মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৭:৫৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
করোনা ভাইরাস ॥ চীন ফেরত শিক্ষার্থী নিয়ে হবিগঞ্জে স্বাস্থ্য বিভাগের লুকোচুরি চাঁদাবাজির কারণে থমকে গেছে গুঙ্গিয়াজুরী হাওরে ৪০ হাজার মন ধান উৎপাদন ্॥ কৃষকদের ৪ কোটি টাকা ক্ষতির আশংকা ৯ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে জ্বিনের বাদশা ! ॥ সর্বস্ব খুইয়ে ওই ব্যক্তি পাগল প্রায় ॥ আতঙ্ক গ্রস্থ পরিবার বহুলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেছেন এমপি আবু জাহির শহরের বদরুন্নেছা (প্রাঃ) হাসপাতালের মালিক দাবিদার বদরুন্নেছার বিরুদ্ধে এন্তার অভিযোগ নবীগঞ্জে স্বাস্থ্য সহকারী ও স্বাস্থ্য পরিদর্শক এসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় দাবী আদায়ের লক্ষ্যে হাম-রুবেলা ক্যাম্পেইনের প্রশিক্ষন বর্জন হবিগঞ্জ শহরে কিশোরকে ছুরিকাঘাত করেছে যুবতী কালিয়ারভাঙ্গা ইউনিয়নে গণফোরামের ৫ নং পুরানগাঁও ওয়ার্ড কমিটি গঠিত বাহুবলে জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান ॥ অমর একুশে বইমেলা মহান ভাষা আন্দোলনের স্মৃতিকে জাগ্রত রাখছে শায়েস্তাগঞ্জ জিয়াখাল রেল ব্রীজটি হুমকির মুখে
নবীগঞ্জে ১০ টাকা কেজিতে চাল বিক্রির ডিলার নিয়োগে অনিয়ম

নবীগঞ্জে ১০ টাকা কেজিতে চাল বিক্রির ডিলার নিয়োগে অনিয়ম

এম এ বাছিত, নবীগঞ্জ থেকে ॥ নবীগঞ্জে হতদরিদ্রদের মধ্যে ১০ টাকা কেজি চাল বিক্রির ডিলার নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। কুর্শি ইউনিয়নের দুই ডিলারের নিয়োগ বাতিলের জন্য রেজুুলেশনভিত্তিক অভিযোগ দায়ের করেন ইউপি চেয়ারম্যান আলী আহমদ মুছা। এনিয়ে জটিলতায় হতদরিদ্রদের তালিকা সনাক্ত করণ সম্ভব হয়নি। চেয়ারম্যানের দৌড়ঝাপ কাজে আসেনি। কে ইস্যু করবে দরিদ্রদের তালিকা এনিয়ে জটিলতা তৈরী হয়েছে। সংসদ সদস্য এম এ মুনিম চৌধুরী বাবুর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ নিয়ে জটিলতা দেখা দিয়েছে। উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে ২৬জন ডিলার নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে আওয়ামীলীগের ২১ জন এবং জাতীয় পার্টির ৫ রয়েছেন। অভিযোগ সূত্রে প্রকাশ, সরকার কর্তৃক ঘোষিত রেশনভিত্তিক সহায়তা প্রকল্পের আওতায় ১০ টাকা কেজির চাল সংগ্রহ এবং বিক্রির জন্য ডিলার নিয়োগ দেয়া হয়। দরিদ্রদের তালিকা প্রণয়ন ও কার্ড ইস্যুর জন্য ইউনিয়ন পরিষদকে চিঠি দেয়া হয়। চিঠিতে সংশ্লিষ্ট এলাকার নিয়োগকৃত ডিলার তালিকা সংযুক্ত করা হয়। কুর্শি ইউনিয়নে নিযুক্ত দুই ডিলারের তালিকা নিয়ে ক্ষোভ দেখা দেয়। ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক কামাল হাছান চৌধুরী এবং সংসদ সদস্য মুনিম চৌধুরী বাবু সহোদর যুবলীগ নেতা আব্দুল বাছিত চৌধুরীর নিয়োগ বাতিলের জন্য রেজুলেশন ভিত্তিক অভিযোগ দায়ের করেন চেয়ারম্যান আলী আহমদ মুছা। উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে একই গ্রামভুক্ত দুইজনের নিয়োগ বাতিলের সুপারশি করেন। এছাড়াও ডিলার নিয়োগের ক্ষেত্রে ইউনিয়ন পরিষদকে অবহিত না করায় ওই প্রকল্প ব্যাহত হওয়ার অভিযোগ করেন তিনি। ফলে কুর্শি ইউনিয়নে দরিদ্রদের তালিকা প্রণয়নের কার্যক্রম স্থগিত করা হয়। এনিয়ে হতদরিদ্রদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় সংসদ সদস্য মুনিম চৌধুরী বাবু বলেন, উপজেলার নিয়োগ কমিটি সিডিউলের মাধ্যমে ডিলার নিয়োগ সম্পন্ন করেছে। বিধি মোতাবেক আমি তা অনুমোদন করেছি। সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম নিয়ে ষড়যন্ত্রে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি। উপজেলার কুর্শি পয়েন্টে আব্দুল বাছিত চৌধুরী এবং ইউনিয়নের মিলন কেন্দ্র বাংলাবাজার কামলা হাছান চৌধুরীকে দারিদ্র সহায়তার চাল বিক্রির অনুমোদন দেয়া হয়। কামাল হাছান চৌধুরীকে ডিলার নিয়োগে সুপারিশ করেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি ও সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ নুর মিয়া। ওদিকে, নিয়োগকৃত দুই ডিলারের নির্ধারিত এলাকা পরিবর্তনের সুপারিশ নাকচ করেন হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট আলমগীর চৌধুরী। এনিয়ে আওয়ামীলীগ সভাপতি মোঃ নুর মিয়া বলেন, দুর্ভোগ লাঘবের সুবিধা বিবেচনা করে দুইজনকে ডিলার নিয়োগ দেয়া হয়েছে। দরিদ্রদের তালিকা প্রণয়ন নিয়ে উপজেলা ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের মতানৈক্য রয়েছে। এছাড়াও উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন এবং নবীগঞ্জ পৌরসভায় ডিলার নিয়োগের কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com