মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ০৭:২১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
লবন নিয়ে গুজব ॥ মুদির দোকানে ক্রেতাদের ভীড় বাহুবল উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতির ২ মাসের কারাদন্ড জেলা আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভায় আহমদ হোসেন ॥ আমাদের যাতে রাজপথে যেতে না হয় সে জন্য মিলেমিলে কাজ করতে হবে কুলাঙ্গার পুত্রের কান্ড ! নবীগঞ্জে প্রতি কেজি পেয়াজ ৫৫-৬০ টাকার বেশি বিক্রি করলেই ১ লাখ টাকা জরিমানা-ইউএনও নবীগঞ্জে ৪ মাদকসেবী আটক নবীগঞ্জের তরুণীকে অপহরণ করে ধর্ষণের চেষ্টায় গ্রেপ্তার ২ জীবনমৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ট্রেন দুর্ঘটনায় আহত সোহেল ॥ চিকিৎসার ব্যয়ে দিশেহারা পরিবার বাহুবলে ৩শ বস্তা সরকারী চাল জব্দ ॥ ১ জন আটক মাদক স¤্র্রাট জুয়েল নিষিদ্ধ অফিসার চয়েজসহ গ্রেপ্তার
বিতর্কিত ব্যক্তি হবিগঞ্জ ফারিয়ার প্রধান নির্বাচন কমিশনার

বিতর্কিত ব্যক্তি হবিগঞ্জ ফারিয়ার প্রধান নির্বাচন কমিশনার

বিজ্ঞপ্তি ॥ গত শনিবার হবিগঞ্জ ফারিয়ার এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত সভায় সল্প সংখ্যক কিছু সদস্য এর উপস্থিতিতে বর্তমান কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে এবং হবিগঞ্জের বিভিন্ন পেশাজীবি, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের বহুল আলোচিত পদলোভী ও বিতর্কিত এক জনৈক ব্যাক্তিকে হবিগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী সংগঠন ফারিয়ার প্রধান নির্র্বাচন কমিশনার উল্লেখ করে আগামী ১৩ জানুয়ারী নির্বাচনের তফশিল ঘোষণা করে ১১ সদস্য বিশিষ্ট এক হাস্যকর নির্বাচন কমিশন গঠন করে। যা হবিগঞ্জ ফারিয়ার এক তৃতিয়াংশ সদস্য ওই বিতর্কিত প্রধান নির্বাচন কমিশনার এর অধীনে আগামী ১৩ জানুয়ারি নির্বাচনে ২০১৮ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে না এবং মানেন না। এবং প্রধান নির্বাচনকে সরিয়ে সর্বজন গৃহীত একজন প্রধান নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ দেয়ার দাবি জানান। পাশাপাশি ফারিয়ার গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ০২ নং অনুচ্ছেদে বলা আছে কোন বিতর্কিত ব্যক্তিকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার করা যাবে না। ০৩নং অনুচ্ছেদে উল্লেখ আছে যে, ফারিয়ার কার্যকরী কমিটির ০৫ সদস্য বিশিষ্ট উপদেষ্ঠা পরিষদ থাকবে। এবং ওই উপদেষ্ঠা পরিষদ, কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ হলে নির্বাচনের পরিবেশ করে উপদেষ্ঠা পরিষদ-ই নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব সিরিয়াল অনুযায়ী পালন করবে। এবং নির্বাচনের তফশীল ঘোষণা করবে। কিন্তু এখানে আমরা কী দেখলাম? যে ব্যক্তি শতভাগ অদক্ষ, অযোগ্য সেই বিতর্কিত ব্যক্তিকে কমিশনের প্রধান বানিয়ে ঐতিহ্যবাহী ফারিয়ার নির্বাচন সুষ্ট হবে না। এবং যার সাংগঠনিক দক্ষতার লেশ মাত্র নেই। আর যাই হোক ওই বিতর্কিত ব্যক্তির দ্বারা নির্বাচন পরিচালনা করা সম্ভব হবেনা। তার মূল কারন হচ্ছে: দুই পক্ষকে দিয়ে ঝগড়া বাধানো সমাধান করা নয়। আমরা মনে করি, ওই বিতর্কিত ব্যক্তির নুন্যতম পরিমানের সম্মান বোধ থাকলে এই প্রত্যেকের পদত্যাগ করা উচিত। পরিশেষে বলতে চাই এবং সবচেয়ে বড় অযোগ্যতা ও সাংগঠনিক অদক্ষ নির্বাচন কমিশন এক হাস্যকর ঘটনার জন্ম দিয়েছে। যেমন গত ০৯ তারিখে হবিগঞ্জ ফারিয়ার অবৈধ কমিটিকে বিলুপ্ত ঘোষণা করে এবং ওই বিলুপ্ত অবৈধ সাবেক সভাপতি সম্পাদককে অযোগ্য নির্বাচন কমিশনের অথর্ব দুই সদস্য নিয়োগ দিয়ে একটি হাস্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে। যা সংগঠনের নিয়মের মধ্যে পরে না। তাই পরিশেষে ফারিয়ার সকল সদস্যের একটাই জোর দাবি দূর্নীতিবাদ ও বিতর্কিত ব্যক্তিকে নিয়ে গঠন করা কমিশনের পদত্যাগ চাই। এদের হাত থেকে হবিগঞ্জ ফারিয়াকে বাচানোর আহ্বান জানাই। সদস্যবৃন্দ: হবিগঞ্জ ফারিয়া।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com