বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১০:০১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
লাখাইয়ে যানজট নিরসনে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা আজমিরীগঞ্জে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর আব্দুর রাজ্জাকের দাফন সম্পন্ন হবিগঞ্জে নতুন আরো ১৬ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবিগঞ্জে বকেয়া ভাতা দেয়ার দাবীতে ডিপিএড প্রশিক্ষণার্থীদের মানববন্ধন হবিগঞ্জে হিটস্ট্রোকে এক দিনে তিন ব্যক্তির মৃত্যু মাধবপুরে দু’গ্রামবাসীর সংঘর্ষ ॥ মহিলাসহ আহত ২০ নরসিংদীতে মলম পার্টির কবলে পড়ে নবীগঞ্জের যুবকের সর্বস্ব খোয়া বেসরকারী হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার করোনা প্রতিরোধে অগ্রনী ভূমিকা পালন করবে-মোতাচ্ছিরুল ইসলাম নবীগঞ্জের দাউদপুরে সমিতির প্রয়াত ৩ সদস্যের স্মরণে শোকসভা, দোয়া মাহফিল ও বার্ষিক সাধারণ সভা হবিগঞ্জে ব্র্যাকের ইনসেপশন মিটিং ॥ নিজের পরিবার থেকে জেন্ডার জাস্টিস চর্চা শুরুর আহবান

নবীগঞ্জের নোয়াগাঁওয়ে তান্ডব প্রথম দিনের রিমান্ডে মুকুলকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ

  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ১১ জুন, ২০২১
  • ১২ বা পড়া হয়েছে

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ নবীগঞ্জ উপজেলার পানিউমদা ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামে ১৩টি বাড়ি-ঘরে অগ্নিসংযোগ-লুটপাটের মামলার ২য় আসামী ও গজনাইপুর ইউনিয়নের বরখাস্তকৃত চেয়ারম্যান এবং নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের (অব্যাহতিপ্রাপ্ত) সাবেক সভাপতি ইমদাদুর রহমান মুকুলকে দুই দিনের রিমান্ডের প্রথম দিনে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকেলে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মুকুলকে হবিগঞ্জ কারাগার থেকে থানায় আনা হয়। পরে সন্ধ্যার পরে টানা কয়েক ঘন্টা নবীগঞ্জ থানায় ইমদাদুর রহমান মুকুলকে নোয়াগাঁও গ্রামে ১৩টি বাড়ি-ঘরে অগ্নিসংযোগ-লুটপাটের ঘটনায় ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। মামলার তদন্তের স্বার্থে ও মূল রহস্য উদঘাটনে নবীগঞ্জ-বাহুবল সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আবুল খায়ের, নবীগঞ্জ থানার ওসি মো. ডালিম আহমেদ ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গোপলার বাজার তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ কাওছার আলম মামলার আসামী মুকুলকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করেন। নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ডালিম আহমেদ বলেন, নোয়াগাঁও গ্রামে হামলার ঘটনায় মামলার আসামী মুকুলকে রিমান্ডে আনা হয়েছে, তদন্তের স্বার্থে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। উল্লেখ্য, গত (৩০ মে) সাতাইহাল ৬ মৌজার লোকজন কর্ত”ক পানিউমদা ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামে অগ্নিসংযোগ ও লুটপাট চালায়। অগ্নিসংযোগ-লুটপাটের ঘটনায় ১৩টি ঘর-বাড়ি আগুণে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এতে প্রায় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়। এ ঘটনায় (১ জুন) নোয়াগাঁও গ্রামের আব্দুস শহীদের ছেলে জামাল হোসাইন বাদী হয়ে সাতাইহাল গ্রামের নুর উদ্দিন, গজনাইপুর ইউনিয়নের বরখাস্তকৃত চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ইমদাদুর রহমান মুকুলসহ ৪৭ জনের নাম উল্লেখ করে ও ২০০-২৫০ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে নবীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর মূলহোতা ইমদাদুর রহমান মুকুল আত্মগোপনে চলে যান। পরে হবিগঞ্জ থেকে অন্য জেলায় পালিয়ে আত্মগোপনের চেষ্টা করলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ইমদাদুর রহমান মুকুলকে বাহুবল-হবিগঞ্জ সড়কের মশাজান ব্রীজ এলাকায় থেকে গ্রেফতার করে আইনশৃংখলা বাহিনী। এ ছাড়া বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এ মামলায় মুকুলসহ ৯ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গত সোমবার (৭ জুন) মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গোপলার বাজার তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ পরিদর্শক কাওছার আলম অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের মামলা তদন্তের স্বার্থে মামলার ২য় আসামী ইমদাদুর রহমান মুকুলের ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। গত বুধবার দীর্ঘ শুনানি শেষে পত্র-পত্রিকা, ঘটনার ছবি-ভিডিও পর্যালোচনা করে হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট পবন চন্দ্র বর্মণের আদালত আসামী মুকুলের ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Design and Development BY ThemesBazar.Com