সোমবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৯, ০৮:২৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আগস্ট মাস আসলেই মনে দাগ কাটে-মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ পইলে ৭৭টি গরু কুরবানী বাড়িয়ে দিল ঈদের আনন্দ নবীগঞ্জ অপহরণের ৭ দিনেও উদ্ধার হয়নি স্কুল ছাত্রী মাধবপুরে মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত দুর্ধর্ষ ডাকাত এরশাদ আলী গ্রেপ্তার শায়েস্তাগঞ্জে ছেলে ধরা সন্দেহে এক ডাকাতকে গণধোলাই হবিগঞ্জ জেলা পুলিশ বনাম জেলা খেলোয়ার কল্যাণ সমিতির মধ্যে ফুটবল টুর্নামেন্ট কাশ্মিরী মুসলমানদের অধিকার অবিলম্বে ফিরিয়ে দিন ॥ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াত সমন্বয় পরিষদ জ্যোতির্বিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. দীপেন ভট্টাচার্য্যরে ॥ বক্তৃতা শুনে বিজ্ঞান চর্চায় আগ্রহ বেড়েছে হবিগঞ্জের শিক্ষার্থীদের ধুলিয়াখাল-মাহমুদপুর বাইপাস সড়ক টমটম চুরির অভিযোগে যুবক আটক হবিগঞ্জে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির রক্তদান কর্মসূচী ও শোক সভা
মাদকের বিস্তৃতি ঘটেছে গ্রামাঞ্চলে ভয়াল থাবায় বিপথগামী হচ্ছে যুব সমাজ

মাদকের বিস্তৃতি ঘটেছে গ্রামাঞ্চলে ভয়াল থাবায় বিপথগামী হচ্ছে যুব সমাজ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মাদকের বিস্তৃতি ঘটেছে গ্রামাঞ্চলে। সহজলভ্য হয়ে উঠেছে মাদক। হাত বাড়ালেই পাওয়া যাচ্ছে মাদক। ফলে মাদকাসক্তের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। এর ভয়াল থাবায় বিপথগামী হচ্ছে যুব সমাজ। বাড়ছে বিভিন্ন ধরণের অপরাধমূলক কর্মকান্ড। শংকিত হয়ে পড়েছেন অভিভাবকসহ সাধারণ মানুষ। বানিয়াচং উপজেলার খাগাউড়া ইউনিয়ন ও পার্শ্ববর্তী নবীগঞ্জ উপজেলার কালিয়ারভাঙ্গা ইউনিয়নের কয়েকটি স্থান ঘুরে ভয়াবহ তথ্য পাওয়া গেছে। এলাকাবাসীর সাথে আলাপ করে জানা গেছে, খাগাউড়া ইউনিয়নের হোসেনপুর গ্রামে মুচি বাড়িতে গড়ে উঠেছে মাদকের কারখানা। ৪টি পরিবার মদ তৈরীর সাথে জড়িত। এখান থেকে বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা হয়। দুর দুরান্ত থেকে মাদক ব্যবসায়ীরা এসে এখান থেকেই মদ নিয়ে যায়। এলাকার উঠতি বয়সের যুবকরা মুচি বাড়িতে গিয়েই মদপান করে থাকে। দিন রাত্রি চলে মদপান। তবে রাতে মদ্যপদের সংখ্যা বৃদ্ধি পায়। ওই এলাকার কয়েক শ’ যুবক মরণ নেশায় আসক্ত হয়ে পড়েছে বলে এলাকার লোকজন জানান। এক সহপাঠির দেখাদেখি অন্য সহপাঠিও মাদকাসক্ত হচ্ছে। এভাবে এলাকায় মাদকাসক্তের সংখ্যা প্রতিনিয়ত বাড়ছে। মাদকাসক্ত অনেক যুবকের কারণে পরিবারের অশান্তি বিরাজ করছে। অভিভাবকরা এতে করে শংকিত হয়ে পড়েছেন। হবিগঞ্জ-নবীগঞ্জ সড়কের সন্দলপুর হাইস্কুল থেকে প্রায় ১ কিলোমিটার পশ্চিমে হোসেনপুর মুচি বাড়ির অবস্থান। সূত্রে জানা গেছে, স্কুলের কাছে মুচিবাড়ির প্রতিনিধি নিয়োগ রয়েছে। আইনশৃংখলা বাহিনীর লোকজন ওই রাস্তা দিয়ে রওয়ানা দিলে মুচি বাড়িতে খবর দেয়ার জন্যই প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হয়েছে বলে জানান লোকজন।
এছাড়া আলীগঞ্জ বাজারের মুচি বাড়িতেও তৈরী হচ্ছে মদ। এখানেও কোন কোন সময় ওই এলাকার মাদকাসক্তরা ভীড় করে। অপরদিকে তাজপুর গ্রামে রয়েছে গাঁজার আস্তানা। এ আস্তায়ও অনেক যুবককে যাতায়াত করতে দেখা যায়।
স্থানীয়রা জানান, মাদকাসক্তরাই এক সময় বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়ে। নেশার টাকা যোগাড় করতে চুরি, ছিনতাইসহ বিভিন্ন অসামাজিক কাজে লিপ্ত হয়। অতি সম্প্রতি ওই এলাকায় কয়েকটি ঘটনায় এলাকাবাসীকে ভাবিয়ে তুলেছে। আইন শৃংখলা বাহিনীর পাশাপাশি সমাজিক উদ্যোগ না নিলে এর পরিণাম ভয়বহ তবে বলে সচেতন মহল আশংকা করছেন। তবে আইন শৃংখলা বাহিনীকেই প্রথমে এর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার দাবী জানানা এলাকাবাসী।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com