বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৪০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
ওলিপুরে প্রাণের চিপস কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ॥ কোটি টাকার ক্ষতি নাছিরনগরে কাজ করতে গিয়ে মাধবপুরে ৩ শ্রমিক নিহত শায়েস্তাগঞ্জে আটক প্রেমিক যুগল পুলিশ হেফাজতে দেশে ফিরলেন এমপি আবু জাহির ও হবিগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলেয়া আক্তার চুনারুঘাটে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চাউলসহ এক ব্যক্তি গ্রেফতার চুনারুঘাটে নোহা উল্টে শিশু নিহত ॥ হাসপাতালে মা নবীগঞ্জে উপ-নির্বাচনে বিজয়ী ইউপি সদস্য আব্দুল মোমিনের শপথ গ্রহন আজমিরীগঞ্জে গরুর ঘাস কাটা নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৫০ পবিত্র ওমরাহ পালন শেষে পৌরসভায় ফিরেছেন মেয়র আতাউর রহমান সেলিম নবীগঞ্জের প্রবীণ মুরুব্বি ফজল মিয়ার ইন্তেকাল ॥ দাফন সম্পন্ন

মাধবপুরে ঋণ দেয়ার নামে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে লাপাত্তা কথিত মাইক্রো ব্যাংক

  • আপডেট টাইম বুধবার, ৩ এপ্রিল, ২০২৪
  • ১১ বা পড়া হয়েছে

আলমগীর কবির, মাধবপুর থেকে ॥ মাধবপুরে ঋণ দেওয়ার নামে মাইক্রো ব্যাংক নামে একটি ভূয়া এনজিও প্রতারণা করে সাধারণ মানুষের লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঋণ না দিয়ে ওই এনজিওর কর্মকর্তারা ৭০/৮০জন গ্রাহকদের সঞ্চয়ের টাকা নিয়ে এলাকা ছেড়ে গা-ঢাকা দিয়েছেন।
খবর পেয়ে সোমবার ও মঙ্গলবার ভুক্তভোগীরা মাধবপুর পৌরশহরে অফিসে জড়ো হয়ে দেখেন অফিসে ঝুলছে তালা। কর্মকর্তারা ও নেই, মোবাইল ও বন্ধ। এ অবস্থায় অনেক সঞ্চয়দাতা দিশেহারা হয়ে আহাজারি করেছে। বাড়ির মালিকের ভূমিকা নিয়ে রহস্যের দানা বেঁধেছে গ্রাহকদের মধ্যে। গত বৃহস্পতিবার পৌর শহরের ২নং ওয়ার্ডের আব্দুল কুদ্দুছের বাড়ি ভাড়া নেয় মাইক্রো ব্যাংক নামে কথিত প্রতিষ্ঠান। অফিস খুলে “সোশ্যাল এন্টার প্রাইজ লোন” নামে কার্যক্রমের ষ্ট্রিকার লাগিয়ে দেন অফিসে। ঋণ প্রদানের বিষয়ে দ্রুত প্রচারণা শুরু করে বিভিন্ন এলাকায়। মানুষকে মোটা ঋণ দেয়ার প্রলোভন দেয়। এরই মধ্যে ঋণ দেয়ার নামে প্রায় শতাধিক গ্রাহক ও জোগাড় হয়ে যায়। তাদের কাছ থেকে সঞ্চয়ের নামে হাতিয়ে নেয় লাখ লাখ টাকা। হতদরিদ্র স্বল্প আয়ের মানুষ লাখ টাকার ঋণ পাওয়ার আসায় ধার দেনা করে এককালীন সঞ্চয় পরিশোধ করে দ্রুত। এখন প্রতারক চক্রের খপ্পরে পড়ে আম ছালা দুটি হারিয়েছে তারা। অনেকই টাকার শোকে দিশেহারা হয়ে আহাজারি করছেন। জানা যায়, মাইক্রো ব্যাংক নামে এনজিও’র পরিচয় দিয়ে ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রমের আওতায় উপজেলার বিভিন্ন প্রত্যন্ত অঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায় ঋণ দেয়ার ফাঁদ ফাদে প্রতারক চক্রটি। কৌশলে এলাকার শতাধিক লোকের কাছ থেকে এককালীন সঞ্চয় হিসেবে টাকা নিয়ে তাদের ঋণ বিতরণের তারিখ ধার্য করে। মঙ্গলবার ছিল ঋণ বিতরণের নির্ধারিত তারিখ। এর আগেই প্রতারকচক্র অফিস ছেড়ে গা ঢাকা দিয়েছে। সোমবার মাধবপুর পৌর এলাকার সোনাই আবাসন এলাকার কয়েকজন গ্রাহক ঋণের টাকার বিষয়ে জানতে এসে দেখেন অফিস তালাবদ্ধ। কর্মকর্তারা লাপাত্তা হয়েছেন, তাদের মোবাইল বন্ধ। সোনাই আবাসন প্রকল্পের বাসিন্দা বীর মুক্তিযোদ্ধা ঝারু মিয়া জানান, সোনাই আবাসন প্রকল্পের ডলি আক্তার, আবেদা আক্তার, আনিছা খাতুন, মনোয়ারা সহ ৭/৮ জনের কাছ থেকে ঋণ দেওয়ার নামে সাড়ে ৭ হাজার টাকা করে সঞ্চয় আদায় করে। ভুক্তভোগী প্রত্যেকে ৭০ হাজার টাকা করে ঋণ দেওয়ার কথা ছিল। উপজেলার ভেলাপুর গ্রামের এক প্রবাসী জানান, সতোরো হাজার পাঁচশত টাকা সঞ্চয় জমা দিয়েছিলেন তিনি যাতে ৩ লাখ টাকা ঋণ দেওয়ার কথা বলে এনআইডি কার্ডের ফটোকপি ও ৪ কপি ছবি নেওয়া হয়।
বুল্লা গ্রামের জয়নাল মিয়ার কাছ থেকে ৮৫ হাজার টাকা নেওয়া হয়। তাকে সিএনজি কেনার জন্য ৩ লাখ টাকা ঋণ দেওয়ার কথা হয়। এভাবে প্রতারক চক্র প্রায় শতাধিক লোকজনের কাছ থেকে কৌশলে টাকা হাতিয়ে নিয়ে চম্পট দিয়েছে।
এ ব্যাপারে বাড়ির মালিক আব্দুল কুদ্দুছের বক্তব্য জানার জন্য মোবাইল ফোনে একাধিকবার ফোন করেও তাকে পাওয়া যায়নি।
মাধবপুর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মোঃ আতিকুর রহমান জানান, গ্রাহকদের মধ্যে অফিস প্রাঙ্গনে উত্তেজনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে। তবে এখন পর্যন্ত কেউ কোন অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হবে।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Design and Development BY ThemesBazar.Com