শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৬:৪৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
হবিগঞ্জে নৌকার জয় হলে শেখ হাসিনার জয় হবে-ব্যরিস্টার শেখ ফজলে নাঈম একনায়কতন্ত্রের বিরুদ্ধে বিএনপির প্রার্থী সেলিমকে ধানের শীষে ভোট দিন-জিকে গউছ শায়েস্তাগঞ্জ সড়কে দুর্ঘটনায় যুবক নিহত ॥ আহত ৫ ভয়ভীতির উর্ধে উঠে নারিকেল গাছ প্রতীকে ভোট দিন-মেয়র প্রার্থী মিজান হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন ॥ স্বশিক্ষিতের ভিড়ে ব্যতিক্রম ৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী কৌশিক আচার্য্য পায়েল এডঃ এনামুল হক সেলিমের সমর্থনে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি পরিবারের ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্টিত ব্যাংকার মওদুদ হত্যার প্রতিবাদে হবিগঞ্জে মানববন্ধন ও শোক র‌্যালী মেয়র প্রার্থী আতাউর রহমান সেলিমকে হবিগঞ্জ জেলা ন্যাপের সমর্থন গণসংযোগকালে পান্না কুমার শীল আমি বিজয়ী হলে ৩নং ওয়ার্ডকে একটি আধুনিক ও বাসযোগ্য হিসেবে গড়ে তুলব বাংলাকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা হিসাবে স্বীকৃতির দাবিতে হবিগঞ্জে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্টিত
মাধবপুর ছোট ভাইকে পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করায় বড় ভাইদের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

মাধবপুর ছোট ভাইকে পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করায় বড় ভাইদের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মাধবপুরের ধর্মঘরে তিন প্রভাবশালী ভাইয়ের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন এক ছোট ভাই। সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করেন তার প্রভাবশালী তিন ভাই তাকে তার পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করতে নানাভাবে ষড়যন্ত্রসহ প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছেন। এমনকি তারা তিনজন অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী হওয়ায় পুলিশ প্রশাসনকে দিয়েও হয়রানি করছেন। ফলে একদিকে পুলিশ অন্যদিকে প্রভাবশালী তিন ভাই ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর ভয়ে গত ১০ দিন ধরে বাড়ি ছাড়া ওই ছোট ভাই।
গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে হবিগঞ্জ প্রেসকাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মাধবপুর উপজেলার ধর্মঘর ইউনিয়নের দত্তপাড়া গ্রামের মৃত তাজুল ইসলামের পুত্র আক্তার সোলাইমান তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, তিনিসহ তার পিতা আরও ৫ জন ওয়ারিশান রেখে ২০০৮ সালে মারা যান। তার তিন ভাই হল, নিজামুল ইসলাম, মঞ্জুরুল ইসলাম ও তোফাজ্জুল ইসলাম। তারা তিন ভাইয়ের কেউ কেউ সরকারি ও বেসরকারি চাকরি করে ঢাকা ও সিলেটে বাড়ি গাড়ি করেছেন। আক্তার সোলাইমানের পিতা মারা যাওয়ার পর বাড়ির সম্পদ ও গাছপালা এবং দুই বিঘা জমি তার নামে অছিয়ত করে দিয়ে যান। কিন্তু তার তিন ভাই প্রভাবশালী হওয়ায় তাকে তার পৈত্রিক সম্পত্তির যথাযথ অংশ না দিয়ে এ থেকে বঞ্চিত করার চেষ্টা করছে। তাদের কাছে কাগজপত্র থাকায় জমির কিছু অংশ বিক্রিও করে দিয়েছে তারা। এ বিষয়ে গ্রামে সালিশ হলেও তারা তা কর্ণপাত করেনি। উল্টো আক্তার সোলাইমানকে নিরীহ পেয়ে তাকে বিভিন্ন মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর চক্রান্তও করছে। লিখিত অভিযোগে আরও বলা হয়, তাকে বাড়ি ছাড়া করার জন্য তার প্রভাবশালী তিন ভাই বাড়ির চলাচলের রাস্তা বন্ধ করতে দেয়াল নির্মাণ করার চেষ্টা করছে। তিনি এসব অপকর্মের প্রতিবাদ করলে তাকে পুলিশ দিয়ে হয়রানি করা হয়। গত ১৩ জানুয়ারি কাশিমনগর পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আতিককে বাড়িতে নিয়ে এসে তাকে হয়রানির চেষ্টা করা হয়। ১৬ জানুয়ারিও ওই পুলিশ সদস্য তার ভাইদের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে আক্তার সোলাইমানের স্ত্রী হেলেনা আক্তার চৌধুরীকে টানা হেচড়া করে থানায় নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। তার মেয়ে তানজিনা আক্তার ৯৯৯ ফোন করে এবং স্থানীয় চেয়ারম্যানকে অবগত করে।
সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, পুলিশ ও প্রভাবশালীদের ভয়ে সোলাইমানসহ তার পরিবার বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র বসবাস করছেন। তিনি এ বিষয়ে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ করছেন।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com