শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:০২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
চুনারুঘাটে দুই সহোদরসহ ৩ জন গ্রেফতার ॥ ২০ কেজি গাঁজা উদ্ধার শায়েস্তাগঞ্জে চেয়ারম্যান পদে স্বামী-স্ত্রীর মনোনয়নপত্র দাখিল আজ শায়েস্তাগঞ্জ থানা উদ্বোধন করবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের আউশকান্দি এলাকা থেকে মহিলার লাশ উদ্ধার আন্দোলনের মুখে শেখ হাসিনা পালানোর পথ খুঁজে পাবেনা-শেখ সুজাত মিয়া সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত চুনারুঘাটের সোহাগের মরদেহ ২৮ দিন পর দেশে ॥ দাফন সম্পন্ন বানিয়াচঙ্গে পুলিশের অভিযানে গাঁজাসহ এক ব্যাক্তি আটক শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ের জংশন গাড়ির স্ট্যান্ডে পরিণত আজমিরীগঞ্জের কৃতি সন্তান আনিসুল ইসলাম জুয়েল কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মনোনীত জুমার খুৎবায় মাওলানা গোলাম মোস্তফা নবীনগরী ॥ রাত জেগে খেলা দেখে উল্লাস করে ঘুমন্ত মানুষকে ডিস্টার্ব করছে তাদের জন্য দোযকের বার্তা রয়েছে

নবীগঞ্জের কিশোরীকে কুলাউড়ায় ধর্ষণের পর হত্যা ॥ অভিযুক্ত সোরমান ও কাজল আটক

  • আপডেট টাইম রবিবার, ২ অক্টোবর, ২০২২
  • ২৯ বা পড়া হয়েছে

কিবরিয়া চৌধুরী, নবীগঞ্জ থেকে ॥ নবীগঞ্জের কিশোরী পপি সরকার (১২) নামে এক কিশোরীকে মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়ায় ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় সোরমান মিয়া (২৪) নামের এক আইসক্রীম বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে (২৭ সেপ্টেম্বর) মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামের একটি বাড়ির পাশ থেকে পপির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত পপির বাবা দিগেন্দ্র সরকার ও মা আশুলতার দাবি ১৫ দিন আগে তাদের মেয়েকে ধর্ষণ করে স্থানীয় বাসিন্দা সোরমান মিয়া। পরে এ ঘটনা ধামাচাপা দিতে ফের ধর্ষণ করে পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যা করা হয়েছে।
নিহত পপি সরকার নবীগঞ্জ উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের গুমগুমিয়া গ্রামের দীগন্দ্র সরকারের বড় মেয়ে। দীগেন্দ্র চার মাস ধরে মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার সুলতানপুর গ্রামের স্থানীয় বাসিন্দা ও সাবেক শিক্ষক কামাল হোসেন চৌধুরীর বাড়িতে পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকেন। এ বিষয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা হলে, অভিযুক্ত সোরমান আলী ও কাজলকে আটক করে পুলিশ।
পুলিশ ও কিশোরীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) রাত ১২টার দিকে পপি তার মায়ের সাথে ঘুমাতে যায়। রাত সাড়ে ৩টার দিকে মা আশুলতা ঘুম থেকে ওঠে দেখেন তার মেয়ে ঘরে নেই। এ সময় আশুলতা ও দিগেন্দ্র ঘরের জানালা খোলা। অনেক খোঁজাখুঁজি করার পর সকাল ৯টার দিকে তাদের ঘরের পেছনে একটু অদূরে গলায় ওড়না পেঁচানো মাটিতে উপুড় অবস্থায় পপির লাশ দেখতে পান। এ সময় পপির নাক ও মুখ দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল। পরে খবর পেয়ে দুপুরে কুলাউড়া থানার উপ পরিদর্শক মোঃ হারুনুর রশীদ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে নিয়ে যান।
নিহত পপির বাবা দীগেন্দ্র সরকার গত শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে গণমাধ্যমকে জানান, প্রায় ১৫ দিন আগে তার মেয়ে পপি সরকারকে আইসক্রিমের লোভ দেখিয়ে ধর্ষণ করেন ওই এলাকার বাসিন্দা আইসক্রিম বিক্রেতা সোরমান মিয়া। সোরমান স্থানীয় ইউপি সদস্য কিবরিয়া হোসেন খোকনের আইসক্রীম ফ্যাক্টরিতে চাকরি করেন।
তিনি বলেন, আমি বিষয়টি থানায় অভিযোগ করতে চাইলে পৃথিমপাশা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুল মতিন ও ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য কিবরিয়া হোসেন খোকন বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করেন। বৈঠকে সোরমানের পক্ষ থেকে ১০ হাজার টাকা আমাকে দেয়ার সিদ্বান্ত নেয়া হয় এবং বিষয়টি নিষ্পত্তি হয়েছে এই মর্মে সাদা কাগজে আমাকে টিপসই দেয়ার জন্য বলেন। আমি বিষয়টি মানিনি। থানায় অভিযোগ করার চেষ্টা করি। তখন আমাকে এবং আমার স্ত্রীকে ভয়ভীতি দেখান সোরমান ও কাজল। এর জের ধরে সোমবার রাতে সোরমান ও কাজল আমার মেয়েকে ঘর থেকে বের করে নিয়ে যায়। পরে মেয়েকে ধর্ষণ করে হত্যা করে ফেলে রেখে যায়।
বিষয়টি জানতে পৃথিমপাশা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুল মতিনের মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি বৈঠকের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, ধর্ষণের ঘটনায় কনো শালিসি বৈঠক করা যায় না। আমি কোনো বৈঠকে ছিলাম না। হয়তো আইসক্রীম ফ্যাক্টরির মালিক যিনি তিনি বৈঠক করতে পারেন। মেয়েটির মৃত্যুর খবর সকালে পেয়ে থানা পুলিশকে বিষয়টি জানালে তারা এসে লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল তৈরি করে।
এদিকে তবে ১নং ওয়ার্ডের সদস্য কিবরিয়া হোসেন খোকন বলেন, ধর্ষণের ঘটনা সত্য নয়। দীগেন্দ্রর মেয়ে পপি মানসিক রোগী। সোরমান ওই এলাকায় আইসক্রীম বিক্রি করতে গেলে পপি তার কাছে আইসক্রীম চায়। তখন সোরমান তাকে আইসক্রমি দেয়নি। এজন্য পপির মা ও বাবা মিলে সোরমানকে মারধর করেন। বিষয়টি নিয়ে বাড়ির মালিক কামাল চৌধুরীর দোকানে স্থানীয় মেম্বার আব্দুল মতিনসহ আমরা পপির মা-বাবাকে নিয়ে বৈঠক করি।
এব্যাপারে কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আব্দুছ ছালেক বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এটি হত্যাকাণ্ড। থানায় পপির বাবা- সোরমান ও কাজলকে অভিযুক্ত করে মামলা করেছেন। অভিযুক্ত সুরমান আলী ও কাজলকে আটক করে পুলিশ। ধর্ষণের ঘটনায় শালিসি বৈঠকের বিষয়ে জানতে চাইলে ওসি বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে দেখবো কী ঘটেছিল ওই বৈঠকে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসার পর বিষয়টি পুরোপুরিভাবে জানা যাবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Design and Development BY ThemesBazar.Com