বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ০৯:০৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
সাতছড়িতে বিজিবির অভিযান রকেট লাঞ্চারের ১৮টি গোলা উদ্ধার হবিগঞ্জে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ম্যারাথন এর উদ্বোধন সাতছড়ি উদ্যানে পূর্বের ৬ অভিযানে যা যা মিলেছে উদ্ধার হওয়া রকেট লাঞ্চারের গোলাগুলো খুব বিপজ্জনক আলোচনায় কাহালু ও চট্টগ্রামের ১০ ট্রাক অস্ত্র নোয়া হাটি সংবর্ধনা সভায় মেয়র সেলিম ॥ আমি হবিগঞ্জ পৌরবাসীর ভালবাসা কুড়িয়ে নিতে চাই হবিগঞ্জ পৌরসভার নব-নির্বাচিত ২ কাউন্সিলরকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী নবীগঞ্জে মাদকাসক্ত স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা ॥ হুমকির মুখে নিরিহ পরিবার পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়রের সঙ্গে ব্যাংকারদের শুভেচ্ছা বিনিময় নবীগঞ্জে শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ প্রতিযোগীতায় ॥ ২৩ বিজয়ী
নবীগঞ্জে ঝুকিপূর্ণ ২৮ কেন্দ্র ॥ ত্রিমুখী লড়াই

নবীগঞ্জে ঝুকিপূর্ণ ২৮ কেন্দ্র ॥ ত্রিমুখী লড়াই

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নবীগঞ্জে আজ প্রথম ধাপে অনুষ্ঠিতব উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ২৮টি ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র নিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আলহাজ্ব ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম। গতকাল হবিগঞ্জ জেলা রিটার্র্নিং অফিসার বরাবর তিনি ওই অভিযোগ দায়ের করেন। কেন্দ্র গুলো হচ্ছে, সোনাপুর জগন্নাথপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, সোনাপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়, হলিমপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়, ইনাতগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়, মোস্তফাপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাধাপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাজু সুনাইত্যা প্রাথমিক বিদ্যালয়, বনগাঁও প্রাথমিক বিদ্যালয়, সঈদুপর প্রাথমিক বিদ্যালয়, মিনাজপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভুবিরবাক-১ ও ২নং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাধবপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়, করগাঁও প্রাথমিক বিদ্যালয়, মুক্তাহার প্রাথমিক বিদ্যালয়, ছোট শাকোয়া ও বড় শাকোয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়, সুজাপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়, রিফাতপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাঁশডর প্রাথমিক বিদ্যালয়, খরিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়, শংকরপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়, পানিউমদা প্রাথমিক বিদ্যালয়, রোকনপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়, গন্জা প্রাথমিক বিদ্যালয়, হীরা মিয়া গার্লস উচ্চ বিদ্যালয়, রাজাবাদ কমিউনিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শিবপাশা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। উল্লেখিত ২৮টি ভোট কেন্দ্র দখল ও ভোটারদের ভয়ভীতি প্রদর্শন ছাড়াও হামলার আশংকা করেনি তিনি। ১১৫টি ভোট কেন্দ্রে ত্রিমুখী লড়াইয়ের আশাবাদ ব্যক্ত করেন বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার লোকজন। রাজপথের প্রধান বিরোধীদল বিএনপি বিহীন প্রথমধাপে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট