বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:৩৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন আজ ॥ ত্যাগী নেতাদের মূল্যায়ন করা হবে প্রত্যাশা তৃণমূল নেতাকর্মীদের ভারতীয় চা পাতা চোরাচালান রোধে চুনারুঘাটে বিশেষ আইন শৃংখলা সভা অনুষ্টিত চুনারুঘাটে অনশন করে স্ত্রীর মর্যাদা পেল রিতু শায়েস্তাগঞ্জ প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনের তফসীল ঘোষণা খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে জেলা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের বিক্ষোভ নবীগঞ্জে জাতীয় পার্টি থেকে ১৫ নেতাকর্মীর গণফোরামে যোগদান হবিগঞ্জ জেলা আ.লীগের সম্মেলনকে স্বাগত জানিয়ে ছাত্রলীগের প্রচার মিছিল বানিয়াচংয়ে টিসিবি’র পেঁয়াজ বিক্রি ॥ উপচে পড়া ভীড় শহরতলীর নোয়াগাও গ্রামে টমটম চার্জে অবৈধ বিদ্যুত সংযোগ ব্যবহার করার দায়ে আদালতে মামলা নবীগঞ্জে পৌর বিএনপির ৭নং ওয়ার্ড কমিটি গঠিত ॥ দেলোয়ার সভাপতি ও কুরুশ সম্পাদক ও আলমগীর সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত
চুনারুঘাটে মতবিনিময় সভায় পবন চৌধুরী ॥ ১৫ বছরে ১শ’ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ১ কোটি লোকের কর্মসংস্থান হবে

চুনারুঘাটে মতবিনিময় সভায় পবন চৌধুরী ॥ ১৫ বছরে ১শ’ অর্থনৈতিক অঞ্চলে ১ কোটি লোকের কর্মসংস্থান হবে

চুনারুঘাট প্রতিনিধি ॥ বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী বলেছেন, আগামী ১৫ বছরে দেশে ১শ’টি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করা হবে। এসব অঞ্চলে কর্মসংস্থান হবে প্রায় ১ কোটি মানুষের। এই অঞ্চলকে কেন্দ্র চীন ৩২ হাজার কোটি টাকা, ভারত ৭৭০ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব দিয়েছে। জাপানসহ অন্যান্য দেশও তাদের আগ্রহ প্রকাশ করেছে। ইতোমধ্যে মৌলভীবাজারের শেরপুরে ৩৬৫ কোটি টাকা ব্যয়ে অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার কাজ শুরু হয়েছে। দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে এসব অঞ্চল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে চুনারুঘাট উপজেলার অগ্রণী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে হবিগঞ্জ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের লক্ষ্যে মতবিনিময় সভায় তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। তিনি বলেন, গত জেলা প্রশাসক সম্মেলনে যে ১২টি প্রশ্ন করা হয়েছিল তার ১১টিই ছিল অর্থনৈতিক অঞ্চল সংশ্লিষ্ট। এসব অঞ্চল প্রতিষ্ঠা হলে স্থানীয় লোকজন, জেলাবাসী ও সর্বোপরি দেশ তথা বিশ্ববাসী উপকৃত হবেন। চুনারুঘাট উপজেলার চান্দপুর চা বাগানে অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা নিয়ে আর কোন সন্দেহ নেই। বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যে জমি বুঝে পেয়েছে। এখন এটি প্রতিষ্ঠায় আর কোন প্রতিদ্বন্ধকতা নেই। তবে যেহেতু চা শ্রমিকরা এখানে বিভিন্ন দাবি উত্থাপন করেছে তার জন্য তাদের আবাসন, চিকিৎসা ও শিক্ষার উন্নয়ন করা হবে। অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা হলে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে আরো শিল্পায়ন হবে। তিনি আরো বলেন, হবিগঞ্জ অর্থনৈতিক অঞ্চল অবশ্যই উন্নত প্রযুক্তি এবং পরিবেশবান্ধব হবে। পাশাপাশি শ্রমিকদেরকে দক্ষ হিসেবে গড়ে তুলতে দক্ষতা বৃদ্ধি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে।
জেলা প্রশাসক সাবিনা আলমের সভাপতিত্বে ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাশহুদুল কবিরের সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যুগ্ম সচিব জিয়াউল হাসান, উপ-সচিব সালেহ আহমেদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সফিউল আলম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) রোকন উদ্দিন, চুনারুঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ আবু তাহের, ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব লুৎফুর রহমান মহালদার, পৌর মেয়র নাজিম উদ্দিন সামছু, এসিল্যান্ড তন্ময় ইসলাম, ওসি অমুল্য কুমার চৌধুরী, চা শ্রমিক নেতা বিবেকানন্দ ভৌমিক, সমতা তাতি, সৌমিত্র কর্মকার, বিকাশ তাতি প্রমুখ। পরে হবিগঞ্জ অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য বরাদ্দকৃত জমি পরিদর্শন করেন কর্মকর্তাবৃন্দ।  এদিকে চা বাগানের জমিতে অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপনের প্রতিবাদে বেগমখান চা বাগানে নাচঘরে শ্রমিক সমাবেশের আয়োজন করে চা শ্রমিকরা। সেখানেও সকল অতিথি অংশগ্রহণ করেন। সেখানে অতিথিবৃন্দ ছাড়াও বক্তব্য রাখেন চা শ্রমিক নেতা অভিরত বাগতি, স্বপন সাওতাল, নিপেন পাল, শৈলেন ভূমিজ, সূর্য রায় প্রমূখ।
প্রসঙ্গত, পুরাতন ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে চান্দপুর চা বাগানের অব্যবহৃত জমিকে লীজের শর্ত বহির্ভুতভাবে ব্যবহার করায় লীজ বাতিল করে ৫১১ একর জমি বেজার কাছে হস্তান্তর করা হয়।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com