রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১১:৫২ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
উৎসব মূখর পরিবেশে আজ হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন ॥ লড়াই হবে ত্রি-মুখি বানিয়াচঙ্গে পুলিশের অভিযান কালাশাহ সহ ৩ ডাকাত গ্রেপ্তার হবিগঞ্জে আরো ৬২৭ জন করোনা টিকা গ্রহণ করেছেন নবীগঞ্জ ৯নং বাউসা ইউনিয়ন বিএনপির বর্ধিত সভা অনুষ্টিত হবিগঞ্জে উৎসব মুখর পরিবেশে সমকাল জাতীয় বিজ্ঞান বিতর্ক উৎসব নবীগঞ্জে বিষ প্রয়োগে ২৫০টি হাঁস নিধন ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ নবীগঞ্জ উপজেলার কাউন্সিল কার্যক্রম সম্পন্ন চুনারুঘাটে মরহুম সফিক মিয়া স্মরণে ফ্রিজ কাপ ক্রিকেট টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন হবিগঞ্জে নৌকার জয় হলে শেখ হাসিনার জয় হবে-ব্যরিস্টার শেখ ফজলে নাঈম একনায়কতন্ত্রের বিরুদ্ধে বিএনপির প্রার্থী সেলিমকে ধানের শীষে ভোট দিন-জিকে গউছ
শায়েস্তাগঞ্জে কিশোরী বিউটি ধর্ষণ ও হত্যা তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে এসআই জাকিরের ॥ দায়িত্বে অবহেলা প্রমাণিত বিভাগীয় ব্যবস্থার সুপারিশ

শায়েস্তাগঞ্জে কিশোরী বিউটি ধর্ষণ ও হত্যা তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে এসআই জাকিরের ॥ দায়িত্বে অবহেলা প্রমাণিত বিভাগীয় ব্যবস্থার সুপারিশ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শায়েস্তাগঞ্জে আলোচিত কিশোরী বিউটি ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় তদন্তকারী কর্মকর্তা শায়েস্তাগঞ্জ থানার এসআই জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে পুলিশের গঠিত তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন দিয়েছে। এতে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আ.স.ম শামছুর রহমান ভূঁইয়া এর সত্যতা স্বীকার করে জানান, তার বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। তাই বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। এছাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনিছুর রহমানকে সতর্ক করার পাশাপাশি দায়িত্ব পালনে আরও দায়িত্ববান হওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। প্রকাশ, ২১ জানুয়ারী প্রথম দফায় শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার ব্রাহ্মণডোরা গ্রামের সায়েদ আলীর মেয়ে বিউটি আক্তারকে অপহরণের পর ধর্ষণ করা হয়। এ ঘটনায় ৪ মার্চ বিউটির বাবা সায়েদ আলী বাদি হয়ে একই গ্রামের বাবুল মিয়া ও তার মা ইউপি সদস্য কলম চান বিবির বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেন। এরপরও পুলিশের পক্ষ থেকে কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। পরবর্তীতে ১৬ মার্চ রাতে বিউটি লাখাই উপজেলা গুণিপুর গ্রামে নানার বাড়ি থেকে অপহৃত হয়। ১৭ মার্চ সকালে শায়েস্তাগঞ্জের হাওরে তার মরদেহ পাওয়া যায়। উক্ত ঘটনায় সায়েদ আলী বাদি হয়ে পূণরায় উল্লেখিত আসামীদের বিরুদ্ধে শায়েস্তাগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলাগুলোর তদন্তকারী কর্মকর্তা ছিলেন এসআই জাকির হোসেন। তদন্তে তিনি গাফিলতি করেন বলে অভিযোগ উঠলে ২৯ মার্চ পুলিশ সুপার বিধান ত্রিপুরা ঘটনাটি তদন্তে ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেন এবং তাকে ক্লোজড করা হয়। কমিটির প্রধান করা হয় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আ.স.ম শামছুর রহমান ভূঁইয়াকে। এছাড়া অপর সদস্যরা হলেন অতিরিক্ত পুলিম সুপার বানিয়াচঙ্গ সার্কেল শৈলেন চাকামা ও এএসপি হেড কোয়ার্টার মোঃ নাজিম উদ্দিন। কমিটিকে ৩ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য বলা হয়। তদন্ত শেষে কমিটি মঙ্গলবার বিকেলে পুলিশ সুপারের নিকট তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com