সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ১২:৪৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
বাগুনীপাড়ায় স্কুল ছাত্রীকে সুটকেসে ভরে দিনে দুপুরে টাকা স্বর্ণালংকার লুট চুনারুঘাটের বিভিন্ন গ্রামে সুপ্রীম সীড এর বাঁধা কপির বাম্পার ফলন চুনারুঘাটে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ পুলিশসহ আহত ২০ ॥ আটক ২ আমার রাজনীতি সাধারণ মানুষের জন্য-আতাউর রহমান সেলিম কামাল হোসেন ও আক্রাম হোসেনের সৌজন্যে নবীগঞ্জের গুজাখাইরে ৩শ শীতার্থ মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ আরাফাত রহমান কোকোর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে নবীগঞ্জে বিএনপির মাহফিল চুনারুঘাটে পুলিশের ন্যাক্কারজনক হামলা লাঠিচার্জ ও গ্রেফতারের ঘটনায় মীর্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নিন্দা জামিআ আরাবিয়া দিনারপুর মাদ্রাসার ৬৭তম ইসলামী সম্মেলন অনুষ্ঠিত পইল গ্রামের ক্যান্সার আক্রান্ত বিলালকে তাসনুভা শামীম ফাউন্ডেশনের চিকিৎসা সহায়তা প্রদান বাহুবলে সরকারি খাল ভরাট করে মাটি পাচারের দায়ের ব্রিক ফিল্ড মালিককে অর্থদন্ড
ভাগ্য ফেরাতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরেছেন হবিব উল্লাহ

ভাগ্য ফেরাতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরেছেন হবিব উল্লাহ

মখলিছ মিয়া ॥ ভাগ্য ফেরাতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন বানিয়াচঙ্গের এক প্রবাসী। উপজেলা সদরের যাত্রাপাশা গড়পাড় এলাকার হবিব উল্লাহ পরিবারের সচছলতা ফিরিয়ে আনতে বিদেশ গিয়ে মঙ্গলবার লাশ হয়ে ফিরলেন নিজ বাড়ীতে। হবিব উল্লাহ সদরের ৪নং দক্ষিণ-পশ্চিম ইউনিয়নের যাত্রাপাশা গড়পাড় এলাকার আমীন উল্লাহর পুত্র। কফিনবন্দী লাশ বাড়ীতে পৌছার পর এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। প্রবাসে যাওয়ার সময় যে প্রিয়জনকে বিদায় দিয়েছিলেন পরিবারের সবাই আনন্দচিত্তে, আজ আর সেই আনন্দ নেই, সবার চোখের কোনে জমাটবদ্ধ পানি। আজ যে তাদের প্রিয়জন এসেছেন নীরবে কফিন বাক্সে করে। পরিবারের সবার কত আবদার ছিল তাদের প্রিয়জনের কাছে। কত কথা জমে আছে প্রিয়জনকে বলবেন বলে। এগুলো এখন কেবলই স্মৃতি। তাদের প্রিয়জন আর কখনও কথা বলবেন না। চিরদিনের জন্য বিদায় নিলেন এই জগত থেকে। পরিবারের সুখের আশায় ৩০ বছর আগে মধ্যে প্রাচ্যের দেশ ওমানে পাড়ি দিয়েছিলেন হবিব উল্লাহ । আরো ২ ভাইকে নিয়েছিলেন সেখানে। প্রবাস জীবনে বেশ সফলও হয়েছিলেন। একান্ত ইচ্ছা ছিল পরিবারকে অর্থনৈতিকভাবে শক্ত একটি ভীতের উপর দাঁড় করে বাকী জীবনটুকু পরিবারের সঙ্গে কাটি দেওয়া। নিয়তির নির্মম পরিহাস, গত ১৪ নভেম্বর রেমিটেন্স যোদ্ধা হবিব উল্লাহ (৫০) মারা গেছেন ওমানে। পরিবারের ৪ ভাই ও ২ বোনের মধ্যে হবিব উল্লাহ সবার বড়। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি পরিবারকে আগলে রেখেছেন। নিজে শত কষ্টে থাকলেও পরিবারের মানুষজনকে সব সময় সুখে রাখার চেষ্টা করতেন। প্রিয় মানুষকে হারিয়ে বৃদ্ধ পিতা, ভাই-বোন, স্ত্রী-সন্তানসহ স্বজনরা সবাই বাকরুদ্ধ। গতকাল মঙ্গলবার ওমান থেকে লাশ আসার পর বাদ আছর বন মুথুরা জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে জানাযার নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। তার ৪ ছেলে। জ্যেষ্ঠ সন্তান রাকিব এসএসসি পরীক্ষার্থী। বাকী ভাইয়েরাও সবাই লেখাপড়ায়। এহেন অবস্থায় পিতৃবিয়োগে সন্তানদের জন্য বড় ধাক্কা বলে মনে করছেন এলাকাবাসী। হবিব উল্লাহ খুব শান্ত-শিষ্ট ও ভদ্র মানুষ ছিলেন। হবিব উল্লার মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com