আলমগীর চৌধুরীর নৌকা প্রতীকের বিপরীতে বিদ্রোহী প্রার্থী উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক (বহিস্কৃত) আলহাজ্ব ফজলুল হক চৌধুরী সেলিমের (ঘোড়া) প্রতীক নিয়ে তুমুল প্রতিযোগিতার আভাস পাওয়া গেছে। এনিয়ে বিপাকে রয়েছে ক্ষমতাসীনদল। ক্ষমতাসীন দল ও সহযোগী সংগঠনের বড় একটি অংশ বিদ্রোহী প্রার্থী আলহাজ্ব ফজলুল হক চৌধুরী সেলিমের (ঘোড়ার) সমর্থনে নিরব প্রচারণায় অংশ নিচ্ছে। বিএনপি বিহীন নির্বাচন অনেকটাই উন্মুক্ত হিসেবে জমে উঠেছে ভোটের লড়াই। এছাড়াও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিগত তিনবারের জনপ্রিয় উপজেলা চেয়ারম্যান প্রয়াত দেওয়ান গোলাম ছরওয়ার হাদী গাজীর সহধর্মীনি বেগম গাজী খালেদা ছরওয়ারের (দোয়াত-কলম) নিয়ে চমক দেখাতে পারেন। প্রশাসনের তরফ থেকে বিদ্রোহী আর স্বতন্ত্র প্রার্থী নিয়ে প্রতিন্দ্বন্দ্বিতা পূর্ণ নির্বাচনের আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়েছে। শতভাগ শান্তিপূর্ণ নির্বাচন আয়োজনের নির্দেশনার নিমিত্তে সার্বিক প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। ঝুঁকিপূর্ন কেন্দ্র নিয়ে প্রশাসনের তরফ থেকে বিশেষ নির্দেশনা বাস্তবায়নের আশ্বাস দেয়া হয়েছে। নির্বাচন কমিশন ও দায়িত্বশীল একাধিক সূত্র জানায়, সদ্য বিগত একাদশ জাতীয় নির্বাচনে ভোটাধিকার নিয়ে ক্ষোভ রয়েছে। উপজেলা নির্বাচন বয়কট করছে বিএনপির নেতৃত্বাধীন বিশ দলীয় জোট, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট এবং বাম গণতান্ত্রিক জোট। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তুমুল প্রতিযোগী দুই প্রার্থী আলহাজ্ব ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম (ঘোড়া) আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী এডভোকেট আলমগীর চৌধুরী (নৌকার) সাথে পাল্লা দিয়ে নির্বাচনী প্রতীক (দোয়াত-কলম) নিয়ে লড়ছেন একমাত্র মহিলা স্বতন্ত্র প্রার্থী বেগম গাজী খালেদা ছরওয়ার। এছাড়াও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হাই (কাপ-প্লেইট), জাপা সমর্থিত প্রার্থী হায়দর আলী খাঁন (লাঙ্গল) ইসলামী আন্দোলন প্রার্থী মাওলানা ছালেহ আহমদ (মিনার)। মাওলানা মোস্তাক আহমদ ফুরকানী (মিনার) ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক এডভাকেট গতি গোবিন্দু দাশ (তালা), যুগ্ম সম্পাদক কাজী ওবায়দুল কাদের হেলাল (টিউব ওয়েল), জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী মুরাদ আহমদ (লাঙ্গল) আওয়ামীলীগ নেতা আবু ইউছুফ (চশমা) স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহ আবুল খয়ের (উড়ো জাহাজ)। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান প্রভাষক নাজমা বেগম (হাঁস), উপজেলা আওয়ামীলীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক শেখ ছইফা রহমান কাকলী (ফুটবল) প্রতীক নিয়ে লড়ছেন। ১৩টি ইউনিয়ন এবং পৌরসভা নিয়ে গঠিত উপজেলায় মোট ভোটার রয়েছেন ২ লাখ ৩৬ হাজার ২ শত ৪৯ জন। ওই উপজেলায় ১১৫ টি ভোট কেন্দ্র রয়েছে। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ১৫ হাজার ৮ শত ৬৭ এবং মহিলা ভোটার রয়েছেন ১ লাখ ২০ হাজার ৩ শত ৮২ জন। ১১৬ টি ভোট কেন্দ্রে মোট ৪ শত ৮০ টি বুথ রয়েছে। শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের নিমিত্তে কেন্দ্র ভিত্তিক আইনশৃংখলা বাহিনী ছাড়াও ভোটের সরঞ্জমাদি পৌছে দেয়া হয়েছে। নির্বিঘœ ভোটাধিকার নিয়ে আশাবাদ ব্যাক্ত করেন বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার লোকজন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com