সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৭:১৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
নবীগঞ্জের নদী খোকোদের তালিকা প্রকাশ ॥ শীঘ্রই উচ্ছেদ অভিযান মাধবপুরে ছোট ভাইয়ের পিটুনীতে বড় ভাই খুন এমপি আবু জাহিরের প্রচেষ্টায় হবিগঞ্জ সদর ও শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মাণ ॥ আজ এক যোগে উদ্বোধন নবীগঞ্জে সন্ত্রাসী মুছা ১০ দিনেও অধরা কর আদায়ের উপর নির্ভর করে পৌরসভার উন্নয়ন-মেয়র ছাবির চৌধুরী নবীগঞ্জে নারী প্রতারক গ্রেপ্তার মানুষ বাঁচে তার কর্মে, বয়সের মধ্যে নয়-মিলাদ গাজী এমপি নবীগঞ্জে সাবেক ইউপি সদস্যের দাফন সম্পন্ন ॥ শোক প্রকাশ ‘হবিগঞ্জের মানুষ অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী-মেয়র মিজান দুর্নীতি আর লুটপাটের মহাসাগরে নিমজ্জিত আওয়ামীলীগের পতন হবেই- জিকে গউছ
যে কোন মূল্যে সাম্প্রদায়িক সাম্প্রতি অটুট রাখতে হবে-এমপি আবু জাহির

যে কোন মূল্যে সাম্প্রদায়িক সাম্প্রতি অটুট রাখতে হবে-এমপি আবু জাহির

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সদর-লাখাই আসনের সংসদ সদস্য এডঃ মোঃ আবু জাহির বলেছেন, হবিগঞ্জ একটি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির জেলা। এখানে সকল ধর্মের মানুষদের মধ্যেই রয়েছে ভ্রাতৃত্ববোধ। তবে খালেদা জিয়ার কাঁধে ভর করে ৭১ এর পরাজিত শক্তি সারাদেশের ন্যায় হবিগঞ্জেও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। তাদের ব্যাপারে আইন-শৃংখলা বাহিনীসহ সকলকে সতর্ক থাকতে হবে। যে কোনও মূল্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি অটুট রাখতে হবে।
শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে রবিবার বিকালে হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত বিশেষ আইন-শৃংখলা কমিটির সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
সভায় উপস্থিত আইন-শৃংখলা কমিটির নেতৃবৃন্দ ও পূজা উযাদপন পরিষদ নেতৃবৃন্দের প্রস্তাবের ভিত্তিতে এমপি আবু জাহির বলেন, দুর্গাপূজা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হওয়ার লক্ষ্যে ধর্মীয় ভক্তিমূলক সঙ্গীত ব্যতিত উশৃংখল কোন সঙ্গীত পরিবেশন করা যাবে না। এ সময় আযান ও নামাজের সময় মাইক বন্ধ রাখার জন্য প্রতিটি মন্ডপের দায়িত্বপ্রাপ্তদের প্রতি আহবান জানানো হয়। বিসর্জন এবং পূজা চলাকালীন সময়ে ডিজে গান বাজানো যাবে না বলেও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় আইন-শৃংখলা কমিটির এ সভায়।
বক্তারা বলেন, দুর্গাপূজার পরদিন পবিত্র আশুড়া পালন করা হবে হবিগঞ্জের সর্বত্র। তাই কোনও কুচক্রী মহল যাতে বিশৃংখলা সৃষ্টি করতে না পারে সে ব্যাপারে সজাগ থাকতে হবে এবং দুর্গাপূজার ব্যানার-ফেস্টুনগুলোও অনুষ্ঠানের পরপরই খোলে ফেলার নির্দেশ দেয়া হয়।
নবাগত জেলা প্রশাসক মনীষ চাকমার সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন হবিগঞ্জ পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান শহীদ উদ্দিন চৌধুরী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ নূরুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আ স ম সামছুর রহমান ভূইয়া, বিজিবি-৫৫ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক আসাদুজ্জামান চৌধুরী, নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডঃ আলমগীর চৌধুরী, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এটিএম আজহারুল ইসলাম, নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাজিনা সারোয়ার, বানিয়াচং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সন্দ্বীপ কুমার সিংহ, হবিগঞ্জ জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি এডঃ পূন্যব্রত চৌধুরী বিভু, সাধারণ সম্পাদক অনুপ কুমার দেব মনাসহ আইন-শৃংখলা বাহিনীর কর্মকর্তাবৃন্দ, বিভিন্ন উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।
সভায় জানানো হয় হবিগঞ্জ জেলায় ৬২০টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। এর মাঝে ৬০৪টি সার্বজনীন এবং ১৬টি পূজা ব্যক্তিগত।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com