বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ০৯:৪২ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
সাতছড়িতে বিজিবির অভিযান রকেট লাঞ্চারের ১৮টি গোলা উদ্ধার হবিগঞ্জে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ম্যারাথন এর উদ্বোধন সাতছড়ি উদ্যানে পূর্বের ৬ অভিযানে যা যা মিলেছে উদ্ধার হওয়া রকেট লাঞ্চারের গোলাগুলো খুব বিপজ্জনক আলোচনায় কাহালু ও চট্টগ্রামের ১০ ট্রাক অস্ত্র নোয়া হাটি সংবর্ধনা সভায় মেয়র সেলিম ॥ আমি হবিগঞ্জ পৌরবাসীর ভালবাসা কুড়িয়ে নিতে চাই হবিগঞ্জ পৌরসভার নব-নির্বাচিত ২ কাউন্সিলরকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী নবীগঞ্জে মাদকাসক্ত স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা ॥ হুমকির মুখে নিরিহ পরিবার পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়রের সঙ্গে ব্যাংকারদের শুভেচ্ছা বিনিময় নবীগঞ্জে শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ প্রতিযোগীতায় ॥ ২৩ বিজয়ী
চুনারুঘাট ও বাহুবলের বিভিন্ন স্থানে রাতের আধারে জমজমাট হয়ে উঠে জুয়া খেলার আসর

চুনারুঘাট ও বাহুবলের বিভিন্ন স্থানে রাতের আধারে জমজমাট হয়ে উঠে জুয়া খেলার আসর

স্টাফ রিপোর্টার ॥ চুনারুঘাট ও বাহুবলের বিভিন্ন স্থানে জমজমাট হয়ে উঠেছে জুয়ার আসর। এদের কর্মকা- দেখলে মনে হবে যেন, একেকটি মিনি ক্যাসিনো। প্রতিদিন সন্ধ্যার পর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত চলে জুয়ার এ আড্ডা। সেখানে বিভিন্ন স্থান থেকে আসা উঠতি বয়সী যুবক থেকে শুরু করে মধ্যবয়সী বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ যোগ দেন। শুধু তাই নয়, ভয়ঙ্কর বিষয় হলো জুয়ার খড়াল গ্রাসে ডুবে বে-পথে যাচ্ছে স্কুল পড়ুয়া কিশোররাও। আবার জুয়া খেলার পাশাপাশি চলে রাতভর মাদকসেবন। বারবার প্রতিবাদ করেও প্রতিকার পাচ্ছেন না এলাকাবাসী। উল্টো জুয়ারিদের হয়রাণীর শিকার হতে হচ্ছে তাদের। তবে প্রশাসন বলছে জুয়া ও মাদক নিরাময়ে নিয়মিত টহল দিচ্ছে আইনশৃংখলা বাহিনী। অনুসন্ধানে জানা যায়, চুনারুঘাট উপজেলার জনৈক্য কুখ্যাত জুয়াড়ি সুরুজ আলীর বাড়িে বিভিন্ন জুয়াড়িরা সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত সর্বনাশী ওয়ানটেন খেলা বসায়। এ ছাড়া বাহুবল উপজেলার জনৈক্য ব্যক্তির বাড়িতে একই ধরণের খেলা চলে। জুয়ার পাশাপাশি মাদকসেবনসহ নারীদেরকে নিয়ে রঙ্গলীলাও চলে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন জুয়াড়ি জানায়, পুলিশকে ম্যানেজ করেই তারা এসব করছে। তাছাড়া তাদের পাহারাদারও রয়েছে। প্রশাসনের কোনো সদস্য ঘটনাস্থলে পৌছার আগেই তারা খবর পেয়ে যায়। জুয়ার আসর বসানোর ফলে এলাকার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। এ ব্যাপারে চুনারুঘাট থানার ওসি মোঃ আশরাফ আলী বলেন, জুয়াড়ি ও মাদকসেবীদের কোনো ছাড় নেই। খবর পাওয়ার সাথে সাথেই পুলিশের অভিযান অব্যাহত থাকে। এ ছাড়া ডিবির নবাগত ওসি মোঃ আল আমিন বলেন, জুয়াড়িদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছি। অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথেই আমিসহ আমার টিম অভিযান চালাবে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com