বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ০১:৪৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
কওমী মাদ্রাসা ও আল্লামা আহমদ শফীর বিরুদ্ধে কটুক্তির প্রতিবাদে বানিয়াচঙ্গে বিক্ষোভ মিছিল

কওমী মাদ্রাসা ও আল্লামা আহমদ শফীর বিরুদ্ধে কটুক্তির প্রতিবাদে বানিয়াচঙ্গে বিক্ষোভ মিছিল

মখলিছ মিয়া, বানিয়াচং থেকে ॥ মহান জাতীয় সংসদে দাড়িয়ে কওমী মাদ্রাসা বোর্ডের চেয়ারম্যান আল্লামা আহমদ শফী ও কওমী মাদ্রাসা বোর্ড নিয়ে সাবেক মন্ত্রী ও সংসদ সদস্য রাশেদ খান মেনন যে অশালীন ও নোংরা বক্তব্য দিয়েছেন তা গোটা জাতিকে স্তম্ভিত করেছে, মর্মাহত করেছে। শুধু বাংলাদেশে নয় গোটা মুসলিম উম্মাহর আধ্যাত্মিক রাহবার ও পথ প্রদর্শক আল্লামা শফী’কে তেতুল হুজুর ও কওমী মাদ্রাসাকে বিষবৃক্ষ আখ্যা দিয়ে মুসিলম উম্মাহর হৃদয়ে আগুন ধরিয়েছে মেনন গংরা। রক্তকরণ শুরু হয়েছে ইসলাম প্রিয় তৌহিদী জনতার হৃদয়ে। রাশেদ খান মেননের এই নোংরা বক্তব্যের নিন্দা ও প্রতিবাদে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তাগণ উপরোক্ত বক্তব্য প্রদান করেন। বানিয়াচং সর্বস্তরের আলেম সমাজ ও ইসলাম প্রিয় তৌহিদী জনতা কর্তৃক আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতি করেন মাওঃ আব্দুল বাছিত আজাদ। বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন প্রিন্সিপাল মাওঃ আব্দাল হোসেন খান, আলহাজ্ব ফরিদ উল্বা, হারামাইন মাদ্রাসার মুহতামিম মাওঃ মুখলিছুর রহমান, দারুল কোরআন মাদ্রাসার নাজিম মাওঃ গোলাম কাদির, মাওঃ মোবাশ্বির আহমেদ, মাওঃ ডাঃ বশির আহমেদ, মাওঃ মসিউর রহমান, মাওঃ আব্দুল জলিল ইউসুফী, মাওঃ আসাদুর রহমান প্রমুখ। বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তাগন আরো বলেন অবিলম্ভে রাশেদ খান মেননকে গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনতে হবে, কাদিয়ানীদেরকে অমুসলিম ঘোষণা করতে হবে এবং রাশেদ খান মেননের বক্তব্য প্রত্যাহার পূর্বক নিঃশর্তভাবে মহান জাতীয় সংসদে ক্ষমা চাওয়ারও আহ্বান জানানো হয়। পরে একটি বিক্ষোভ মিছিল বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে বিক্ষুব্ধ তৌহিদী জনতা রাশেদ খানের কুশ পুত্তলিকা দাহ করেন। এ সময় নিউজিল্যান্ডের মসজিদের ভিতরে সন্ত্রাসী হামলারও নিন্দা এবং ক্ষোভ জানানো হয়।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com