সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২১, ১২:৩১ অপরাহ্ন

চুনারুঘাটে ব্যবসায়ীর স্ত্রীকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা চেষ্টা

চুনারুঘাটে ব্যবসায়ীর স্ত্রীকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা চেষ্টা

আজিজুল ইসলাম সজীব ॥ চুনারুঘাট পৌর শহরের মোবাইল ব্যবসায়ীর স্ত্রীকে ছুরি দিয়ে অসংখ্য আঘাত করে হত্যা চেষ্টা করা হয়েছে। গুরুতর আহত জামিনা আক্তার (২০) কে অজ্ঞান অবস্থায় প্রথমে চুনারুঘাট হাসপাতাল ও পরে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি মঙ্গলবার সকালে চুনারুঘাট পৌর শহরের সিঙ্গার শো-রুমের পিছনে একটি বাসায় ঘটে। আহত জামিনা আক্তার চুনারুঘাট পৌর এলাকার মোবাইল ব্যবসায়ী মোঃ কামরুল ইসলামের স্ত্রী ও উপজেলার বালিয়ারী গ্রামের আফরোজ মিয়ার মেয়ে। সে মিরপুর আলিফ সোবান কলেজের রাষ্ট্র বিজ্ঞান ১ম বর্ষের ছাত্রী।
এ ন্যাক্কারজনক ঘটনাটি কে বা কারা ঘটিয়েছে, জামিনা আক্তার সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত কিছুই বলা যাচ্ছেনা। দুর্বৃত্তরা টাকা-পয়সা না নিলেও জামিনা আক্তারের হাতের বালা, কানের দোল ও গলার চেইন নিয়ে যায়। আহত জামিনার স্বামী কামরুল জানান, প্রতিদিনের মতো সে তার স্ত্রীকে বাসায় রেখে সকাল বেলা ব্যবসা প্রতিষ্টানে যায়। সকাল ১১ টার দিকে তার স্ত্রী তাকে কল দিয়ে অস্বাভাবিক কন্ঠে কথা বলে ফোন রেখে দেয়। এতে কামরুলের সন্দেহ হয়। তার স্ত্রী ৭ মাসের গর্ভবতী হওয়ায় তিনি মনে করেছিলেন কোন সমস্যা হয়েছে। বাসায় এসে তার স্ত্রীকে অসংখ্য ছুরির আঘাতসহ ঘরের মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার শুরু করেন। প্রতিবেশী লোকজন এসে তার স্ত্রীকে প্রথমে চুনারুঘাট ও পরে হবিগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করেন। আহত জামিনার হাত, পা, বুক ও মুখে ছুরি দিয়ে অসংখ্য আঘাত করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কোনো আইনের আশ্রয় নেয়া হয়নি । তবে আহত জামিনা কিছুটা সুস্থ হলেই তার জবানবন্দী শুনে আইনের আশ্রয় নিবেন বলে জানালেন তার স্বামী। ধারনা করা হচ্ছে, পূর্ব শত্রুতার জের ধরেই এমন ঘটনা ঘটিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com