বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০২:৩১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
কাল খুশির ঈদ পাথারিয়ায় ভাগ্নের ফিকলের আঘাতে মামা নিহত কাকাইলছেওয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের ॥ আটক ৩৫ আউশকান্দির মেম্বার উস্তার প্রতারণার দায়ে ঈদ উদযাপন করছেন কারাগারেই রেড ক্রিসেন্ট হবিগঞ্জ ইউনিটের ৪শ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ পুরান মুন্সেফীতে মোতাচ্ছিরুল ইসলামকে সংবর্ধনা প্রদান ও ২ শতাধিক মানুষকে ঈদ উপহার বিতরণ শায়েস্তাগঞ্জ অজ্ঞাত গাড়ি চাপায় গ্যাস অফিসের কর্মচারী নিহত হবিগঞ্জ জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটির আয়োজনে ইফতার ও দোয়া মাহফিল পশ্চিমভাগ গ্রামের আলহাজ্ব মশাহিদ আহমেদ খানের ইন্তেকাল ॥ শোক নবীগঞ্জে শাহ হেল্প ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে অসহায় দরিদ্রদের মাঝে কাপড় বিতরণ
মাধবপুরে শিশুকে অপহরণের পর হত্যা ॥ ২ আসামীর যাবজ্জীবন

মাধবপুরে শিশুকে অপহরণের পর হত্যা ॥ ২ আসামীর যাবজ্জীবন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মাধবপুর উপজেলার শিবজয়নগর গ্রামে মুক্তিপণের টাকা না পেয়ে শিশুকে অপহরণের পর হত্যার দায়ে দুইজনকে যাবজ্জীবন কারাদ- দিয়েছেন আদালত। এছাড়াও তাদেরকে ১ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়। গতকাল বুধবার বিকেল সাড়ে ৩ টায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-(৩) এর বিচারক জেলা জজ মোহাম্মদ হালিম উল্ল্যাহ চৌধুরী এ রায় ঘোষণা করেন। এ ছাড়াও দ-প্রাপ্ত আসামিদের স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তি বিক্রি করে বাদিপক্ষকে দেয়ার জন্য বিচারক আদেশ দেন। দ-প্রাপ্তরা হল, ওই গ্রামের তাউছ মিয়ার পুত্র জালাল উদ্দিন (৩২) ও বড়লেখা উপজেলার চন্দু গ্রামের মৃত আহাম্মদ আলীর পুত্র ও বর্তমানে শিবজয়নগর গ্রামের বাসিন্দা রাসেল মিয়া ওরফে কাটা রাসেল (৩৫)। রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন ওই কোর্টের স্পেশাল পিপি মোস্তফা মিয়া। আসামি পক্ষে ছিলেন, এডভোকেট জসীম উদ্দিন-৪। পেশকার মোঃ ফজলু মিয়া জানান, শিবজয়নগর গ্রামের জালাল মিয়াসহ তাদের লোকজনের বাড়ির জায়গা সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ ছিল পার্শ্ববর্তী সাবাশ আলীর সাথে। এরই জের ধরে জালাল মিয়াসহ তাদের লোকজন ২০১৮ সালের ৬ জানুয়ারী সাবাশ আলীর ৭ বছরের শিশু সন্তান স্কুল-ছাত্র শাহ পরানকে অপহরণ করে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে। পরে মুক্তিপণের টাকা না পেয়ে তাকে শ^াসরোধ করে হত্যা করে মরদেহ ফেলে রাখে গ্রামের একটি ডোবায়। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। পরে এ ঘটনায় ১১ জানুয়ারী নিহত শাহ পরাণের পিতা সাবাশ আলী বাদী হয়ে জালাল মিয়া, রাসেল মিয়া ও বাহার মিয়াকে আসামী করে মাধবপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলাটি দায়েরের পর পুলিশ দীর্ঘ তদন্ত শেষে জালাল মিয়া ও রাসেল মিয়াকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশীট দাখিল করে। এছাড়াও কোন অভিযোগ না থাকায় বাহার মিয়াকে চার্জশীট থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। আদালত এ মামলায় ২৪ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহন শেষে গতকাল এ রায় প্রদান করে।
আসামী পক্ষের আইনজীবি মোঃ জসীম উদ্দিন বলেন, ‘আসামীদের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগই প্রমাণ করতে পারেনি রাষ্ট্রপক্ষ। তবুও দুইজন আসামীকে যাবজ্জীবন দেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে আমরা উচ্চ আদালতে আপিল করব’। মামলার বাদি এই রায়ে তিনি সন্তোষ্ট নন। আসামিদের মৃত্যুদ- কামনা করেন এবং এ আদেশের বিরুদ্ধে তারা আপিল করবেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com