্তার প্রতারণার দায়ে ঈদ উদযাপন করছেন কারাগারেই রেড ক্রিসেন্ট হবিগঞ্জ ইউনিটের ৪শ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ পুরান মুন্সেফীতে মোতাচ্ছিরুল ইসলামকে সংবর্ধনা প্রদান ও ২ শতাধিক মানুষকে ঈদ উপহার বিতরণ শায়েস্তাগঞ্জ অজ্ঞাত গাড়ি চাপায় গ্যাস অফিসের কর্মচারী নিহত হবিগঞ্জ জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটির আয়োজনে ইফতার ও দোয়া মাহফিল পশ্চিমভাগ গ্রামের আলহাজ্ব মশাহিদ আহমেদ খানের ইন্তেকাল ॥ শোক নবীগঞ্জে শাহ হেল্প ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে অসহায় দরিদ্রদের মাঝে কাপড় বিতরণ
মাধবপুরে মার কোম্পানি হাইকোর্টের নির্দেশে বন্ধ

মাধবপুরে মার কোম্পানি হাইকোর্টের নির্দেশে বন্ধ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সরকারী নির্দেশনা অমান্য করে কার্য পরিচালনা ও কোম্পানীর দুষিত বর্জের কারণে এলাকার পরিবেশ দোষন ও শত শত হেক্টর উর্বর জমি চাষাবাদে বিঘœ ঘটায় হাই কোর্টের নির্দেশে মাধবপুর উপজেলার নোয়াপাড়া ইউনিয়নে অবস্থিত মার লিমিটেড কোম্পানি কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়। হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী গতকাল ২০ এপ্রিল মার লিমিটেড কোম্পানী সিলগালা করার সময় উপস্থিত ছিলেন মাধবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সহকারী কমিশনার (ভূমি), সহকারী কমিশনার শামসুদ্দিন মো: রেজা, নোয়াপাড়ার ইউপি চেয়ারম্যান, পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিদর্শক, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির প্রতিনিধি, মার লিমিটেড এর প্রোডাকশন ম্যানেজার এবং মাধবপুর থানা পুলিশ।
উল্লেখ্য, মাধবপুর উপজেলার নোয়াপাড়া ইউনিয়নে মহা-সড়কের পাশে মার কোম্পানি লিমিটেড প্রতিষ্টানের পর থেকে তাদের বিষাক্ত বর্জ্য প্রতিনিয়তই ফেলা হয় প্রবাহমান খালে। এতে অত্র এলাকার মানুষের জীবনযাত্রা ও পরিবেশ দূর্বিসহ হয়ে উঠেছে। বিষাক্ত বর্জ্যের কারণে শত শত হেক্টর জমি চাষাবাদের অনুপযোগি। এলাকাবাসী ওই দোষিত বর্জ্য বহমান খালে বন্ধ করার দাবী জানিয়ে আসছে দীর্ঘ বছর ধরে। জেলা প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তর গুলোতে বার বার আবেদন জানিয়েছে। প্রশাসন থেকে বার বার মার কোম্পানীকে তাদের বর্জ্য তাদের নিয়ন্ত্রনে রাখার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। কিন্তু কোন আদেশই মানছে না মার লিমিটেড কর্তৃপক্ষ। এ নিয়ে এলাকাবাসীর বাসীর সাধে একাধিক সংগর্ষের ঘটনাও ঘটেছে।
২০১৫ সালের ৩০ নভেম্বর জেলা প্রশাসক এর কার্যালয়ে এক সভায় সিদ্ধান্ত হয় কোম্পানিটি বন্ধ করার। কিন্তু তা বাস্তবায়ন হয়নি।
প্রায় ৬ বছর আগে ৩ একর জায়গায় স্থাপন করা হয় মার লিমিটেড। বর্জ্য শোধনাগার (ইটিপি) তৈরি না করে কারখানার পাশ দিয়ে প্রবহমান খালে প্রতিনিয়ত ফেলা হয় বিষাক্ত বর্জ্য। এই খালটি জাংগাল খাল হয়ে বলভদ্র, কানাই ও খাস্টি নদীর হয়ে মেঘনা নদীতে গিয়ে বর্জ্য পড়ে। এতে দেখা গেছে, কয়েকটি ইউনিয়নের অর্ধশতাধিক গ্রামের ফসলী জমিসহ পরিবেশের উপর বিরূপ প্রভাব পড়ছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com