সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৮:০৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
করোনা ভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে হবিগঞ্জ শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজে এক যুবক ভর্তি পরিবেশ ও নিরাপত্তায় আপোষহীন শিল্প প্রতিষ্ঠান সায়হাম গ্রুপ পানির অভাবে গুঙ্গিয়াজুরী হাওর বিরান ভূমিতে পরিণত বানিয়াচঙ্গে ডোবা থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার শায়েস্তাগঞ্জে আপনজনের উদ্যোগে শিক্ষা সহায়ক উপকরণ বিতরণ বিথঙ্গল জেডিসি উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও স্বেচ্ছারিতার অভিযোগ হবিগঞ্জ জেলা যুবদলের সাথে যুবদলের কেন্দ্রীয় মনিটরিং টিমের কর্মীসভা নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নে গণফোরামের ