রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:১১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
সাতছড়ি উদ্যান পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব লাখাই উপজেলার কৃষ্ণপুর গণহত্যা দিবস পালিত শিবপাশা নবদম্পতির আত্মহত্যার চেষ্টা আজমিরীগঞ্জের কাকাইলছেও ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রের নার্স ও সহকারীর বিরুদ্ধে এন্তার অভিযোগ দূর্গাপূজা উপলক্ষ্যে নতুন শাড়ি ও মাস্ক বিতরণ করেছেন গিরেন্দ্র চন্দ্র রায় চুনারুঘাট উপজেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত নবীগঞ্জে সিএনজি চোর চক্রের সদস্য গ্রেফতার ॥ সিএনজি ফিরিয়ে দেয়ার নামে ১ লাখ টাকাও হাতিয়ে নেয় নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় সাংবাদিক সরওয়ার ও মুজিবের উপর মিথ্যা মামলা দায়েরে নিন্দা হবিগঞ্জে ৯/১১ ব্যাচের বন্ধুদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে মিলন মেলা বিএনপির মতবিনিময় সভায় জিকে গউছ ॥ মানুষের ভোটাধিকার ছিনতাই করে আ.লীগ গণতন্ত্র ধ্বংস করেছে

শহরের ডিমের পাইকারী ব্যবসায়ীর ৪ লাখ টাকা নিয়ে ট্রাকের হেলপার উধাও

  • আপডেট টাইম সোমবার, ২ আগস্ট, ২০২১
  • ১৯ বা পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জ শহরের ইকমার-সুজাতপুর স্ট্যান্ড এলাকার ডিমের এক পাইকারী ব্যবসায়ীর ৪ লাখ টাকা নিয়ে উধাও হয়ে গেছে রাসেল মিয়া নামে এক গাড়ী হেলপার। এ ঘটনায় ব্যবসায়ী তৌহিদ মিয়া হবিগঞ্জ সদর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশ ও ব্যবসায়ীদের সূত্র জানায়, উল্লেখিত এলাকার দীর্ঘদিন ধরে হবিগঞ্জ সদর উপজেলার লুকড়া ইউনিয়নের চানপুর গ্রামের সাবেক মেম্বার মজনু মিয়া সিলেটে মেসার্স মহানগর ডিমের আড়ত ও হবিগঞ্জ এগ্স নামে ২টি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ডিম পাইকারী ব্যবসা করে আসছেন। হবিগঞ্জ এগ্স পরিচালনা করছেন মেম্বার মজনু মিয়ার ছোট ভাই তৌহিদ মিয়া ও রাফাজুল মিয়া মিয়া। শনিবার সন্ধ্যায় ব্যাংক বন্ধ থাকার কারণে মজনু মিয়ার ছোট ভাই রাফাজুল ইসলাম নগদ ৭ লাখ টাকা দিয়ে তার ট্রাক চালক সেকুল মিয়া ও হেলপার রাসেল মিয়াকে কিশোরগঞ্জ থেকে ডিম নিয়ে আসার জন্য পাঠান। রাত সাড়ে ৮টার দিকে ট্রাকটি কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী পৌছলে হেলাপার রাসেল মিয়া টয়লেট করার কথা বলে কৌশলে ট্রাক থেকে নেমে যায়। অনেক অপেক্ষার পর রাসেল মিয়া ট্রাকে ফিরে না আসায় ট্রাক চালক রাসেলের মোবাইল ফোনে দিয়ে ফোনটি বন্ধ পায়। এ সময় চালক দেখতে পান রাসলের হাতে থাকা ৪ টাকার ব্যাগটি নেই। পরে সেকুল মিয়া এ বিষয়টি রাফাজুলকে অবগত করলে তিনি কিশোরগঞ্জের ডিমের আড়তদার তার হাতে থাকা ৩ লাখ টাকা দিয়ে ডিম নিয়ে আসার কথা বলেন। পরবর্তীতে ট্রাক চালক সেকুল মিয়া ৩ লাখ টাকার ডিম নিয়ে আসেন। পরবর্তীতে রাসেলের আত্মীয় স্বজনের বাড়িঘরে খোঁজ করেও তার কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। রাসেল মিয়া সিলেটের গোয়াউনঘাট উপজেলার বিছনাকান্দি এলাকার মুজিবুর রহমানের পুত্র। বতর্মানে সে বানিয়াচং উপজেলার পুকড়া ইউনিয়নের বালিখাল গ্রামে তার শ্বশুরবাড়িতে বসবাস করে আসছিল। গতকাল বিকেলে এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা স্বীকার করে তদন্ত করে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যব¯’া নেয়ার কথা জানিয়েছেন হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মাসুক আলী।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Design and Development BY ThemesBazar.Com