মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০১:৫৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
করোনা ভাইরাস ॥ চীন ফেরত শিক্ষার্থী নিয়ে হবিগঞ্জে স্বাস্থ্য বিভাগের লুকোচুরি চাঁদাবাজির কারণে থমকে গেছে গুঙ্গিয়াজুরী হাওরে ৪০ হাজার মন ধান উৎপাদন ্॥ কৃষকদের ৪ কোটি টাকা ক্ষতির আশংকা ৯ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে জ্বিনের বাদশা ! ॥ সর্বস্ব খুইয়ে ওই ব্যক্তি পাগল প্রায় ॥ আতঙ্ক গ্রস্থ পরিবার বহুলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেছেন এমপি আবু জাহির শহরের বদরুন্নেছা (প্রাঃ) হাসপাতালের মালিক দাবিদার বদরুন্নেছার বিরুদ্ধে এন্তার অভিযোগ নবীগঞ্জে স্বাস্থ্য সহকারী ও স্বাস্থ্য পরিদর্শক এসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় দাবী আদায়ের লক্ষ্যে হাম-রুবেলা ক্যাম্পেইনের প্রশিক্ষন বর্জন হবিগঞ্জ শহরে কিশোরকে ছুরিকাঘাত করেছে যুবতী কালিয়ারভাঙ্গা ইউনিয়নে গণফোরামের ৫ নং পুরানগাঁও ওয়ার্ড কমিটি গঠিত বাহুবলে জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান ॥ অমর একুশে বইমেলা মহান ভাষা আন্দোলনের স্মৃতিকে জাগ্রত রাখছে শায়েস্তাগঞ্জ জিয়াখাল রেল ব্রীজটি হুমকির মুখে
লাখাইয়ে জমি নিয়ে দু’পক্ষের দীর্ঘদিনের বিরোধ নিস্পত্তি

লাখাইয়ে জমি নিয়ে দু’পক্ষের দীর্ঘদিনের বিরোধ নিস্পত্তি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ লাখাইয়ের ভাদিকারা গ্রামের বাসিন্দা হবিগঞ্জ জেলা আইনজীবি সমিতির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট ছালেহ উদ্দিন আহমেদ ও আবুল খায়ের হিরু গংদের জায়গা নিয়ে দীর্ঘদিনের বিরোধ নিস্পত্তি হয়েছে। গতকাল অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের (হবিগঞ্জ সদর সার্কেল) কার্যালয়ে এ বিরোধ নিস্পতি হয়। পুলিশ সুপারের নির্দেশে বিরোধ নিস্পতি করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হবিগঞ্জ সদর সার্কেল) মোঃ রবিউল ইসলাম। সূত্র জানায়, ১৯৭৮ সালে এডভোকেট মোঃ ছালেহ উদ্দিন উদ্দিন আহমেদ গংদের সাথে একই গ্রামের বাসিন্দা মরহুম আব্দুল মান্নানের আব্দুল খায়ের হিরু গংদের জায়গা জমি ও বাড়ির সীম-সীমানা নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এ সময় স্থানীয় মুরুব্বীয়ান বিরোধ নিস্পতি করেন দেন। পরবর্তীতে ২০১৬ সালে পূনরায় আবুল খায়ের হিরু গংদের সাথে আবার অ্যাডভোকেট ছালেহ উদ্দিন আহমেদ গংদের বিরোধ সৃষ্টি হয়। স্থানীয় মুরুব্বীয়ান শালিসে বসে উভয় পক্ষের বিরোধ নিস্পতি করতে পারেননি। ২২ সেপ্টেম্বর এ নিয়ে উভয়প পুলিশ সুপারের বরাবরে দরখাস্ত করেন। এ প্রেক্ষিতে পুলিশ সুপার এ বিষয়টি নিস্পতি করতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল ইসলামকে দায়িত্ব দেন। গতকাল তিনি উভয়পক্ষ, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ তার কার্যালয়ে বিরোধপূর্ণ নিস্পতির জন্য সমঝোতায় বসেন। এতে উভয় পক্ষের দীর্ঘদিনের বিরোধ নিস্পত্তি করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার। সমঝোতা বৈঠকে উভয়পক্ষ অঙ্গীকার করেন তারা স্ব-স্ব অবস্থানে থাকবেন এবং কোন প্রকার বিরোধে জড়াবেন না। এর মাধ্যমে তাদের দীর্ঘদিনের বিরোধ নিস্পত্তি হয়। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হবিগঞ্জ সদর সার্কেল) মোঃ রবিউল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন-পুলিশ জনগণের শান্তির জন্য কাজ করেন। এ হিসেবে আমরাও কাজ করে যাচ্ছি। আমরা চাই একটি সুখি ও শান্তিপূর্ণ হবিগঞ্জ গড়ে উঠুক।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com