রবিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৯, ১১:২০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আগস্ট মাস আসলেই মনে দাগ কাটে-মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ পইলে ৭৭টি গরু কুরবানী বাড়িয়ে দিল ঈদের আনন্দ নবীগঞ্জ অপহরণের ৭ দিনেও উদ্ধার হয়নি স্কুল ছাত্রী মাধবপুরে মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত দুর্ধর্ষ ডাকাত এরশাদ আলী গ্রেপ্তার শায়েস্তাগঞ্জে ছেলে ধরা সন্দেহে এক ডাকাতকে গণধোলাই হবিগঞ্জ জেলা পুলিশ বনাম জেলা খেলোয়ার কল্যাণ সমিতির মধ্যে ফুটবল টুর্নামেন্ট কাশ্মিরী মুসলমানদের অধিকার অবিলম্বে ফিরিয়ে দিন ॥ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াত সমন্বয় পরিষদ জ্যোতির্বিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. দীপেন ভট্টাচার্য্যরে ॥ বক্তৃতা শুনে বিজ্ঞান চর্চায় আগ্রহ বেড়েছে হবিগঞ্জের শিক্ষার্থীদের ধুলিয়াখাল-মাহমুদপুর বাইপাস সড়ক টমটম চুরির অভিযোগে যুবক আটক হবিগঞ্জে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির রক্তদান কর্মসূচী ও শোক সভা
নাজিরপুরে বৃদ্ধা হত্যা মামলার মুটিভ উদঘাটন ॥ ঘাতকের ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি

নাজিরপুরে বৃদ্ধা হত্যা মামলার মুটিভ উদঘাটন ॥ ঘাতকের ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি

SAMSUNG CAMERA PICTURES

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জ সদর উপজেলার পইল ইউনিয়নের নাজিরপুর গ্রামের সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী সাজেরা খাতুন হত্যা মামলার আটক অন্যতম আসামী ঘাতক আব্দুর রউফ (২৫) আদালতে লোমহর্ষক স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাত ৮ টায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রবিউল ইসলাম এ ব্যাপারে প্রেস কনফারেন্সের মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ঘটনার প্রায় ৯ মাস পর হত্যাকান্ডের মুটিভ উদঘাটন করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ। গত সোমবার রাতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল ইসলাম, সদর থানার ওসি মুহাম্মদ সহিদুর রহমান, তদন্ত ওসি জিয়াউর রহমান ও উক্ত মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পলাশ চন্দ্র দাসের নেতৃত্বে একদল পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে পইল গ্রাম থেকে আব্দুর রউফকে আটক করে। সে নাজিরপুর গ্রামের আব্দুন নূরের পুত্র। রাতভর জিজ্ঞাসাবাদে সে ঘটনার সাথে সরাসরি জড়িত এবং কারা কারা আরও জড়িত আছে তা প্রকাশ করে। তবে তদন্তের স্বার্থে পুলিশ তা সংবাদ সম্মেলনে উপস্থাপন করেননি। কি কারণে ওই গ্রামের সৌদি প্রবাসী সঞ্জব আলীর স্ত্রী সাজেরা খাতুন (৫০) কে হত্যা করা হয়েছে এ ব্যাপারে পুলিশকে আব্দুর রউফ জানায়, সে সহ আরও ৪/৫ জন যুবক ওই প্রবাসীর বাড়িতে চুরি করতে যায়। এ সময় প্রবাসীর পুত্রবধু বাড়িতে ছিল না। এক পর্যায়ে টাকা পয়সা ও স্বর্ণালঙ্কার চুরি করার সময় সাজেরা তাদের চিনে ফেলায় হাত-পা বেধে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে চলে যায়। গতকাল মঙ্গলবার বিকালে আটক আব্দুর রউফকে হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুল ইসলামের আদালতে প্রেরণ করলে ১৬৪ ধারা জবানবন্দিতে সে হত্যা কথা স্বীকার করে উল্লেখিত বিষয়ে জবানবন্দি দেয়। আদালত তাকে জবানবন্দি শেষে কারাগারে প্রেরণ করে। এ ছাড়া পর্যালোচনাক্রমে বিভিন্ন সোর্সেও মাধ্যমে পুলিশ সন্দেহভাজন আরও ৩ জনকে উক্ত মামলায় আটক করে কারাগারে প্রেরণ করে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরও বলেন, আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে পুলিশ হত্যা মামলার মুটিভ উদ্ধার করেছে। শীঘ্রই আদালতে চার্জশীট দাখিল করা হবে। এছাড়া এই মামলার আরও অন্যান্য আসামীদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।
প্রসঙ্গ, ২০১৮ সালের ২১ সেপ্টেম্বর নিহত সাজেরা খাতুন হাত-পা ও মুখ কাপড় দিয়ে বাধা ছিল। অনেকে মনে করছেন জুয়ার টাকার জন্য দুর্বৃত্তরা ওই বাড়িতে চুরি করতে গিয়ে গৃহবধুকে হত্যা করেছে। তবে এ হত্যাকান্ড রহস্যজনক বলে মনে করা হচ্ছে। খবর পেয়ে ঘটনার পরদিন দুপুরে সদর থানার ওসি অপারেশন সাইফুল ইসলাম, এসআই সাহিদ মিয়া ও পলাশ দাসের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com