রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:১২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
সাতছড়ি উদ্যান পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব লাখাই উপজেলার কৃষ্ণপুর গণহত্যা দিবস পালিত শিবপাশা নবদম্পতির আত্মহত্যার চেষ্টা আজমিরীগঞ্জের কাকাইলছেও ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রের নার্স ও সহকারীর বিরুদ্ধে এন্তার অভিযোগ দূর্গাপূজা উপলক্ষ্যে নতুন শাড়ি ও মাস্ক বিতরণ করেছেন গিরেন্দ্র চন্দ্র রায় চুনারুঘাট উপজেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত নবীগঞ্জে সিএনজি চোর চক্রের সদস্য গ্রেফতার ॥ সিএনজি ফিরিয়ে দেয়ার নামে ১ লাখ টাকাও হাতিয়ে নেয় নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় সাংবাদিক সরওয়ার ও মুজিবের উপর মিথ্যা মামলা দায়েরে নিন্দা হবিগঞ্জে ৯/১১ ব্যাচের বন্ধুদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে মিলন মেলা বিএনপির মতবিনিময় সভায় জিকে গউছ ॥ মানুষের ভোটাধিকার ছিনতাই করে আ.লীগ গণতন্ত্র ধ্বংস করেছে

নবীগঞ্জে ৩৩ দিনে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ২৯০ জন

  • আপডেট টাইম বুধবার, ৪ আগস্ট, ২০২১
  • ১৭ বা পড়া হয়েছে

এটিএম সালাম, নবীগঞ্জ থেকে ॥ নবীগঞ্জ উপজেলায় আশংখ্যা জনক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। গত জুন মাসে ১১০ জনের নমুনা সংগ্রহ করে করোনা পজিটিভ আসে ২৩ জনের। অথচ জুলাই মাসে ৫৮৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পজিটিভ আসে ২৫৮ জন। এছাড়া গত তিন’দিনে করোনায় আক্রান্ত হন ৩২ জন। এদিকে শুরু থেকে এ পর্যন্ত সরকারী ভাবে মৃত্যুর সংখ্যা ৩ জন হলেও বেসরকারী ভাবে করোনা উপসর্গ নিয়ে এ পর্যন্ত মারা গেছেন কমপক্ষে শতাধিক লোক। গতকাল মঙ্গলবার (৩রা আগষ্ট করোনা উপসর্গ নিয়ে সুজাপুর গ্রামের আনোয়ার মিয়াসহ মৃত্যু বরণ করেছেন ৩ জন। এভাবে করোনা লাফিয়ে বাড়তে থাকায় সংশ্লিষ্ট মহল চিন্তিত হয়ে পড়েছেন। হাসপাতালে অক্সিজেন তুলনামুলক ভাবে অপ্রতুল। পর্যাপ্ত অক্সিজেন না থাকায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ চিন্তিত রয়েছে। হাসপাতাল ও বিভিন্ন সুত্রে জানা যায়, নবীগঞ্জ উপজেলায় শুরু থেকে রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ২ হাজার ৪ শত ১১ জন। এর মধ্যে ৫৪২ জন পজিটিভ, ১৬৩৯ জন নেগেটিভ, মোট সুস্থ হয়েছেন ২৯৯ জন, হোম আইসোলেশনে আছেন ২৩০ জন, হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ১০ জন। এদিকে নবীগঞ্জ উপজেলায় এ পর্যন্ত মহামারি করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে কমপক্ষে শতাধিক নারী-পুরুষের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে করোনার প্রথম ঢেউয়ে মারা যান ২ জন। বাকীরা করোনা এবং করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু বরণ করেছেন। উপজেলায় করোনা আক্রান্তের হার এর পাশাপাশি উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুর হারও বৃদ্ধি পেয়েছে। কিন্তু সাধারন মানুষের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি হয়নি। গত ৩৪ দিনে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৬৯৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এর মধ্যে ২৯০ জনই করোনা সনাক্ত হয়েছে। জুন মাসে ১১০ জনের নমুনা সংগ্রহ হলে সনাক্ত হয়েছিল ২৩ জন। সরকারী হিসেবে এ উপজেলায় করোনায় মারা গেছে ৩ জন। তবে এ পর্যন্ত নবীগঞ্জ উপজেলায় করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে শতাধিক নারী-পুরুষের মৃত্যুর খবর রয়েছে। প্রতিদিন ২/৩ জন করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে। তারা করোনা নমুনা পরীক্ষা না করেই উপসর্গ নিয়েচ্ছৃত্যুর দিকে ধাবিত হচ্ছে। এ পর্যন্ত হোম আইসোলেশনে রয়েছেন ২৩০ জন। হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১০ জন। মঙ্গলবার সকালে করোনা উপসর্গ নিয়ে সুজাপুর গ্রামের আনোয়ার মিয়াসহ উপজেলায় ৩ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। কোরানায় এ পর্যন্ত মোট নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল ২ হাজার ৪ শত ১১ জনের। এরমধ্যে ৫৪২ জনের করোনা সনাক্ত হয়েছে। সুস্থ্য হয়েছে এ পর্যন্ত ২৯৯ জন। তবে ইদানিং দেখা যাচ্ছে মানুষের মাঝে পরীক্ষা করানোর প্রবনতা কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে। ১লা জুলাই থেকে ৩রা আগষ্ট পর্যন্ত ৬৬৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এতে ২৯০ জনের দেহে করোনা পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে। আক্রান্তের হার প্রায় ৪৬%। ইতিপূর্বে আক্রান্তদের মধ্যে গতকালের রিপোর্ট অনুযায়ী ১ জনও সুস্থ হন নি। আক্রান্তদের মধ্যে ২৩০ জন রয়েছেন হোম আইসোলেশনে। ১০ জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা ইউনিটে ভর্তি রয়েছেন। নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিএইচও ডাঃ আব্দুস সামাদ বলেন, যে হারে করোনা সংক্রামন বৃদ্ধি পাচ্ছে, সেই তুলনায় পর্যান্ত ব্যবস্থা তাদের নেই। অক্সিজেন এর খুব সংকট রয়েছে। এই মহামারি করোনার কবল থেকে নবীগঞ্জবাসী রক্ষা করতে সরকারের পাশাপাশি সকল শ্রেণী পেশার মানুষ এগিয়ে আসতে হবে। স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে হবে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন আহমদ বলেন, এই মহামারি করোনা থেকে রক্ষা পেতে সবাইকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলাচল করতে হবে। অপ্রয়োজনে ঘর থেকে যেন বের না হই। মাস্ক বিহীন চলাচল যেন না করি। এ ব্যাপারে সবাইকে সর্তক থাকার আহ্বান জানান।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2013-2021 HabiganjExpress.Com
Design and Development BY ThemesBazar.Com