সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০২:৫৯ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
প্রেমিকার সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করায় তেঘরিয়ার খোকনকে গলা টিপে হত্যা ॥ প্রেমিকা ও তার বন্ধু ও বান্ধবী গ্রেফতার হবিগঞ্জ জেলাকে মডেল হিসেবে গড়ে তুলতে চান জেলা প্রশাসক ইশরাত জাহান খোশ আমদেদ মাহে রমজান সার-বীজ বিতরণ অনুষ্ঠানে এমপি আবু জাহির ॥ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ না করে রাস্তায় বের হওয়া মানেই জীবনের ঝুঁকি ব্রি ৮৮ জাতের নতুন ধান আগাম কাটতে পেরে বেজায় খুশি কৃষক হবিগঞ্জে স্বাস্থ্য-বিধি লঙ্ঘনের করায় ৪০ জনকে জরিমানা ঠিকাদারের বিরুদ্ধে সুতাং বাজারের পুরাতন ব্রীজের রাড বিক্রির অভিযোগ ॥ ট্রাক বোঝাই রড আটক বানিয়াচংয়ে ব্র্যাক সিড এর ধান কর্তন সহায়তা কর্মসূচি ল্যাবএইড হাসপাতালে ৮ কেজি ওজনের টিউমার অপসারণ সংবাদ সম্মেলন দাবী ॥ গ্রাম্য মাতব্বরদের ইন্ধনে বানিয়াচংয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় নারী আহত
শহরে বাসায় ডেকে নিয়ে তরুন আইনজীবীকে কুপিয়ে ক্ষতবিক্ষত

শহরে বাসায় ডেকে নিয়ে তরুন আইনজীবীকে কুপিয়ে ক্ষতবিক্ষত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জ শহরের ইনাতাবাদ এলাকায় বাসায় ডেকে এনে এক বন্ধু অপর বন্ধুকে কুপিয়ে মারাত্বকভাবে আহত করেছেন। আহত অ্যাডভোকেট এনামুলক হক এনাম জেলা আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর যুবলীগ সহ-সভাপতি এবং হামলাকারী এনামুল হক শাহীন হবিগঞ্জ পৌর যুবলীগের সহ-সভাপতি। উভয়ের বাসার অবস্থান পাশাপাশি। এ ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হামলাকারী এনামুল হক শাহীনের স্ত্রী রুবী বেগম (২৮), শাহীনের বড় ভাই আব্দুল হান্নানের স্ত্রী শ্যামলা বেগম (৩২) ও ছোট বোন আকিকুন নেছাকে (২২) পুলিশ থানায় নিয়ে আসে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আকিকুন নেছাকে ছেড়ে দেয়া হয়। অপর দু’জনকে আটক দেখিয়ে কোর্টে প্রেরণ করলে বিজ্ঞ বিচারক তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করেন। হামলাকারী শাহীন আত্মগোপন করেছে। পুলিশ শাহীনকে গ্রেফতারে বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা চালিয়েছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাত দেড়টার সময় এনামুল হক শাহীন তার স্ত্রী রুবী বেগমকে দিয়ে অ্যাডভোকেট এনামকে বাসায় আসতে বলে। এনাম এত রাতে আসতে না চাইলে জরুরী কাজ আছে বলে আবারও অনুরোধ করলে এনাম তার বাসায় যায়। এসময় তুচ্ছ বিষয় নিয়ে উভয়ের মাঝে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে শাহিন দা দিয়ে এনামকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে ক্ষত-বিক্ষত করে। এ সময় তাকে বাঁচাতে এগিয়ে যায় এনামের ছোট ভাই শহীদুল হক ও প্রতিবেশী এস এম আওয়াল। শাহীনের হামলায় শহীদুল আহত হয়। আহত আইনজীবী এনামুল হক এনামকে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় প্রথমে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে আসলে আশংকাজনক অবস্থায় রাতেই সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। গতকাল বুধবার সকালে তাকে ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়েছে। এ ছাড়া আহত শহীদুল হককে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পর পরই পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হামলাকারী এনামুল হক শাহীনের স্ত্রী রুবী বেগম, শাহীনের বড় ভাই আব্দুল হান্নানের স্ত্রী শ্যামলা বেগম ও ছোট বোন আকিকুন নেছাকে থানায় নিয়ে আসে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আকিকুন নেছাকে ছেড়ে দেয়।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়- আইনজীবী এনামুল হক এনাম ও শহীদুল হক হামলাকারী এনামুল হক শাহিনের ইনাতাবাদের বাসায় ভাড়া থাকেন। এনাম ও শাহীনের মাঝে গভীর বন্ধুত্ব রয়েছে। তবে শাহীন প্রায়ই মানসিকভাবে অসুস্থ থাকে। এক বছর পূর্বে থানায় গিয়ে পুলিশের কাছে ‘বন্ধু মাইরা লাইব’ বলে চিৎকার করত। তাকে মানসিক হাসপাতালে ভর্তির উদ্যোগ নিলে এতে সে অস্বীকৃতি জানায়। পরে সে দাড়ি রেখে ভাবুকের মত চলাফেরা করত। সম্প্রতি সে ক্লিন সেভ করে পুর্বের ন্যায় স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে থাকে।
এদিকে অ্যাডভোকেট এনাম গত ২১ অক্টোবর জময ছেলে সন্তানের জনক হলে তাদেরকে নিয়েই ব্যস্থ থাকত অধিকাংশ সময়।
হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি নাজিম উদ্দিন জানান, হামলাকারীকে আটক করতে পুলিশের অভিযান চলছে। তবে, কি কারণে হামলার ঘটনা ঘটেছে, তা জানা যায়নি। আটককৃতদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে তথ্য উদঘাটনের চেষ্টা করা হবে।
এদিকে হবিগঞ্জ আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট এনামুল হকের উপর বর্বোরোচিত হামলার প্রতিবাদে গতকাল সংগঠনের এক প্রতিবাদ সভা আইনজীবি সমিতির হল র”মে অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সভাপতি এডভোকেট আব্দুল মোছাব্বির এর সভাপতিত্বে  এবং সাধারণ সম্পাদক নিলাদ্রী শেখর টিটুর পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন চৌধুরী আবু বকর সিদ্দিকী, সালেহ উদ্দিন আহমেদ, আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক সুবির রায়, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান কাজল, সিনিয়র সদস্য সৈয়দ আফজাল আলী দুদু, সুমঙ্গল দাশ সুমন, এম শামীম আহমেদ, রাজিব কুমার দে, আবুল কালাম আজাদ, সুলতান মাহমুদ, মোঃ এনামুল হক, দেবাংশু দাশগুপ্ত রাজু, কনক জ্যোতি সেন রাজু ও মোঃ মিজানুর রহমান, শফিউল আলম ফরহাদ ও সুজিত চন্দ্র গোপ প্রমুখ।
সভায় আইনজীবি এনামুল হকের উপর হামলার তীব্র নিন্দা জানানো হয়। বক্তারা বলেন, হামলাকারীদের অনতিবিলম্বে গ্রেফতার এবং দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। এছাড়াও বক্তারা এই বর্বরোচিত হামলার প্রতিবাদে বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা করেন। পরবর্তীতে জেলা আইনজীবী সমিতি কর্তৃক ঘোষিত কর্মসূচির প্রতি একাত্মতা ঘোষণা করে তাদের ঘোষিত কর্মসূচি স্থগিত করেন এবং আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সকল নেতৃবৃন্দকে জেলা আইনজীবী সমিতি কর্তৃক ঘোষিত সকল কর্মসূচীতে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণের উদ্বার্ত আহবান জানান।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com