মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ০১:৪৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
জেলার বিভিন্ন স্থানে কুকুরের কামড়ে শিশুসহ আহত ১১

জেলার বিভিন্ন স্থানে কুকুরের কামড়ে শিশুসহ আহত ১১

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জেলার বিভিন্ন এলাকায় পাগলা কুকুরের কামড়ে শিশুসহ ১১ জন আহত হয়েছে। গতকাল সকালে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
আহতরা হলেন, শহরের উত্তর শ্যামলী এলাকার জেবা বেগম (৪৫), শ্যামলী এলাকার হেলেনা চৌধুরী (৫০), হরিপুরের মামুন মিয়া (১০), নয়াহাটির জাহির মিয়া (১৩), সদর উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামের লাল মতি (৫০), মনিকা রায় (১০), বাদল মিয়া (৪৫), জালালাবাদ গ্রামের মিলন (১৮), সিমা (২৫), পেয়ারা বেগম (৪০) ও ঝিকুয়া গ্রামের মিজান (১০)।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, পৌর এলাকাসহ জেলা সদরের বিভিন্ন গ্রামে পাগলা কুকুরের উপদ্রব মারাত্মকভাবে বেড়েছে। পৌরসভা বা ইউনিয়ন পরিষদ থেকেও এসব কুকুর নিধনের কোনো উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে না। বিভিন্ন এলাকায় আতঙ্কে ভুগছেন সাধারণ মানুষ। বিশেষ করে নারী ও শিশুরা স্কুল-কলেজে যেতেও মারাত্মক ভয় পাচ্ছেন। সকালে বিভিন্ন এলাকায় পাগলা কুকুর ১১ জনকে কামড়িয়ে গুরুতর আহত করেছে।
সদর আধুনিক হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. দেবাশীষ দাস জানান, কুকুরে কামড়ের পর্যাপ্ত ওষধ মজুদ রয়েছে। আহতদের চিকিৎসাও দেয়া হচ্ছে। তবে কাউকে কুকুর কামড় দিলে সঙ্গে সঙ্গে তাকে সাবান দিয়ে ওই জায়গাটি ভালো করে ২০ থেকে ৩০ মিনিট সময় পর্যন্ত ধুতে হয়। এতে ৮০ শতাংশ জীবাণু চলে যায়। পরবর্তীতে সরকারিভাবে সাতটি ইনজেকশন দিতে হয়। সেগুলো সময়মতো দিতে হবে। আর খেয়াল রাখতে হবে কুকুরটি মারা গেল কি না। যদি মারা যায় তবে ধরে নিতে হবে তার শরীরে রেবিস ভাইরাস রয়েছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com