রবিবার, ০৯ অগাস্ট ২০২০, ০১:৫৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
বানিয়াচংয়ে মাছ ধরা নিয়ে দুই গ্রামবাসীর ভয়াবহ সংঘর্ষ নবীগঞ্জে রাতে নিখোঁজ ব্যক্তির সকালে ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার বঙ্গমাতা ছিলেন বাঙালির মুক্তিসংগ্রামের অন্যতম অগ্রদূত ॥ এমপি আবু জাহির শহরে টমটমসহ যানবাহনের ডাবল ভাড়া কমানোর দাবি নবীগঞ্জে দুইটি বিদ্যালয়ের নাম নিয়ে হাস্যরস ॥ গন্ধা গ্রামের স্কুলের নাম ‘গনজা স:প্রা:বি’ খনকারিপাড়া গ্রামে ‘ঋণকারীপাড়া স:প্রা:বি’ বঙ্গমাতার জন্ম দিবসে হবিগঞ্জ জেলা আ.লীগের মিলাদ ও দোয়া মাহফিল বাহুবলে গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট শরীফ উদ্দিন এর ২৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভা নবীগঞ্জের দিলীপ ভট্টাচার্য্যের মৃত্যুতে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আ.লীগ সাধারণ সম্পাদকের শোক বাইপাস থেকে মোটর সাইকেলসহ এক মাদক বিক্রেতা আটক
শহরতলীর পূর্ব ভাদৈয়ে জোরপূর্বক ভিটা থেকে উচ্ছেদ করতে ভোররাতে ঘুমন্ত পরিবারের উপর হামলা ভাংচুর

শহরতলীর পূর্ব ভাদৈয়ে জোরপূর্বক ভিটা থেকে উচ্ছেদ করতে ভোররাতে ঘুমন্ত পরিবারের উপর হামলা ভাংচুর

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জ শহরতলীর পূর্ব ভাদৈ এলাকার অসহায় মোঃ ফিরোজ আলী নামে এক ব্যক্তির ভিটা দখলের চেষ্ঠা করছে ওই গ্রামের একটি প্রভাবশালী মহল। এমতাবস্থায় জীবনের চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছেন দরিদ্র ফিরোজ আলী।
জানা যায়, পূর্ব ভাদৈ এলাকার আব্দুর গফুর নামে এক ব্যক্তি মোঃ ইউনুছ আলী, মোঃ ফিরোজ আলী ও হিরাজ আলী নামে ৩ পুত্র সন্তান ও রাজিয়া বেগম নামে ১ কন্যা সন্তান রেখে মারা যান। তার মধ্যে আব্দুর গফুর নিঃসন্তান অবস্থায় মারা যান আর ইউনুফ আলী নিরুদ্দেশ হয়ে যায়। জীবিকার তাগিদে মোঃ ফিরোজ আলী পিতার বসত ভিটা ছেড়ে বাহিরে অবস্থান করার সুযোগে ওই এলাকার একটি প্রভাবশালী মহলের নজর পড়ে ফিরোজ আলীর পিতার বসত ভিটায়। সম্প্রতি ফিরোজ আলী বাড়ীতে আসেন এবং তাঁর পিতার বসত ভিটায় একটি নতুন ঘর নির্মাণ করেন। কিন্তু ওই প্রভাবশালী মহলটি অসহায় ফিরোজ আলীর বাড়ীতে ফিরে আসা মেনে নিতে পারেনি। তারা ফিরোজ আলীকে ভিটা থেকে উচ্ছেদ করতে বিভিন্ন ধরণের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়।
এই ষড়যন্ত্রের অংশ হিসাবে গত ২ জুলাই ভোরে ঘুমন্ত ফিরোজ আলীর পরিবারের সদস্যদের উপর হামলা চালায় ওই প্রভাবশালী মহল। তারা ঘর ও ঘরের আসবাবপত্র ভাংচুর করে। মুর্হুতের মধ্যেই দাঙ্গাবাজরা ফিরোজ আলীর বসতঘরটি মাটির সাথে মিশিয়ে দেয়। ভাংচুরের বাঁধা দিতে গিয়ে ফিরোজ আলীর পরিবারের ৬ সদস্যই আহত হয়। স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে গুরুতর অবস্থায় ফিরোজ আলীর স্ত্রী ফাতেমা বেগমকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।
এ ব্যাপারে আহত ফাতেমা বেগম জানান, ওই এলাকার খাইরুদ্দিন ও মোহাম্মদ আলীর লোকজন আমাদের বাড়ীঘর দখল করতে ঘুমন্ত অবস্থায় আমার পরিবারের সদস্যদের উপর হামলা চালায়। আমরা নিরীহ মানুষ বর্তমানে জীবনের চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছি। তারা আমাদের এখনও বিভিন্ন ধনের হুমকি দিচ্ছেন তাদের ভয়ে আমরা আইনের আশ্রয়ও নিতে পারছি না। আমরা সঠিক তদন্তের মাধ্যমে এই দোষী ব্যক্তিদের বিচার দাবী করছি।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com