শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৮:২০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
প্রসঙ্গ নিম্বর টাওয়ার ॥ ৫০ লাখ টাকা ঘুষ দাবি! নবীগঞ্জের ভূমি উপসহকারী কর্মকর্তা আবিদ আলী বরখাস্ত হবিগঞ্জে জমে উঠেছে ঈদ বাজার ॥ স্বাস্থ্যবিধি পালনে প্রশাসন কঠোর বাংলাদেশি-আমেরিকান দুই ভাই তীর্থ ও তন্ময়ের সাফল্য খোশ আমদেদ মাহে রমজান ॥ আজ ২৫ রমজান লোকড়ায় অর্থ সহায়তা বিতরণ করলেন এমপি আবু জাহির বানিয়াচংয়ের ঐতিহ্যবাহী ঠাকুরানী দিঘী রক্ষায় এলাকাবাসীর অভিযোগ ॥ ড্রেজার মেশিন জব্দ খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় জেলা যুবদলের দোয়া ও ইফতার মাহফিল বানিয়াচংয়ে অভ্যন্তরীণ বোরে ধান সংগ্রহের উদ্বোধন রিচি গ্রামে ট্রাক্টরের চাপায় স্কুল ছাত্র নিহত শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রীজে বাস উল্টে ১৫ জন যাত্রী আহত
সবকিছু লিখে নিয়ে বাসা থেকে বের করে দেয় স্ত্রী-সন্তান ॥ স্ত্রী-সন্তানের সাথে সম্পর্কের বিচ্ছেদ ঘটিয়েছেন অবসরপ্রাপ্ত চাকুরীজীবী

সবকিছু লিখে নিয়ে বাসা থেকে বের করে দেয় স্ত্রী-সন্তান ॥ স্ত্রী-সন্তানের সাথে সম্পর্কের বিচ্ছেদ ঘটিয়েছেন অবসরপ্রাপ্ত চাকুরীজীবী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সুশীল কুমার মোদক নামে এক অবসরপ্রাপ্ত চাকুরীজীবী তার স্ত্রী ও ৩ ছেলে মেয়ের সাথে সম্পর্কের বিচ্ছেদ ঘটিয়েছেন। গত ১১ এপ্রিল নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে এফিডেভিট করে এ সম্পর্ক ছিন্ন করেন। সম্পর্ক বিচ্ছেদকারীগণ হলেন হবিগঞ্জ শহরের ৩নং ওয়ার্ডের নোয়াহাটি এলাকার অবসরপ্রাপ্ত চাকুরীজীবী ৬১ বছর বয়স্ক সুশীল কুমার মোদক এর স্ত্রী রবিতা মোদক, মেয়ে সুপ্রা মোদক, রুপু মোদক ও ছেলে সৌরব মোদক।


এফিডেভিটে তিনি বলেন, তাঁর স্ত্রী রবিতা মোদকের জায়গায় তার নির্মিত বিল্ডিং ও সারা জীবনের আয় উপার্জন সুকৌশলে তাদের নামে লিখে নেয়। সব কিছু লিখে নেয়ার পর তাঁর সাথে স্ত্রী-সন্তানরা অশোভন আচরণ শুরু করে। এক পর্যায়ে তাকে বাসা থেকে বের করে দেয়। তিনি বলেন, স্ত্রী সন্তানকে সুপথে ফিরিয়ে আনতে সামাজিকভাবে বহু চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছি। স্ত্রী-সন্তানকে সরল বিশ্বাস করে প্রতারিত হয়ে আজ বৃদ্ধ বয়সে নিঃস্ব হয়ে ঘরের বাহিরে অতি কষ্টে জীবন যাপন করছেন সুশীল মোদক। তিনি বলেন, আমার ভয় হয়, তাদের সাথে এক ছাদের নীচে বসবাস করলে আমাকে মেরে ফেলতে পারে। এ অবস্থায় স্ত্রী-সন্তানের সাথে সম্পর্কের বিচ্ছেদ ঘটিয়ে এফিডেভিটে তিনি আরো বলেন, আমি আমার মতো করে পৃথক ভাবে বসবাস করবো, তাদের কোন ধরনের লেনদেন আমার উপর বর্তাইবে না। এ অবস্থায় এখন থেকে আমার (সুশীল মোদক) মৃত্যুর পর আমার স্ত্রী-সন্তানদের শৌচ পালন করতে হবে না এবং তারাও কেউ মারা গেলে আমি বা আমার বংশের লোকজন তাদের শৌচ পালন করবো না।
এফিডেভিটে তিনি উল্লেখ করেন, তিনি কোন প্রকার লোভ লালসা বা প্রলোভন বা কারো প্ররোচনায় প্রভাবিত হয়ে নয়, সম্পূর্ণ স্বেচ্ছায় তিনি তার স্ত্রী-সন্তানদের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করেন এবং পৃথক বসবাস করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com