বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ০৩:৩৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
সিগন্যাল অমান্য করে ক্রসিংয়ে প্রবেশ ॥ লস্করপুরে ট্রেনের ধাক্কায় সিএনজি যাত্রী নিহত বানিয়াচং হাসপাতালে সরকারি নিয়ম ভঙ্গ করে রোগীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায় বাজেট অধিবেশনের বক্তব্যে এমপি আবু জাহির ॥ দেশের মানুষ এখন ‘গরীব বাঁচানোর বাজেট’ শ্লোগানে আনন্দ-উল্লাস করে শায়েস্তাগঞ্জে ৪ কেজি গাঁজাসহ যুবক গ্রেপ্তার জেলা ছাত্রদল সভাপতি রিংগনের মুক্তির দাবিতে নবীগঞ্জে তৌহিদ চৌধুরীর নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল চুনারুঘাটে ৬ বছরের ব্যবধানে দুই ভাইকে হত্যা ॥ গ্রেপ্তার ৩ বানিয়াচংয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন বাস্তবায়নে সেমিনার অনুষ্টিত এমপি আবু জাহির সিঙ্গাপুরে গেছেন নবীগঞ্জে হাওরে অভিযান চেক ডিজঅনার মামলায় কাউন্সিলর পান্না গ্রেপ্তার

নবীগঞ্জে নাকানি চুবানি খেয়েছেন আওয়ামীলীগের ৫ নেতা

  • আপডেট টাইম বৃহস্পতিবার, ২৩ মে, ২০২৪
  • ১৯ বা পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নবীগঞ্জে উপজেলা পরিষদ নিবাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের জেলা ও উপজেলার পর্যায়ের প্রভাবশালী ৫ জন নেতা নাকানি চুবানি খেয়েছেন। তারা ধরাশায়ী হয়েছেন বিএনপির বহিস্কৃত নেতা মুজিবুর রহমান চৌধুরী শেফুর কাছে। অতীতে আওয়ামী লীগের এমন ভরাডুবি আর কখনও হয়নি। এ নিয়ে উপজেলা ব্যাপী চলছে নানা চুলছেড়া বিশ্লেষন। এমন ভরাডুবির পেছনে কারণ হিসেবে কেউ মনে করছেন দলীয় কোন্দল, আবার কেউ কেউ মনে করছেন আঞ্চলিকতার কারণ এবং দলীয় ভোট ভাগাভাগির কারণে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা পরাজিত হয়েছেন। আর আওয়ামী লীগ শিবিরের বাইরে বিএনপির বহিস্কৃত সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মুজিবুর রহমান চৌধুরী শেফুই ছিলেন একমাত্র প্রার্থী। তাই তার ভোটে ভাগের প্রভাব পড়েনি। ফলে অনেকটা সহজেই বিজয় পেয়ে যান তিনি। আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতারা মনে করেন যদি তাদের দলের একক প্রার্থী হতেন তাহলে বিএনপি প্রার্থী তাদের সাথে পাত্তাই পেতেন না। এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. গিয়াস উদ্দিন আহমদ বলেন, নবীগঞ্জে আমাদের একাধিক প্রার্থী থাকার কারণেই মূলত আমাদের বিজয় হয়নি। কারণ আমাদের ভোট কয়েক ভাগে ভাগ হয়েছে। তবে একক বা দুই জন প্রার্থীও যদি নির্বাচনে অংশ নিতেন তাহলে আমাদের বিজয় শতভাগ নিশ্চিত ছিল। সেটি প্রমান হয়েছে ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন। এখানে আমাদের দলের প্রার্থী সংখ্যা কম ছিল তাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী বিজয়ী হয়েছেন। ফলাফল বিশ্লেষনে দেখা যায়, নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচনে বিজয়ী বিএনপির মুজিবুর রহমান চৌধুরী শেফু চিংড়ি মাছ প্রতীকে ২৫ হাজার ১৫৯ ভোট পেয়েছেন। তার সাথে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছেন বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম। তিনি ঘোড়া প্রতীকে পেয়েছেন ২১ হাজার ৭৫১ ভোট, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সুলতান মাহমুদ মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ২০ হাজার ৫৬৩ ভোট, জেলা আওয়ামী লীগের অপর সাংগঠনিক সম্পাদক নুর উদ্দিন চৌধুরী বুলবুল দোয়াত কলম প্রতীকে পেয়েছেন ১৭ হাজার ৯৪২ ভোট, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান ইমদাদুর রহমান মুকুল হেলিকপ্টার প্রতীকে পেয়েছেন ১৭ হাজার ৪৭ ভোট ও জেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বোরহান উদ্দিন চৌধুরী আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ৩ হাজার ৩৭৬ ভোট।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Design and Development BY ThemesBazar.Com