মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ১২:২৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
প্রেমিকার সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করায় তেঘরিয়ার খোকনকে গলা টিপে হত্যা ॥ প্রেমিকা ও তার বন্ধু ও বান্ধবী গ্রেফতার হবিগঞ্জ জেলাকে মডেল হিসেবে গড়ে তুলতে চান জেলা প্রশাসক ইশরাত জাহান খোশ আমদেদ মাহে রমজান সার-বীজ বিতরণ অনুষ্ঠানে এমপি আবু জাহির ॥ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ না করে রাস্তায় বের হওয়া মানেই জীবনের ঝুঁকি ব্রি ৮৮ জাতের নতুন ধান আগাম কাটতে পেরে বেজায় খুশি কৃষক হবিগঞ্জে স্বাস্থ্য-বিধি লঙ্ঘনের করায় ৪০ জনকে জরিমানা ঠিকাদারের বিরুদ্ধে সুতাং বাজারের পুরাতন ব্রীজের রাড বিক্রির অভিযোগ ॥ ট্রাক বোঝাই রড আটক বানিয়াচংয়ে ব্র্যাক সিড এর ধান কর্তন সহায়তা কর্মসূচি ল্যাবএইড হাসপাতালে ৮ কেজি ওজনের টিউমার অপসারণ সংবাদ সম্মেলন দাবী ॥ গ্রাম্য মাতব্বরদের ইন্ধনে বানিয়াচংয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় নারী আহত
মাধবপুরে ছোট ভাইয়ের পিটুনীতে বড় ভাই খুন

মাধবপুরে ছোট ভাইয়ের পিটুনীতে বড় ভাই খুন

আবুল হোসেন সবুজ, মাধবপুর থেকে ॥ মাধবপুরে পৈত্রিক সম্পদের ভাগভাটোয়ারা নিয়ে বিরোধের জের ধরে ছোট ভাইয়ের লাঠির আঘাতে বড় ভাই খুন হয়েছেন। গতকাল রবিবার বেলা ৩টার দিকে উপজেলার চৌমুহনী ইউনিয়নের জয়পুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে। নিহত বড় ভাইয়ের নাম আবুল ফজল আবদাল (৫৫)। তিনি চৌমুহনী ইউনিয়নের জয়পুর গ্রামের মৃত হাজি ফজলুল হকের ছেলে। হত্যাকারী ছোট ভাইয়ের নাম কামাল মিয়া (৪০)।
স্থানীয়রা জানান, উপজেলার চৌমুহনী ইউনিয়নের জয়পুর গ্রামের হাজী ফজলুল হক মারা যাবার পর তার সন্তানরা পৈত্রিক সম্পত্তি ভাগভাটোয়ারা নিয়ে বিরোধে জড়িয়ে পড়ে। গত কয়েকদিন পূর্বে স্থানীয় চেয়ারম্যান বিষয়টি শালিসে মিমাংসা করে দেন। কিন্তু তা ছোট ভাই কামাল মিয়া (৪০) এর মনপুত হয়নি। এনিয়ে গতকাল রবিবার সকালে কামাল মিয়া ও আবুল ফজল আবদাল এর মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে আবদাল মোটর সাইকেল নিয়ে চৌমুহনী বাজারে চলে যান। বিকেল ৩ টার দিকে আবদাল চৌমুহনী বাজার থেকে মোটর সাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিলেন। তিনি বাড়ির কাছাকাছি পৌছুলে গতিরোধ করে ছোট ভাই কামাল মিয়া। এ সময় দেশীয় অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এক পর্যায়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান আব্দাল।
খবর পেয়ে কাশিমনগর পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মোরশেদ আলম ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করেন। পুলিশ পরিদর্শক মোরশেদ আলম জানান, আবুল ফজল আব্দাল বাড়িতে প্রবেশের সময় ছোট ভাই কামাল প্রথমে ইট দিয়ে ঢিল ছুরে আব্দালকে মোটরসাইকেল থেকে ফেলে দেয়। পরে তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত খুনি কামাল মিয়া পলাতক রয়েছে।
আবদাল মিয়ার স্ত্রী হারুনা বেগম হাসপাতালে কান্না জড়িত কন্ঠে জানান, কামাল মিয়ার সাথে জায়গা জমি নিয়ে বিরোধ ছিল। তিনি বলেন, আমাদের ২ মেয়ে। এক মেয়ে প্রতিবন্ধী। তাই মেয়েদের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে আমার স্বামী মেয়েদের নামে সম্পত্তি লিখে দেন। তাই কামাল মিয়া ক্ষিপ্ত হয়। সে আমাদের সম্পত্তি নিয়ে যেতে চেয়েছিল।
আবদাল মিয়ার ভাই জামাল মিয়া জানান, জায়গা সম্পত্তি নিয়ে কিছুদিন আগেও সালিশ হয়েছে। সালিশে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আপন মিয়া উপস্থিত থেকে সমাধান করে দেন।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আপন মিয়া জানান, তাদের ভাইয়ে ভাইয়ে জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধ ছিল। তাদের সীমানা ঠিক করে দিয়ে ভাইয়ে ভাইয়ে মিলিয়ে দিয়েছিলাম। এখন কি কারনে এ ঘটনা হলো জানিনা।
মাধবপুর থানার ওসি (তদন্ত) গোলাম দস্তগীর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করা হবে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com