শুক্রবার, ১৯ Jul ২০১৯, ০১:২৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শনে প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রী ॥ নবীগঞ্জে স্থায়ীবাঁধ নির্মাণে ৫১৮ কোটি টাকার মেগা প্রকল্পের ঘোষণা নবীগঞ্জে প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় ছাত্রীর উপর বখাটের হামলা ॥ কঠোর শাস্তির দাবীতে ফুঁসে উঠছে শিক্ষার্থীরা বাহুবলে ১ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক লাখাইয়ে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ মাধবপুরের ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীরের জানাযায় মানুষের ঢল দাবি আদায় করতে গিয়ে পৌরবাসীকে জিম্মি না করতে পৌরসভার কর্মকর্তা কর্মচারীদের প্রতি জিকে গউছের আহ্বান বন্যা দূর্গত মানুষের পাশে দাড়ানোর জন্য রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি হবিগঞ্জ ইউনিটের আহবান পত্রিকা এজেন্ট লাইছের হামলায় হকার আহত ঢাকায় পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অবস্থান কর্মসূচীতে ১ জন নিহত ॥ আহত ৯৪ নবীগঞ্জের প্রিয়মুখ মিহির সরকারের পরলোকগমন ॥ বিভিন্ন মহলের শোক
রশিদপুর থেকে ৩টি চোরাই মোটর সাইকেলসহ ৫ চোরাকারবারী গ্রেপ্তার

রশিদপুর থেকে ৩টি চোরাই মোটর সাইকেলসহ ৫ চোরাকারবারী গ্রেপ্তার

আজিজুল ইসলাম সজীব ॥ ক্রয়-বিক্রয়কালে ৩টি চোরাই মোটর সাইকেলসহ ৫ জনকে আটক করেছে হবিগঞ্জ ডিবি পুলিশ। মিরপুর-শ্রীমঙ্গল সড়কের বাহুবল উপজেলার রশিদপুর গ্যাস ফিল্ড এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।
আটককৃতদের বাড়ি শ্রীমঙ্গল উপজেলায়। আটককৃতরা হচ্ছে- শ্রীমঙ্গল উপজেলার ভুনবির ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা চেরাগ আলীর পুত্র শ্রীমঙ্গল উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ (২৮), কালিঘাট রোডের শামীম হোসেনের পুত্র রায়হান হোসেন আপন (২৩), শ্রীমঙ্গল শহরের গুহ রোড এলাকার মোঃ সিরাজুল ইসলামের পুত্র মোঃ মিনহাজুল ইসলাম (২৪), শান্তিবাগ এলাকার কবির খানের পুত্র জুনায়েদ হোসেন (২৮) ও খলিলপুর গ্রামের আবুল কালাম আজাদের পুত্র জাহিদ হাসান সাকিব (২৫)। এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ ডিবির এসআই আবুল কালাম আজাদ বাদী হয়ে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।
মামলার বিবরণে জানায়, গতকাল ৭ মে বেলা ১টার দিকে রশিদপুর গ্যাস ফিল্ড এলাকায় গ্রেফতারকৃতরাসহ ৬ জন ৩টি চোরাই মোটর সাইকেল বেচা-কেনা করছিল। এ সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হবিগঞ্জ ডিবির এসআই আবুল কালাম আজাদ ও এসআই ইকবাল বাহারের নেতৃত্বে ডিবি উল্লেখিত স্থানে অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ৬ চোরাকারবারী দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ তাদের ধাওয়া করে উল্লেখিত ৫ জনকে আটক করতে সক্ষম হয়। তাদের অপর সহযোগি পালিয়ে গেছে। এ সময় একটি নেভী ব্লু ১৫০ সিসি আরওয়ান-৫ যার মুল্য ২ লাখ ২০ হাজার টাকা, একটি লাল রংয়ের এফজেড-এস ১৫০ সিসি যার মুল্য ১ লাখ ৫০ হাজার এবং একটি কালো রংয়ের ১০০ সিসি টিভিএস যার মুল্য ৮০ হাজার টাকা এ ৩টি মোটর সাইকেল জব্ধ করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে মোটর সাইকেল চোরাকারবারীর সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। গ্রেফতারকৃতরা আরো জানায়, এরা দীর্ঘদিন যাবৎ মোটর সাইকেল চুরি করে বিক্রি করে আসছে। তাদের হবিগঞ্জে একটি চক্র রয়েছে। শ্রীমঙ্গল এবং হবিগঞ্জের চক্র মিলে যৌথভাবে চোরাই মোটর সাইকেলের ব্যবসা চালিয়ে আসছে। হবিগঞ্জ থেকে চুরি যাওয়া মোটরসাইকেল গ্রেফতারকৃতদের মাধ্যমে শ্রীমঙ্গলসহ বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করা হয়। একই ভাবে মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গল থেকে চুরি যাওয়া মোটর সাইকেল হবিগঞ্জের চক্রের মাধ্যমে হবিগঞ্জ সহ বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করা হয়।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com