সোমবার, ০১ Jun ২০২০, ০৩:৪৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
এমপি আবু জাহির এর প্রচেষ্টায় হবিগঞ্জে হতে যাচ্ছে করোনা পরীক্ষার ল্যাব জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী আটক নবীগঞ্জে মাসিক আইনশৃংঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত লাখাইয়ে পরীক্ষায় ফেল করায় কিশোরী আত্মহত্যা করোনায় চুনারুঘাটে সেলুন ব্যবসায়ীরা দিশেহারা নবীগঞ্জে এসএসসি পরীক্ষায় পাশের হার ৭৯.৩১% জিপিএ-৫ পেয়েছে ৭৬ জন ভারতীয় নাগরিকদের হাতে নিহত বাংলাদেশীর লাশ ৬ দিন পর বিজিবির কাছে হস্তান্তর হবিগঞ্জে দুই গ্রামবাসির সংঘর্ষে আহত ৫০ নবীগঞ্জে পুলিশের হস্তক্ষেপে সংঘাত থেকে রক্ষা পেল গ্রামবাসী বানিয়াচঙ্গে কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা ॥ লম্পট গ্রেফতার
বেদখল হয়ে যাচ্ছে শহরের কোটি টাকার জমি

বেদখল হয়ে যাচ্ছে শহরের কোটি টাকার জমি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হবিগঞ্জ শহরের ২নং পুল এলাকায় সড়ক ও জনপথ বিভাগের কোটি টাকার জায়গা বেদখল হয়ে যাচ্ছে। শহরের পানি নিষ্কাশনের একমাত্র ড্রেন দখল করে এক শ্রেণীর ভূমিখেকো রাস্তার পাশের জমিতে স্থায়ীভাবে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করছে। ফলে সামান্য বৃষ্টিতেই শহরের বিভিন্নস্থানে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়।
অভিযোগ রয়েছে, সড়ক জনপথ বিভাগের কতিপয় অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারিদের ম্যানেজ করে ওই চক্রটি স্থায়ীভাবে স্থাপনা তৈরি করে হোটেল, রেষ্টুরেন্টসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান খোলে ব্যবসা করছে। কোন কোন সময় সরকারি ওই জমির দখল বিক্রি ও ভাড়া দেয়া হচ্ছে। গত কয়েক বছর ধরে এমন অবস্থা চলে আসলেও সড়ক ও জনপথ বিভাগ নির্বিকার রয়েছে।
সরেজমিনে দেখা যায়, ভূমিখেকোরা শুধু জমিই দখল করেনি পাশাপাশি অবৈধ স্থাপনায় বিদ্যুত সংযোগও দিয়েছে।
জানা গেছে, বিদ্যুত সংযোগ নিতে গিয়ে দখলবাজরা সড়ক ও জনপথ বিভাগের কতিপয় কর্মকর্তাকে টাকার বিনিময়ে ম্যানেজ করে টোকেন সংগ্রহ করছে এবং তা বিদ্যুত অফিসে দাখিল করে সংযোগ নিচ্ছে।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে দখলকারীরা জানায়, সড়ক ও জনপথ বিভাগের বড় অফিসারকে ম্যানেজ করেই স্থাপনা তৈরি করেছি।
গতকাল রবিবার দুপুরে শহরের ২নং পুল পুলিশ সুপার কার্যালয় সংলগ্ন এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, আগে যে স্থাপনাগুলো অস্থায়ীভাবে ছিল সেগুলো এখন স্থায়ীভাবে তৈরি করা হচ্ছে। এসপি অফিসের সম্মুখ থেকে শুরু করে ২নং পুল সড়ক ও জনপথ বিভাগের বাউন্ডারী পর্যন্ত ৫শ গজের মধ্যে অর্ধশতাধিক অবৈধ স্থাপনা তৈরি করা হয়েছে। বাদ যায়নি সংশ্লিষ্ট বিভাগের তৈরি করা বাগান। দখলবাজরা সেখানের চারা গাছ কেটে নিজেদের দখলে নিয়ে যাচ্ছে।
এলাকাবাসী তাদের উচ্ছেদের দাবি জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, হবিগঞ্জ শহরের অন্যতম একটি সমস্যা হল জলাবদ্ধতা। পৌরসভার পক্ষ থেকে পানি নিষ্কাশনের চেষ্টা করা হলেও ওই সব দখলবাজদের কারণে তা সম্ভব হচ্ছে না।
শায়েস্তানগর কবরস্থান সড়ক থেকে শুরু হওয়া শহরের একমাত্র বড় ড্রেনটি ২নং পুল হয়ে খোয়াই নদীতে মিলিত হয়েছে। সড়কের পাশের এ ড্রেনটি ভরাট করে সেখানে ময়লা আর্বজনা ফেলে পানি নিষ্কাশনের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়েছে। এ বিষয়টির প্রতি অনতিবিলম্বে সংশ্লিষ্ট বিভাগ ও কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি দেয়ার দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com