সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:৪৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
নবীগঞ্জের নদী খোকোদের তালিকা প্রকাশ ॥ শীঘ্রই উচ্ছেদ অভিযান মাধবপুরে ছোট ভাইয়ের পিটুনীতে বড় ভাই খুন এমপি আবু জাহিরের প্রচেষ্টায় হবিগঞ্জ সদর ও শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ ॥ আজ এক যোগে উদ্বোধন নবীগঞ্জে সন্ত্রাসী মুছা ১০ দিনেও অধরা কর আদায়ের উপর নির্ভর করে পৌরসভার উন্নয়ন-মেয়র ছাবির চৌধুরী নবীগঞ্জে নারী প্রতারক গ্রেপ্তার মানুষ বাঁচে তার কর্মে, বয়সের মধ্যে নয়-মিলাদ গাজী এমপি নবীগঞ্জে সাবেক ইউপি সদস্যের দাফন সম্পন্ন ॥ শোক প্রকাশ ‘হবিগঞ্জের মানুষ অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী-মেয়র মিজান দুর্নীতি আর লুটপাটের মহাসাগরে নিমজ্জিত আওয়ামীলীগের পতন হবেই- জিকে গউছ
শায়েস্তাগঞ্জে পুলিশ-সিএনজি শ্রমিক সংঘর্ষ ॥ ৭শ’ জনের বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেফতার ১০

শায়েস্তাগঞ্জে পুলিশ-সিএনজি শ্রমিক সংঘর্ষ ॥ ৭শ’ জনের বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেফতার ১০

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শায়েস্তাগঞ্জে পুলিশ ও সিএনজি শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ এসল্ট মামলা হয়েছে। শায়েস্তাগঞ্জ থানার এসআই আব্দুল ওয়াদুদ বাদী হয়ে এসল্ট মামলাটি করেছেন। মামলায় ৮৮ জনের নাম উল্লেখ ছাড়াও অজ্ঞাত ৬০০ থেকে ৭০০ জনকে আসামি করা হয়েছে। শুক্রবার রাতেই বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ১০জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মামলাটি তদন্ত করছেন ওসি (তদন্ত) মানিকুল ইসলাম।
শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসি আনিসুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শুক্রবার সকালে শায়েস্তাগঞ্জের নছরতপুরে সিএনজিচালিত অটোরিকশা শ্রমিকরা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এ সংঘর্ষে ১৪ জন পুলিশ আহত হন। এ ঘটনায় শায়েস্তাগঞ্জ থানার এসআই আব্দুল ওয়াদুদ বাদী হয়ে এসল্ট মামলা করেছেন।
এদিকে পুলিশের গ্রেফতার এড়াতে সিএনজি শ্রমিকসহ স্থানীয় এলাকার অনেকেই গা-ঢাকা দিয়েছেন।
প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার শায়েস্তাগঞ্জ থানা পুলিশ সুতাং এলাকায় মহাসড়কে চেকপোষ্ট বসিয়ে ৫টি সিএনজি আটক করে। আটক সিএনজিগুলো ছাড়িয়ে আনতে শ্রমিক ও মালিকরা তদবির করে। কিন্তু পুলিশ সিএনজিগুলো ছাড়তে অস্বীকার করায় শ্রমিকদের মধ্যে অসন্তোষ সৃষ্টি হয়। এর প্রতিবাদে সিএনজি শ্রমিকরা শুক্রবার মহাসড়কের দেউন্দি মোড়, নছরতপুর ও সিএনজি ফিলিং স্টেশনের কাছে মহাসড়ক অবরোধ করে। এ সময় সিএনজি শ্রমিকরা নছরতপুর এলাকায় মহাসড়কে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করে। খবর পেয়ে শায়েস্তাগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে শ্রমিকদের সড়ক থেকে সরে যেতে বলে। এ সময় শ্রমিকরা পুলিশের সাথে বাকবিতণ্ডায় লিপ্ত হয়। এক পর্যায়ে পুলিশ ও সিএনজি শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। পুলিশ প্রথমে লাটিচার্জ করে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করে। পরে হাইওয়ে থানা পুলিশও ঘটনাস্থলে পৌছে। অপরদিকে শ্রমিকদের পক্ষে স্থানীয় কিছু এলাকাবাসী যোগ দেয়। এ সময় এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। প্রায় দেড়ঘণ্টা পর্যন্ত উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া চলে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ায় পুলিশ ২০০ রাউন্ড টিয়ারসেল ও ২০০ রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়ে নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। সংঘর্ষে ১৪ পুলিশ সদস্যসহ অর্ধশতাধিক আহত হন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com