বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ০৮:৪৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
লাখাইয়ে যানজট নিরসনে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা আজমিরীগঞ্জে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর আব্দুর রাজ্জাকের দাফন সম্পন্ন হবিগঞ্জে নতুন আরো ১৬ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবিগঞ্জে বকেয়া ভাতা দেয়ার দাবীতে ডিপিএড প্রশিক্ষণার্থীদের মানববন্ধন হবিগঞ্জে হিটস্ট্রোকে এক দিনে তিন ব্যক্তির মৃত্যু মাধবপুরে দু’গ্রামবাসীর সংঘর্ষ ॥ মহিলাসহ আহত ২০ নরসিংদীতে মলম পার্টির কবলে পড়ে নবীগঞ্জের যুবকের সর্বস্ব খোয়া বেসরকারী হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার করোনা প্রতিরোধে অগ্রনী ভূমিকা পালন করবে-মোতাচ্ছিরুল ইসলাম নবীগঞ্জের দাউদপুরে সমিতির প্রয়াত ৩ সদস্যের স্মরণে শোকসভা, দোয়া মাহফিল ও বার্ষিক সাধারণ সভা হবিগঞ্জে ব্র্যাকের ইনসেপশন মিটিং ॥ নিজের পরিবার থেকে জেন্ডার জাস্টিস চর্চা শুরুর আহবান

প্রসঙ্গ নিম্বর টাওয়ার ॥ ৫০ লাখ টাকা ঘুষ দাবি! নবীগঞ্জের ভূমি উপসহকারী কর্মকর্তা আবিদ আলী বরখাস্ত

  • আপডেট টাইম শনিবার, ৮ মে, ২০২১
  • ৩৫ বা পড়া হয়েছে

এটিএম সালাম, নবীগঞ্জ থেকে ॥ নবীগঞ্জে সরকারি জমিতে নির্মিত একটি ভবন উচ্ছেদ থেকে রক্ষার কথা বলে ৫০ লাখ টাকা ঘুষ দাবীর অভিযোগে নবীগঞ্জ সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের উপ-সহকারী কর্মকর্তা মো. আবিদ আলীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। আলোচিত ঘটনার অভিযোগের সত্যতা তদন্তে প্রমানিত হলে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসন। এ সংক্রান্ত একটি চিঠি গত বৃহস্পতিবার (৬ মে) সংশ্লিষ্ট দপ্তরে এসে পৌঁছেছে বলে সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে।
উপজেলা প্রশাসন ও অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, নবীগঞ্জ উপজেলার শিবপাশা এলাকার যুক্তরাজ্য প্রবাসী ফরছু মিয়া চৌধুরী নবীগঞ্জ শহরের প্রাণকেন্দ্রে নিম্বর টাওয়ার নামের একটি বহুতল ভবন নির্মাণ করেন। সম্প্রতি নবীগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের উপ-সহকারী কর্মকর্তা মো. আবিদ আলী এ ভবনের তত্ত্বাবধায়ক মো. জয় চৌধুরী ও মো. আল আমিন চৌধুরীর সাথে যোগাযোগ করেন।
তাঁদেরকে আবিদ আলী বলেন, ভবনের ভেতরে সরকারের জমি রয়েছে। উক্ত সরকারি জমি থেকে ভবন সরাতে হবে। এক পর্যায়ে তিনি মালিককে প্রস্তাব দেন তাঁকে ৫০ লাখ টাকা দিলে তাঁদের আর এ মার্কেট ভাঙ্গা বা সরাতে হবে না। বিষয়টি রফাদফা করার জন্য সম্প্রতি উভয় পক্ষ নবীগঞ্জ শহরের একটি আধুনিক রেস্তোরাঁয় বসেন। এ সময় ভবনের মালিক পক্ষ উপ-সহকারী কর্মকর্তা মো. আবিদ আলীর সব কথাবার্তা মুঠোফোনে রেকর্ড করেন।
এক পর্যায়ে আবিদ আলী ভয়ভীতি দেখালে ক্ষুব্ধ হয়ে ভবনের তত্ত্বাবধায়ক মো. আল আমিন চৌধুরী গত ৬ এপ্রিল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেন। পরে বিষয়টি ইউএনও শেখ মহি উদ্দিন নিজে তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা খুঁজে পান। তিনি এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন গত ১২ এপ্রিল হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসকের কাছে প্রেরণ করেন। জেলা প্রশাসক ইশরাত জাহান গত ২২ এপ্রিল উপ-সহকারী কর্মকর্তা মো. আবিদ আলীকে তাঁর পদ থেকে সাময়িক বরখাস্তের আদেশে স্বাক্ষর করেন। নবীগঞ্জ সদর উপজেলা ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সহকারী কর্মকর্তা বিষ্ণু ভট্টাচার্য্য জানান, ওই ভূমি কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্তের আদেশ বৃহস্পতিবার (৬ মে) তাঁর কার্যালয়ে এসে পৌঁছেছে।
এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ওই ভূমি কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্তের আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। অপর একটি সুত্রে জানা গেছে, উপ-সহকারী কর্মকর্তা মোঃ আবিদ আলী এর আগেও একবার সাময়িক বরখাস্ত হয়েছিলেন। কিন্তু পুণঃবহাল হয়ে নবীগঞ্জ সদর ইউনিয়ন ভুমি অফিসে যোগদান করার পর তার বিরুদ্ধে ঘুষ, দূর্নীতি ও অনিয়মের ব্যাপক অভিযোগ উঠে। বিভিন্ন স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় সংবাদও প্রকাশ হয়। এরপরও আবিদ আলী বীরদর্পে তার অবৈধ কার্যকলাপ চালিয়ে যায়। তিনি অতি সম্প্রতি কমলাপুর মৌজাস্থ সরকারী ভূমি থেকে মাটি উত্তোলনের মৌখিক অনুমতি দিয়ে জনৈক ব্যক্তিদ্বয়ের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা গ্রহন করেন। ওই লোকজন সরকারী ওই জায়গায় পুকুর তৈরীসহ ঘরবাড়ি তৈরী করেছে। আবার একই জায়গায় (খাল রকম ভুমি) জনৈক ব্যক্তি ধান রোপন করলে আবিদ আলীর দাবীকৃত ৩০ হাজার টাকা না দেয়ায় সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বুঝিয়ে ওই জমিতে ফলানো ধান জব্দ করেন এবং তার পছন্দের জনৈক মেম্বারের তত্ত্বাবধানে ওই জমি জিম্মায় দেন। এভাবে অসংখ্য ঘুষ, দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে আবিদ আলীর বিরুদ্ধে।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Design and Development BY ThemesBazar.Com