রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৬:০৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
উৎসব মূখর পরিবেশে আজ হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন ॥ লড়াই হবে ত্রি-মুখি বানিয়াচঙ্গে পুলিশের অভিযান কালাশাহ সহ ৩ ডাকাত গ্রেপ্তার হবিগঞ্জে আরো ৬২৭ জন করোনা টিকা গ্রহণ করেছেন নবীগঞ্জ ৯নং বাউসা ইউনিয়ন বিএনপির বর্ধিত সভা অনুষ্টিত হবিগঞ্জে উৎসব মুখর পরিবেশে সমকাল জাতীয় বিজ্ঞান বিতর্ক উৎসব নবীগঞ্জে বিষ প্রয়োগে ২৫০টি হাঁস নিধন ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ নবীগঞ্জ উপজেলার কাউন্সিল কার্যক্রম সম্পন্ন চুনারুঘাটে মরহুম সফিক মিয়া স্মরণে ফ্রিজ কাপ ক্রিকেট টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন হবিগঞ্জে নৌকার জয় হলে শেখ হাসিনার জয় হবে-ব্যরিস্টার শেখ ফজলে নাঈম একনায়কতন্ত্রের বিরুদ্ধে বিএনপির প্রার্থী সেলিমকে ধানের শীষে ভোট দিন-জিকে গউছ
ইউপি কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণ দখল করে ভবন নির্মান ॥ গাজীপুরে উত্তেজনা

ইউপি কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণ দখল করে ভবন নির্মান ॥ গাজীপুরে উত্তেজনা

চুনারুঘাট প্রতিনিধি ॥ চুনারুঘাটের গাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স-এর প্রাঙ্গণ দখল করে দোকান পাট নির্মান করার ঘটনায় দখলদার ও ইউপি কর্তৃপক্ষের মাঝে চরম উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। এ নিয়ে যে কোন সময় বড় ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনার আশংকার করছেন এলাকাবাসী। গতকাল দখলের ঘটনা নিয়ে চরম উত্তেজনা দেখা দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে। স্থানীয়রা জানান, ২০০২ সালে তৎকালিন ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর খানের নেতৃত্বে গাজীপুর হাইস্কুল এন্ড কলেজের ছাত্রছাত্রীরা আসামপাড়া বাজারে অবস্থিত ২৮ ঘরের জমি দখল করে দোকান-পাট গুড়িয়ে দেয়। এ নিয়ে অসংখ্য মামলা হয় উভয়ের মাঝে। পরবর্তীতে স্কুল কর্তৃপক্ষকে কিছু জমি দান করে আপোষ রফা হয় উভয়ের মাঝে। বেদখল হয়ে যাওয়া জমিতে পুনরায় ফিরে এসে দোকান পাট নির্মান করেন ২৮ ঘরের ওয়ারিসানরা। এ ফাঁকে ২০০৩ সালে নজাবত উল্লা চৌধুরীর দান করা জমিতে নির্মান শুরু হয় ইউপি কমপ্লেক্স। এ সুযোগে জনৈক আলপি চৌধুরীর কাছ থেকে জমি কিনে কমপ্লেক্স ঘেঁষে জাহাঙ্গীর খাঁন নির্মান করেন নিজস্ব দোকান পাট। এতে ইউপি কমপ্লেক্স -এর সৌন্দর্য্য বিলীন হয়। এরই ধারাবাহিকতায় এলাকার কিছু লোক ২৮ ঘরের দাবী নিয়ে আসামপাড়া বাজারের পাশে অবস্থিত দুটি কবরস্থান দখল করে নির্মান শুরু করে দোকান-পাট। এ নিয়ে কয়েক দফা মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় স্থানীয় মুসল্লী ও দখলদারদের মাঝে। বিগত ৪/৫ মাস আগে নজাবত উল্লা চৌধুরীর ওয়ারিসান দিলু চৌধুরী, জহিরুল হক চৌধুরীসহ আরো কয়েকজন লোক ইউনিয়ন পরিষদের প্রাঙ্গণ ও সামনের জমি দখল করে পাকা ভবন নির্মান শুরু করলে স্থানীয় মানুষের মাঝে ক্ষোভ দেখা দেয়। কিন্তু বর্তমান চেয়ারম্যান মাওলানা তাজুল ইসলামের দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে দখলকারীরা গতকাল ভবন নির্মান অব্যাহত রাখলে ইউপি সদস্য ও স্থানীয় সচেতন মানুষের মাঝে উত্তেজনা দেখা দেয়। মুখোমুখি অবস্থান নেয় উভয় পক্ষ। খবর পেয়ে চুনারুঘাট থানার দারোগা জাহিদ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি সামল দেন। আগামীকাল সোমবার এ নিয়ে সালিশের আহবান করা হয়েছে।
ক্যাপসন ঃ ইউনিয়ন কমপ্লেক্স প্রাঙ্গন দখল করে ভবন নির্মান কাজ চলছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com