রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৭:৩৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
হবিগঞ্জে স্কুল ব্যাংকিং কনফারেন্স অনুষ্ঠিত ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি’র নির্বাচন ॥ শামছুল হুদা-আলমগীর প্যানেলের নিঙ্কুশ বিজয় নবীগঞ্জের ঘোলডোবা এম সি উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি বিলুপ্ত মাধবপুরে দোকান থেকে ১১ বস্তা ভিজিডির চাল জব্দ যুক্তরাষ্ট্রে জ্বালানি ব্যবহারে গ্যাসের ভূমিকা শীর্ষক কনফারেন্সে এমপি আবু জাহির শহরের পুরাতন খোয়াই নদীতে ২৫০টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ সামাজিক সংগঠন ‘বন্ধু মেলা’ এর আহ্বায়ক কমিটি গঠন মাধবপুরে দু’মাদক পাচারকারীকে ভ্রাম্যমান আদালতের কারাদন্ড অসাধু বিদ্যুৎ কর্মচারীদের সহযোগিতায় শহরের অর্ধশতাধিক অবৈধ টমটম গ্যারেজ নবীগঞ্জে বিয়ের প্রস্তাবে সম্মতি না দেয়ায় দুই বোনকে পিঠিয়ে আহত
হবিগঞ্জে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম ॥ রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তনই উত্তম পন্থা

হবিগঞ্জে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম ॥ রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তনই উত্তম পন্থা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তন করাই উত্তম পন্থা। মিয়ানমারে তাদের প্রত্যাবাসনের জন্য সরকার আন্তরিকভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এ জন্য জাতিসংঘসহ সবাই মিলে কাজ করছে। আমাদের পক্ষ থেকে উদ্বেগ অব্যাহত থাকবে। স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম এমপি এসব কথা বলেছেন। তিনি আরও বলেন, সারা বাংলাদেশের সমগ্র উন্নয়নের জন্য সরকার অঙ্গীকারাবদ্ধ। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে হবিগঞ্জের যে সমস্ত রাস্তা জনমানুষের কল্যাণের জন্য নির্মিত হওয়া দরকার তা অগ্রাধিকার দেয়া হবে। ডেঙ্গু বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ডেঙ্গু নিয়ে জাতির জন্য দায়বদ্ধদের অপমান অপদস্ত না করে কাজ করার সুযোগ দিতে হবে। সকলে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। ডেঙ্গু নিয়ে বিশেষ অবদানের জন্য সম্মাননা গ্রহণের একটি সংবাদের প্রসঙ্গ টেনে মন্ত্রী বলেন, আমি একটা ডিবেট ফর ডেমক্রেসি অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছি। সেখানে ডেঙ্গু নিয়ে একটি ডিবেটিং ছিল। সেখানে তারা আমাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরাও ছিলেন। সেখানে তারা আমাকে একটি শুভেচ্ছা স্মারক দিয়েছে। আমি এটি গ্রহণ করেছি। কিন্তু সংবাদে ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে ছাপা হয়েছে। এটি দুঃখজনক। শনিবার দুপুরে হবিগঞ্জ সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। এর আগে মন্ত্রী হবিগঞ্জ পৌরসভার উদ্যোগে নির্মিত কিচেন মার্কেট উদ্বোধন করেন। এ সময় অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির এমপি, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. আব্দুল মজিদ খান এমপি ও গাজী মোহাম্মদ শাহ নেওয়াজ এমপি, জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবীর মুরাদ, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা, পৌর মেয়র মিজানুর রহমান মিজান, কাউন্সিলর শেখ নূর হোসেন ও আব্দুল আওয়াল মজনু প্রমূখ।
উল্লেখ্য, সরকারের বিএমডিএফ ও হবিগঞ্জ পৌরসভার যৌথ অর্থায়নে ২ কোটি ৮৫ লাখ টাকা ব্যয়ে এ কিচেন মার্কেট নির্মাণ করে হবিগঞ্জ পৌরসভা।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com