রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০৭:৩৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আজ পবিত্র শব-ই-কদর নয় সহশ্রাধিক মানুষের মাঝে সরকারি সহায়তা বিতরণে এমপি আবু জাহির নবীগঞ্জে জাহির হত্যার মামলা ॥ ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে আসামীদের গোপন বৈঠক ‘হৃদ্যতা হবিগঞ্জ’র দরিদ্রদের মাঝে অর্থ সহায়তা বিতরণ শহরের শায়েস্তানগরে তুচ্ছ ঘটনায় যুবককে ছুরিকাঘাত নবীগঞ্জ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পদক উজ্জ্বল সরদারকে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা উপ কমিটির সদস্য মনোনীত নবীগঞ্জের বিশিষ্ট মুরুব্বী ওয়াহিদ চৌধুরী আর নেই সুশীল সমাজ, এতিম ও শিক্ষার্থীদের সম্মানে নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের উদ্যোগে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত আজমিরীগঞ্জে ছুরিকাঘাতে নাড়ি-ভুড়ি বের হয়ে গেছে নবীগঞ্জে নুরানী মার্কেটে মহিলা ক্রেতাকে মারধোর ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ ॥ এলাকায় উত্তেজনা
উমেদনগরে পুলিশকে লক্ষ্য করে বোমা হামলা মামলায় ॥ বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদল কৃষকদল নেতারা আসামী

উমেদনগরে পুলিশকে লক্ষ্য করে বোমা হামলা মামলায় ॥ বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদল কৃষকদল নেতারা আসামী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শহরের উমেদনগর এলাকায় বৃহস্পতিবার রাত ১০ টার দিকে পুলিশকে লক্ষ্য করে ৬টি ককটেল ও বোমা বিষ্ফোরণ এবং ককটেল ও বোমা উদ্ধারের ঘটনায় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের ১৪ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো ৮০/৯০জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার এসআই মোঃ আব্দুর রহিম বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে বিষ্ফোরক উপাদানাবলী আইন ১৯০৮ (সংশোধনী ২০০২) এর ৩-এ, সহ ১৯৭৪ সনের বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় উল্লেখিত ১৪ জন নেতা হচ্ছে-জেলা ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক হাফিজুল ইসলাম হাফিজ, জেলা মৎস্যজীবি দলের সাধারণ সম্পাদক ফারুক মিয়া, বাবুল মিয়া, জেলা কৃষকদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মফিজুর রহমান বাচ্চু, পৌর কৃষকদলের আহ্বায়ক সবুজ মিয়া, পৌর যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মামুন মিয়া, জেলা বিএনপি সদস্য আব্দুল হান্নান ফরিদ, পৌর শ্রমিকদলের সভাপতি শেখ আব্দুল হান্নান, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক রুবেল আহমেদ চৌধুরী, জেলা শ্রমিক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক তুহিন খান, হাজী হাবিবুর রহমান, লতিফ মিয়া, ফরহাদ মিয়া ও সেলিম মিয়া।
মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, বৃহস্পতিবার রাত প্রায় সাড়ে ৯টার দিকে উমেদনগর এলাকার হাজী রমজান আলী এন্টারপ্রাইজের সার ও বীজ বন্ধ দোকানের সামনে অভিযুক্ত হাফিজুল ইসলাম হাফিজ, মফিজুর রহমান বাচ্চু, শেখ আব্দুল হান্নান, মামুন মিয়া সহ ৮০/৯০ জন বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী বৈঠকে মিলিত হন। এ খবর পেয়ে সদর মডেল থানার ওসি মুহাম্মদ সাইদুর রহমানের নির্দেশে এসআই আব্দুর রহিমসহ একাধিক পুলিশ দল একত্রিত হয়ে রাত প্রায় ১০ টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে গাড়ি থেকে নামা মাত্র বৈঠকে উপস্থিত বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ককটেল ও বোমা নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে ১০টি চকলেট বোমা, স্কষ্টেপ দিয়ে মোড়ানো ২টি অবিস্ফোরিত কৌটা, একটির অংশ বিশেষ, ৫টি চকলেট বোমার অংশ বিশেষ উদ্ধার করা হয়। হবিগঞ্জ সদর থানার আইন শৃংখলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটানো সহ সরকারের উন্নয়নমুল কর্মকান্ডকে বাধাগ্রস্থ করা, দেশে বিদেশে সরকারের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করা এবং প্রতিষ্ঠিত সরকারকে উৎকাত করার জন্য নৈরাজ্য সৃষ্টি করার লক্ষ্যে বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে অভিযুক্তরা জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com