বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ০৬:৩৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
সাতছড়িতে বিজিবির অভিযান রকেট লাঞ্চারের ১৮টি গোলা উদ্ধার হবিগঞ্জে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ম্যারাথন এর উদ্বোধন সাতছড়ি উদ্যানে পূর্বের ৬ অভিযানে যা যা মিলেছে উদ্ধার হওয়া রকেট লাঞ্চারের গোলাগুলো খুব বিপজ্জনক আলোচনায় কাহালু ও চট্টগ্রামের ১০ ট্রাক অস্ত্র নোয়া হাটি সংবর্ধনা সভায় মেয়র সেলিম ॥ আমি হবিগঞ্জ পৌরবাসীর ভালবাসা কুড়িয়ে নিতে চাই হবিগঞ্জ পৌরসভার নব-নির্বাচিত ২ কাউন্সিলরকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী নবীগঞ্জে মাদকাসক্ত স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা ॥ হুমকির মুখে নিরিহ পরিবার পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়রের সঙ্গে ব্যাংকারদের শুভেচ্ছা বিনিময় নবীগঞ্জে শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ প্রতিযোগীতায় ॥ ২৩ বিজয়ী
নবীগঞ্জে এবারই প্রথম চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন দু’মহিলা প্রার্থী

নবীগঞ্জে এবারই প্রথম চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন দু’মহিলা প্রার্থী

এটিএম সালাম, নবীগঞ্জ থেকে ॥ নবীগঞ্জ উপজেলায় এবারই প্রথম ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন দু’জন নারী নেত্রী। একজন হলেন উপজেলার বাউশা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বিশিষ্ট সমাজ সেবক আব্দুল হাই’র সহধর্মীনি ডেইজি চৌধুরী (স্বতন্ত্র) এবং অপরজন আউশকান্দি ইউনিয়নে জাতীয় পার্টি মনোনিত প্রার্থী শাহিনা আক্তার চৌধুরী। ফলে এই দু’ইউনিয়নের সাধারণ ভোটারের মধ্যে কৌতুহলের শেষ নেই। আলোচনার ঝড় উঠেছে ওই ইউনিয়ন দু’টিতে। আগামী ২৮ মে পঞ্চম ধাপে এই উপজেলার ১৩ ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইতিমধ্যে রাজনৈতিক প্রতীকে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ায় উপজেলার সর্বত্র উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। নির্বাচনের হিসাব নিকাশ শুরু হয়েছে ভোটারের মধ্যে। বেশীর ভাগ ভোটারের অভিমত ইউনিয়ন বা এলাকার উন্নয়ন করতে হলে সরকার দলীয় প্রার্থী জয়লাভ করতে হবে। অন্যথায় এলাকার উন্নয়ন করা সম্ভব হবে না। এরমধ্যে গত ৪ মে মনোনয়ন পত্র দাখিল, ৫ মে বাচাই কাজ সম্পন্ন হয়েছে। আগামী ১২ মে প্রার্থী প্রত্যাহারের শেষ দিন। ১৩ মে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে। এছাড়া আওয়ামীলীগ ১৩টি ইউনিয়নে প্রার্থী দিলেও বিএনপি ১২টি ও জাপা ৯টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী দিয়েছে। এরমধ্যে উপজেলার বাউশা ইউপিতে সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হাই এর সহধর্মীনি ডেইজি চৌধুরী স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ওই ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান আনোয়ারুর রহমান বিএনপির মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী (বিএনপির বিদ্রোহী) হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এখানে আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু সিদ্দীক নৌকা প্রতীকে এবং যুবদলের সাবেক আহ্বায়ক মজিদুর রহমান মজিদ ধানের শীষ প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। উক্ত ইউপিতে লড়াইটি চতুর্থমুখী লক্ষ্য করা গেলে সময় ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে ত্রি-মূখী লড়াই হওয়ার সম্ভাবনা বেশী। ওই ইউপিতে বর্তমানে নারী প্রার্থী ডেইজি চৌধুরী ইতিমধ্যে আলোচনার ঝড় তোলেছেন। এখানে যেই বিজয়ের মালা পড়ুক নৌকার প্রার্থীর সাথেই হবে মুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা। আউশকান্দি ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন জাপা মনোনিত (এরশাদ) শাহিনা আক্তার চৌধুরী। তিনি উপজেলা জাপার সহ সভাপতি ইউছুপ চৌধুরীর সহধর্মীনি। এখানে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়াই করছেন বর্তমান চেয়ারম্যান দিলাওর হোসেন। আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী লন্ডন প্রবাসী মুহিবুর রহমান হারুন। বিএনপির কাউছার আহমদ, স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ কাওসার মিয়া ও হিরা মিয়া। মনোনয়ন পত্র দাখিলের পরপরই দু’ ইউনিয়নে দু’জন নারী প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে সরাসরি ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অংশ নেয়ার উপজেলার সর্বত্র আলোচনার ঝড় উঠে।
এ ব্যাপারে তাদের অনুভুতি জানার জন্য দৈনিক হবিগঞ্জের জনতার এক্সপ্রেস এর পক্ষ থেকে যোগাযোগ করলে, বাউশা ইউপির প্রার্থী ডেইজি চৌধুরী বলেন, তার স্বামী মোঃ আব্দুল হাই দীর্ঘদিন ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছিলেন। বিগত দু’বার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ নেয়ার কারনে তিনি ইউনিয়নে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাই স্বামীর স্বপ্ন বাস্তবায়ন এবং জনসেবার ব্রত থেকেই এই নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তিনি বলেন, এখন মানুষ রাজনৈতিক হানাহানির কারনে রাজনৈতিক দল গুলোকে পছন্দ করেন না। এ জন্য স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছি। জয়ের ব্যাপারে কতটুকু আশা করেন- এমন প্রশ্নের জবাবে বলেন, জয় পরাজয় বড়কথা নয়, মানুষের সেবা ও কল্যানের জন্য কাজ করতে চাই। এই ইউনিয়নবাসীকে নিয়ে তার স্বামী সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হাই অনেক স্বপ্ন দেখেছেন, দেখিয়েছেন। তা বাস্তবায়নের জন্যই নির্বাচনে অংশ নিয়েছি। মানুষের ভালবাসায় বিজয়ী হবো ইনশাআল্লাহ।
আউশকান্দি ইউপিতে চেয়াম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী নারী নেত্রী (জাপা মনোনিত) শাহিনা আক্তার চৌধুরী বলেন, তিনি কিশোরী বয়সেই স্বপ্ন দেখতেন বড় হয়ে মানুষের সেবা করবেন। সেই স্বপ্ন পুরন করতেই পল্লী বন্ধু হুসাইন আহমেদ এরশাদ (জাপা) মনোনিত প্রার্থী হিসেবে লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি। বিজয়ী হওয়ার ব্যাপারে তিনি আশাবাদী।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com