সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ০৮:৩৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
শ্রীমঙ্গলে যুবলীগ নেতা সেলিমের উদ্যোগে সাড়ে ৫শ অসহায় মানুষের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ নবীগঞ্জের বিভিন্ন গ্রামে ড. রেজা কিবরিয়ার পক্ষে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ হবিগঞ্জে শেষ হয়েছে ৫দিন ব্যাপি ইয়ূথ এসোসিয়েশন অব ইউকে এর খাদ্য সহায়তা বিতরণ নবীগঞ্জে গৃহহীন দুই বীর সেনা মুক্তিযোদ্ধাকে সেনাবাহিনীর বাসস্থান উপহার আলমগীর চৌধুরীর সৌজন্যে নবীগঞ্জে ১৬৫ পরিবারকে ঈদ উপহার প্রদান নবীগঞ্জে স্বাস্থ্য বিধি অমান্য করায় ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা “বঙ্গবন্ধু ছাত্র একতা পরিষদ” নেতা রায়হান এর উদ্যোগে ইফতার বিতরণ এখন প্রমান করার সময় মানুষ মানুষের জন্য-মোতাচ্ছিরুল ইসলাম অনাহারী মুখ খাবার তুলে দিচ্ছেন হবিগঞ্জ ছাত্র সমন্বয় ফোরাম বাগুনিপাড়া ডিফেন্স হোল্ডার এ্যাসোসিয়েশন ঈদ উপহার বিতরন
করোনা সঙ্কটের মধ্যে চুনারুঘাটে মশার উৎপাত

করোনা সঙ্কটের মধ্যে চুনারুঘাটে মশার উৎপাত

চুনারুঘাট প্রতিনিধি ॥ করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মানুষজনকে ঘরবন্দি করে রেখেছে। উদ্বিগ্ন চুনারুঘাটের মানুষের জীবনের বেশির ভাগ সময়ই এখন ঘরের ভেতর শুয়ে বসে কাটছে। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে বেড়ে চলা মশার উৎপাত ঘরে আটকে থাকা মানুষের জীবনে অস্বস্তির মাত্রা আরও বাড়িয়ে তুলেছে। দেশে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর এটির সংক্রমণ ঠেকাতে নানা তৎপরতার মাঝে মশা নিধনের কার্যক্রম থমকে গেছে। ফলে করোনা সঙ্কটের মুখে এডিস মশাবাহিত আরেক প্রাণঘাতী ভাইরাস ডেঙ্গুর বিষয়টি চাপা পড়ে যাচ্ছে।
জানা যায়, গরম বাড়ার সাথে সাথে চুনারুঘাটে মশার পরিমাণ বাড়তে শুরু করেছে। তবে মশা নিধনে নিয়মিত কার্যক্রম না থাকায় পৌরসভা এলাকায় ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। চলতি বছরে ডেঙ্গুর প্রকোপে মশক নিধন কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনের পর থেকেই পৌরসভায় মশার ওষুধ ছিটানো হয়। বর্তমান সময়ে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। ফলে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ব্যস্ততা শুরু হয়। আর সঙ্গত কারণেই মশা নিধনে ওষুধ ছিটানোর বিষয়টি উপেক্ষিত থেকে যায়। পৌর এলাকার গুচ্ছগ্রাম, বড়াইল, হাতুন্ডা, আমকান্দি, নয়ানী, গোগাউড়া এলাকার বাসিন্দাদের সাথে কথা বলে জানা যায়, রাতের পাশাপাশি এমনকি দিনের বেলাতেও উৎপাত চালায় মশা। সন্ধ্যার পর গুণগুণ করে গান গাইতে শুরু করে মশার দল। প্রতিকারের জন্য কয়েল জ্বালানো বা মশা মারার কোনও ওষুধ না ছিটালে শুরু হয় ‘মশার অ্যাকশন’। ক্ষুদ্র পতঙ্গটির কামড়ে নাভিশ্বাস ওঠার দশা হয়। এ ব্যাপারে পৌর এলাকার আব্দুল জলিল, আব্দুল হক, মোজাম্মেল হক, আয়াত আলী ও নুর মোহাম্মদ জানান, মশার অত্যাচারে সন্ধ্যার আগেই ঘরের জানালা দরজা বন্ধ রাখতে হচ্ছে। এতেও নিস্তার মিলছে না। ছোট বাচ্চাদের যাতে মশা না কামড় দেয় এজন্য হাতে সব সময় মশা মারার ব্যাট রাখতে হচ্ছে। জানা যায়, করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে পৌরশহর পরিচ্ছন্ন রাখার পাশাপাশি জীবাণুমুক্ত রাখার জন্য কাজ করছে পৌরকর্মীরা। করোনার বিস্তার ঠেকাতে পৌর শহরে প্রতিদিনই নিয়ম করে জীবাণুনাশক ছিটানোর কাজ করা হচ্ছে। ফলে মশক নিধনে ভাটা পড়ে গেছে। এ বিষয়ে চুনারুঘাটের পৌর মেয়র মোঃ নাজিম উদ্দিন শামসু জানান, বর্তমানে করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে পৌরসভার প্রতি ওয়ার্ডে জীবাণুনাশক ছিটানো হচ্ছে। করোনা সঙ্কটের এই মুহূর্তে অগ্রাধিকার দিয়ে জীবাণুনাশক ছিটানোর এই কার্যক্রম চালানো হচ্ছে। পৌরসভায় মশক নিধনে পৌরসভার প্রতি ওয়ার্ডে মশার ওষুধ ছিটানো হবে বলেও তিনি জানান।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com