রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:১০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
সাতছড়ি উদ্যান পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব লাখাই উপজেলার কৃষ্ণপুর গণহত্যা দিবস পালিত শিবপাশা নবদম্পতির আত্মহত্যার চেষ্টা আজমিরীগঞ্জের কাকাইলছেও ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রের নার্স ও সহকারীর বিরুদ্ধে এন্তার অভিযোগ দূর্গাপূজা উপলক্ষ্যে নতুন শাড়ি ও মাস্ক বিতরণ করেছেন গিরেন্দ্র চন্দ্র রায় চুনারুঘাট উপজেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত নবীগঞ্জে সিএনজি চোর চক্রের সদস্য গ্রেফতার ॥ সিএনজি ফিরিয়ে দেয়ার নামে ১ লাখ টাকাও হাতিয়ে নেয় নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় সাংবাদিক সরওয়ার ও মুজিবের উপর মিথ্যা মামলা দায়েরে নিন্দা হবিগঞ্জে ৯/১১ ব্যাচের বন্ধুদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে মিলন মেলা বিএনপির মতবিনিময় সভায় জিকে গউছ ॥ মানুষের ভোটাধিকার ছিনতাই করে আ.লীগ গণতন্ত্র ধ্বংস করেছে

লাখাইর হাওরে নৌকা ভ্রমণে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার নববধূ ॥ স্বামী ও স্বামীর বন্ধুর হাত-পা ভেঙ্গে দিয়েছে লম্পটরা

  • আপডেট টাইম বৃহস্পতিবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ২২ বা পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ লাখাই উপজেলার টিক্কাপুর হাওরে নৌকা ভ্রমণে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছে এক নববধূ। এ সময় লম্পটরা স্বামী ও তার বন্ধুকে বেধে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙে দেয়। এমনকি ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে তাদেরকে চুপ থাকতে বলে। পরবর্তীতে ভিডিও প্রকাশের হুমকি দিয়ে পুনরায় ওই নারীকে তাদের কাছে যাবার জন্য বলে। এতে রাজি না হলে লম্পটরা ধর্ষণের ভিডিওটি গ্রামবাসীর মাঝে ছড়িয়ে দেয়।
লম্পটদের হামলায় গুরুতর আহত ওই নারীর স্বামী রকিব আহমেদ (২৫) কে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে এবং তার বন্ধু রাকিব মিয়াকে (২৪) কে নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এরকম একটি ঘটনায় সর্বত্র তোলপাড় চলছে।
গতকাল বুধবার দুপুর ১২টার দিকে ওই নারীকে অসুস্থ অবস্থায় হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি এ প্রতিনিধিকে জানান, একমাস আগে উপজেলার মোড়াকড়ি গ্রামের রকিব আহমেদের সাথে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পরই রকিব কাজের জন্য ঢাকা চলে যায়। কিছুদিন আগে সে বাড়িতে আসে। গত ২৫ আগষ্ট দুপুরে তারা দুজন স্বামী-স্ত্রী ও স্বামীর বন্ধু একই গ্রামের রাকিব মিয়াকে নিয়ে পার্শ্ববর্তী টিক্কাপুর হাওরে নৌকা ভ্রমণে যান। কিছুক্ষণ পর একই গ্রামের ৭/৮ জন যুবক তাদের নৌকার গতিরোধ করে। এক পর্যায়ে তাদের নৌকা থেকে তার স্বামী ও স্বামীর বন্ধুকে ধরে নিয়ে বেধে মারধোর করে তাদের হাত পা ভেঙে ফেলে এবং অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ওই নারীকে তারা পালাক্রমে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করে রাখে। পরে তাদেরকে হুমকি দিয়ে লম্পটরা চলে যায়। এদিকে লোকলজ্জা আর তাদের হুমকি এবং ওই যুবকরা প্রভাবশালী হওয়ায় ওই নারী কাউকে বিষয়টি জানাননি। তবুও গত কয়েকদিন ধরে লম্পটরা ওই ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে তাকে আবারও ধর্ষণ করতে চাপ দিলে সে মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে। বেশ কয়েকবার আত্মহত্যারও চেষ্টা করে। অবশেষে গত মঙ্গলবার লম্পটরা ভিডিওটি ছড়িয়ে দিলে বিষয়টি জানাজানি হয়। খবর পেয়ে র‌্যাব-৯ এর সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং সদর হাসপাতালে ওই নারীর জবানবন্দি নেন।
লাখাই থানার ওসি মোঃ সাইদুর রহমান জানান, বিষয়টি শুনেছি। অভিযোগ পাওয়ার পর ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে ওই নারী হাসপাতালে এ প্রতিনিধিকে বলেন, লম্পটরা প্রভাবশালী এবং কতিপয় রাজনৈতিক দলের নেতার আত্মীয়। তিনি আদালতে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানান।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Design and Development BY ThemesBazar.Com