রবিবার, ০৯ অগাস্ট ২০২০, ০৫:৪৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
বানিয়াচংয়ে মাছ ধরা নিয়ে দুই গ্রামবাসীর ভয়াবহ সংঘর্ষ নবীগঞ্জে রাতে নিখোঁজ ব্যক্তির সকালে ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার বঙ্গমাতা ছিলেন বাঙালির মুক্তিসংগ্রামের অন্যতম অগ্রদূত ॥ এমপি আবু জাহির শহরে টমটমসহ যানবাহনের ডাবল ভাড়া কমানোর দাবি নবীগঞ্জে দুইটি বিদ্যালয়ের নাম নিয়ে হাস্যরস ॥ গন্ধা গ্রামের স্কুলের নাম ‘গনজা স:প্রা:বি’ খনকারিপাড়া গ্রামে ‘ঋণকারীপাড়া স:প্রা:বি’ বঙ্গমাতার জন্ম দিবসে হবিগঞ্জ জেলা আ.লীগের মিলাদ ও দোয়া মাহফিল বাহুবলে গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট শরীফ উদ্দিন এর ২৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভা নবীগঞ্জের দিলীপ ভট্টাচার্য্যের মৃত্যুতে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আ.লীগ সাধারণ সম্পাদকের শোক বাইপাস থেকে মোটর সাইকেলসহ এক মাদক বিক্রেতা আটক
কালনী গ্রামে কৃষক মতি মিয়া হত্যা মামলায় ৯ জন কারাগারে

কালনী গ্রামে কৃষক মতি মিয়া হত্যা মামলায় ৯ জন কারাগারে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জ সদর উপজেলা কালনী গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলায় কৃষক মতি মিয়া হত্যা মামলার ৯ আসামীকে কারাগারে প্রেরণ করেছে আদালত। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে মামলার আসামী ফুল মিয়া, সোহেল মিয়া, ছামিউন মিয়া, জলফু মিয়া, সুজন মিয়া, রুমন মিয়া, হাফিজুর মিয়া, আলকাছ মিয়া, সোবহান মিয়া হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ তৌহিদুল ইসলামের আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করেন। আদালত শুনানী শেষে তাদের জামিন না মঞ্জুর করেন। মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবি অ্যাডভোকেট ত্রিলোক কান্তি চৌধুরী বিজন জানান, গত ২০ অক্টোবর নিহত মতি মিয়ার ছেলে রতন মিয়া একই গ্রামের ফুল মিয়ার আত্মীয়ের দোকান থেকে জুতা ক্রয় করে এবং টাকা পরিশোধ করে। কিন্তু ফুল মিয়াকে তার আত্মীয় বলে, জুতা ক্রয়ের টাকা রতন মিয়া পরিশোধ করেনি। টাকা পরিশোধ না করায় ঘটনার দিন বিকেলে ফুল মিয়া ছালেক মিয়ার চায়ের দোকানের সামনে রতন মিয়াকে অশ্লীল ভাষায় গালি-গালাজ করে এবং মারধোর করে। পরে রতন মিয়া কান্নাকাটি করে তার বাবাকে এ ঘটনা জানায়। পরে তার বাবা মতি মিয়া ওইদিন সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ফুল মিয়াকে এ ব্যাপারে জিজ্ঞেস করতে যান। পথিমধ্যে ছালেক মিয়ার দোকানের সামনে ফুল মিয়াকে পেয়ে তার ছেলেকে মারধোরের ব্যাপারে জিজ্ঞেস করলে ফুল মিয়া উত্তেজিত হয়ে তার লোকজনদের নিয়ে মতি মিয়ার উপর হামলা চালায়। এ সময় তারা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র দিয়ে মতি মিয়ার শরীরে আঘাত করে মাটিতে ফেলে চলে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয় মেম্বার সাস্তু মিয়াসহ এলাকার লোকজন তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে নিহতের লাশের ময়না তদন্ত শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই আছকির মিয়া বাদী হয়ে ১১ জনকে আসামী করে মামলাটি দায়ের করেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com