সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ০৭:৫৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
শ্রীমঙ্গলে যুবলীগ নেতা সেলিমের উদ্যোগে সাড়ে ৫শ অসহায় মানুষের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ নবীগঞ্জের বিভিন্ন গ্রামে ড. রেজা কিবরিয়ার পক্ষে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ হবিগঞ্জে শেষ হয়েছে ৫দিন ব্যাপি ইয়ূথ এসোসিয়েশন অব ইউকে এর খাদ্য সহায়তা বিতরণ নবীগঞ্জে গৃহহীন দুই বীর সেনা মুক্তিযোদ্ধাকে সেনাবাহিনীর বাসস্থান উপহার আলমগীর চৌধুরীর সৌজন্যে নবীগঞ্জে ১৬৫ পরিবারকে ঈদ উপহার প্রদান নবীগঞ্জে স্বাস্থ্য বিধি অমান্য করায় ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা “বঙ্গবন্ধু ছাত্র একতা পরিষদ” নেতা রায়হান এর উদ্যোগে ইফতার বিতরণ এখন প্রমান করার সময় মানুষ মানুষের জন্য-মোতাচ্ছিরুল ইসলাম অনাহারী মুখ খাবার তুলে দিচ্ছেন হবিগঞ্জ ছাত্র সমন্বয় ফোরাম বাগুনিপাড়া ডিফেন্স হোল্ডার এ্যাসোসিয়েশন ঈদ উপহার বিতরন
ঈদে নিজেকে আলাদা করে সাজাতে কেনাকাটায় ব্যস্ত তরুণ-তরুণীরা

ঈদে নিজেকে আলাদা করে সাজাতে কেনাকাটায় ব্যস্ত তরুণ-তরুণীরা

বরুন সিকদার ॥ আসন্ন ঈদুল ফিতরকে সমানে রেখে হবিগঞ্জের বিভিন্ন মার্কেট-বিপনীগুলোতে কেনাকাটার ব্যস্ততা শুরু হয়েছে। ক্রেতাদের দৃষ্টিনন্দন ও আকর্ষনীয় করে তুলতে বাহারি সাজে সাজানো হয়েছে মার্কেটগুলো। বিক্রি বাড়াতে নানা জিনিসে দেয়া হচ্ছে মূল্য হ্রাস ও কুপন। ক্রেতাদের মতে, মার্কেটগুলোতে পছন্দের পোষাক-আষাক পাওয়া গেলেও দাম তুলনামুলক অনেক বেশি।
এদিকে ঈদ আনন্দের খোরাক পেতে সাধ্যমত দাম দিয়ে পোষাক কিনতে ছিন্নমূল ও নিম্ন আয়ের মানুষ ছুটছে খোয়াই ব্রীজ ও পুরাতন বাসষ্টান্ড সংলগ্ন হকার্স মার্কেটগুলোতে। ১৫ রমজানের পর থেকে শহরের খাঁজা গার্ডেন সিটি, আমির চাঁন কমপ্লেক্স,আলী প্লাজা, আশরাফ জাহান মার্কেট সহ ঘাটিয়া বাজার এলাকার পোষাক বিতান, বুটিক হাউস, কসমেটিক্স, গহনার দোকান ও কালী বাড়ি রোডের জুতার দোকানগুলোতে সকাল থেকে রাত অবদি চলছে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের কেনা বেচার ধুম। বিপনীগুলোতে এসেছে বয়সভিত্তিক নারী ও পুরুষ এর জন্য আকর্ষনীয় ত্রিপিছ, পাঞ্জাবী, ফতুয়া, লেহেঙ্গা, লুঙ্গি, টি শার্ট, জিন্স প্যান্ট, শেরোয়ানী দেশী বিদেশী নানা ধরণ ও দামের শাড়ি। পোষাকগুলোর নামের ক্ষেত্রেও রয়েছে বৈচিত্রতা, যেমন শাড়ির মধ্যে রয়েছে জুট কাতান, ক্যাটরিনা, জামদানি সিল্ক, দেশীয় তাত, বাংলাদেশী তাত, তিশুমিতার, জর্জেট ইত্যাদি ত্রী পিছ গুলোর মধ্যে রয়েছে সোনাক্সি, মহিনি, খাগড়া, আশিকী, সুট আউট। ছেলেদের জন্যে বাজারে জিন্স প্যান্ট এর মধ্যে এসেছে টিসু, ব্লেকবেরী, ইটালিয়ান, ইন্ডিয়ান, ডিজিএল, ডেজেল, আরমানি, কিউজি। পাঞ্জাবীগুলোর মধ্যে রয়েছে তুষা, এগ্রী, আড়ং, চাঁদ, এন্ডিকটন, এন্ডি সিল্ক ইত্যাদি। রেডিমেট দোকানগুলোতে ছোটদের জন্যে রয়েছে বাহারী ডিজাইন ও কার্টুনের নামকরণে নানা পোষাক। তবে কাপড় ক্রয়ের ক্ষেত্রে সুতি কাপড় ও গজ কাপড় অন্য বছরের তুলনায় বেশী বিক্রি হচ্ছে বলে বিক্রেতারা জানান। আর কাপড় তৈরীর কাজেও ব্যস্ত সময় পাড় করছে পোশাক কারিগররা। শহরের ঘাটিয়া বাজারে এসডি প্লাজায় ঈদ উপলক্ষে ৪০ হাজার টাকা দামের নেট লেহেঙ্গা শাড়ি বিক্রির জন্যে আনা হয়েছে। শহরের কালীবাড়ি রোডের জুতার দোকান গুলোতে আনা হয়েছে নানা বয়সের নারী পুরুষের জন্যে বিভিন্ন ব্রান্ডের ও বিভিন্ন দামের আকর্ষনী জুতা। এছাড়া রূপালী ম্যানসন, ছাবু মিয়া কসমেটিক্স দোকান, খাঁজা গার্ডেন সিটির বিভিন্ন শো রোমগুলোতে চলছে তরুণীদের পছন্দের কসমেটিক্স ও গহনা ক্রয়ের ব্যস্ততা। এ সম্পর্কে চৌধুরী বাজার এলাকার বাসিন্দা আব্দুল মজিদ বলেন, ঈদ মার্কেটে পছন্দমতন পোষাক এলেও দাম কিছুটা বেশী। গত মাসে শ্রীময়ি ব্রান্ডের টি-শার্ট ৪০০ টাকায় ক্রয় করেছি। ঈদ মার্কেটে প্রায় একই ধরনের টিশার্টের দাম হাকাচ্ছে ৫০০ টাকা। এসডি প্লাজার সত্বাধিকারী চয়ন দাস বলেন, কাপড়ের দাম ক্রেতাদের নাগালের মধ্যেই রয়েছে। চাহিদা অনুযায়ী পোষাক থাকায় বিক্রি ভালই হচ্ছে। কিছু কিছু পোষাকের দাম বেশী হবার মূল কারন, পাইকারী বাজারে কাপড়ের দাম বেশী। তাছাড়া সুতোর ও রংএর দাম বৃদ্ধি যাতায়াত ভাড়া সহ আনুষাঙ্গিক খরচ মিলিয়ে তুলনামূলকভাবে বর্তমান সময়ে কাপড়ের দাম সহনীয় পর্যায়ে রয়েছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com