রবিবার, ০৯ অগাস্ট ২০২০, ০২:০০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
বানিয়াচংয়ে মাছ ধরা নিয়ে দুই গ্রামবাসীর ভয়াবহ সংঘর্ষ নবীগঞ্জে রাতে নিখোঁজ ব্যক্তির সকালে ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার বঙ্গমাতা ছিলেন বাঙালির মুক্তিসংগ্রামের অন্যতম অগ্রদূত ॥ এমপি আবু জাহির শহরে টমটমসহ যানবাহনের ডাবল ভাড়া কমানোর দাবি নবীগঞ্জে দুইটি বিদ্যালয়ের নাম নিয়ে হাস্যরস ॥ গন্ধা গ্রামের স্কুলের নাম ‘গনজা স:প্রা:বি’ খনকারিপাড়া গ্রামে ‘ঋণকারীপাড়া স:প্রা:বি’ বঙ্গমাতার জন্ম দিবসে হবিগঞ্জ জেলা আ.লীগের মিলাদ ও দোয়া মাহফিল বাহুবলে গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট শরীফ উদ্দিন এর ২৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভা নবীগঞ্জের দিলীপ ভট্টাচার্য্যের মৃত্যুতে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আ.লীগ সাধারণ সম্পাদকের শোক বাইপাস থেকে মোটর সাইকেলসহ এক মাদক বিক্রেতা আটক
বানিয়াচঙ্গে মেয়াদোত্তীর্র্ণ ঔষধ বিতরণ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করায় টনক নড়েছে কর্তৃপক্ষের ঘটনা তদন্তে কমিটি গঠন

বানিয়াচঙ্গে মেয়াদোত্তীর্র্ণ ঔষধ বিতরণ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করায় টনক নড়েছে কর্তৃপক্ষের ঘটনা তদন্তে কমিটি গঠন

মখলিছ মিয়া, বানিয়াচং থেকে ॥ বানিয়াচং ৫/৬নং বাজার উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ বিতরণ নিয়ে দৈনিক হবিগঞ্জ এক্সেেপ্রস পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হওয়া টনক নড়েছে কর্তৃপক্ষের। ঘটনা তদন্তে ২ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। গতকাল সরেজমিন ঘটনাস্থল ৫/৬নং বাজার উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্র পরিদর্শন করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুল হাদি মোহাম্মদ শাহ পরাণ। পরিদর্শনকালে তিনি মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ বিতরণের প্রমান পেয়েছেন। যাদের মধ্যে এ ঔষধগুলো বিতরণ করা হয়েছে তাদের নামের তালিকা দেখে ঔষধগুলো ফেরত আনার জন্য ওই কেন্দ্রের দায়িত্বরত ডাঃ সালাউদ্দিন সজীব কে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে ইউএইচও ডাঃ আব্দুল হাদি মোহাম্মদ শাহ পরাণ এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ প্রতিনিধিকে জানান, তদন্ত কমিটির রিপোর্ট পাওয়ার পর এ বিষয়ে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান। উল্লেখ্য, হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর আওতাধীন ৫/৬নং বাজার উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ বিতরণের অভিযোগ পাওয়ার পর। এ বিষয়ে অনুসন্ধান করতে গিয়ে সরেজমিন এ ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে, গত ক’দিন পূর্বে তোপখানা এলাকার জনৈক কয়েকজন মহিলা বানিয়াচং ৫/৬নং বাজারে অবস্থিত উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে যান চিকিৎসা করাতে। এসময় তাদের হাতে তুলে দেয়া হয় কিছু আয়রণ ট্যাবলেট। এ ট্যাবলেটগুলো হাতে নেয়ার পর দেখতে পান এই ট্যাবলেটগুলোর মেয়াদ শেষ হয়েছে জুন/২০ ইং মাসে। অথচ জুলাই মাসে তাদের হাতে এ ট্যাবলেটগুলো দেয়া হয়। এ বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানালেও বিষয়টি তারা আমলে নেয়নি। ৮ জুলাই বুধবার বেলা ১২ টায় ওই উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায় বিতরণ টেবিলের উপরে মেয়াদত্তোর্ণী ট্যাবলেটগুলো রাখা হয়েছে। অথচ এ ট্যাবলেটগুলোর মেয়াদ শেষ হয়েছে গত জুন মাসেই। মেয়াদত্তোর্ণী ট্যাবলেটগুলো এখনো কেন বিতরণ টেবিলে রাখা হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে দায়িত্বশীলরা জানান, মেয়াদত্তোর্ণী বিষয়টি আমাদের জানা ছিল না। এ বিষয়ে কথা হয় বানিয়াচং ৫/৬নং বাজার উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের দায়িত্বরত ডাঃ সালাউদ্দিন সজীব এর সাথে, তিনি মেয়াদোত্তর্ণী ঔষধের বিষয়ে কিছু জানতেন না বলে জানান। জুন মাসের ঔষধ জুলাই মাসে কেন বিতরণ করা হচ্ছে এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি কোন সদোত্তর দিতে পারেননি।
এ দিকে এ বিষয়ে এলাকার লোকজনের সাথে কথা হলে তারা জানান, সরকারী ঔষধ নামে আছে কাজে নাই। এভাবে দিনের পর দিন মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ বিতরণ করে মূল ঔষধ লাপাত্তা করে দেয়ার অভিযোগও তুলেন এলাকাবাসী। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার দাবীও জানান এলাকাবাসী।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com