রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৪:৫০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
শহরে এক রাতে তিন দোকানে চুরি ॥ টায়ার জ্ব¦ালিয়ে অবরোধ শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার ৫০ শয্যার হাসপাতালের সেবা টিনের ঘরে এক চিকিৎসক দিয়ে চলে ! আইন-শৃংখলা কমিটির সভায় এমপি আবু জাহির ॥ ১২ কোটি টাকায় সংস্কার হচ্ছে হবিগঞ্জ শহরের প্রধান সড়ক হবিগঞ্জ শহরে মাস্ক না পড়ায় ১৪ ব্যক্তিকে জরিমানা প্রদান বাহুবলে ভাবীকে ধর্ষণের চেষ্টা ॥ আত্মহত্যা প্ররোচনা মামলায় শ্বশুর গ্রেপ্তার হবিগঞ্জে নতুন করে ৩ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত এম এ গফুর চৌধুরী কল্যাণ ট্রাস্ট এর সৌজন্যে শীতবস্ত্র বিতরণ নবীগঞ্জ পৌরসভার ২টি উন্নয়ন কাজ উদ্বোধন করলেন মেয়র ছাবির নবীগঞ্জে কৃষকদের মাঝে বিনা মূল্যে বীজ ও সার বিতরণ হবিগঞ্জের পইল গ্রামে রাস্তা সংস্কার কাজে অনিয়মের অভিযোগে মানববন্ধন
নবীগঞ্জে খুনী তালেবের বিশ্বাস ঘাতকতা মেনে নিচ্ছেনা কেউ

নবীগঞ্জে খুনী তালেবের বিশ্বাস ঘাতকতা মেনে নিচ্ছেনা কেউ

নবীগঞ্জ সংবাদদাতা ॥ নবীগঞ্জে বউ-শ্বাশুড়ি খুনের ঘটনায় এলাকায় শোকাবহ পরিবেশ বিরাজ করছে। শোকে স্তব্ধ হয়ে পড়েছেন এলাকার লোকজন। খুনী তালেবের বিশ্বাসঘাতকতার বিষয়টি এলাকাবাসী কোনভাবেই মেনে নিতে পারছেন না। তালেব ও শুভর কঠোর শাস্তি দাবি করছেন তারা। তাদের কঠোর শাস্তি হলে ভবিষ্যতে এভাবে কেউ বিশ্বাসভঙ্গ করার সাহস পাবেনা বলে মনে করেন তারা।
এদিকে যে বাড়িটিতে বউ-শ্বাশ্বড়ি বসবাস করতেন সেই বাড়িটি নিস্তব্ধ হয়ে পড়েছে। বিরাট লম্বা দালান ঘর। তাতে ৬টি রুম ও একটি বিশাল বারান্দা। বাড়ির দক্ষিণ পাশে বেশ গাছপালায় ভরপুর। বাড়ির উত্তর দিকে বারান্দা থেকে মনোরম পরিবেশ সবুজ-শ্যামল ঘেরা পাকা ধানের ফসল দেখা যায়। এই বিশাল বাড়িতেই প্রায় দেড় বছর ধরে বসবাস করেছেন রাজা মিয়ার স্ত্রী ও লন্ডন প্রবাসী আখলাক চৌধুরীর মা মালা বেগম (৫২) ও আখলাক চৌধুরীর স্ত্রী রুমি আক্তার (২২)। এত বড় বাড়িতে শুধু বউ-শ্বাশুড়ি থাকার ফলে সবসময় নিরব পরিবেশ বজায় থাকতো। বাড়িতে দুটি কলাবছিবল গেইট দিয়ে সুরক্ষিত করে রাখা হয়েছিল। এর মধ্যে উত্তর পাশের গেইট সবসময় তালা দিয়ে বন্ধ করা থাকে। এবং অপর গেইটও তালা দিয়ে বন্ধ করে রাখা হতো। এত বড় বাড়িতে শুধু বউ-শ্বাশুড়ি একা থাকতেন বলে সবসময় ভয় কাজ করতো আর সেজন্যই পরিচিত কেউ ছাড়া গেইট খুলে দিতেন না মালা বেগম ও রুমি আক্তার। সুরক্ষিত অবস্থায় এত বড় বাড়িতে বলতে গেলে তারা একধরনের গৃহবন্দির মত জীবনযাপন করেছেন। কিন্তু এত কঠিন সুরক্ষাও তাদের রক্ষা করতে পারেনি।
এলাকাবাসীর মন্তব্য তালেব ওই পরিবারের একজন আস্থাভাজন ছিল। তালেবকে তারা বিশ্বাস করতেন। আর সেই বিশ্বাসই তাদের জীবনহাণীর কারণ হবে এমনটা হয়ত: তারা ভাবেননি।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com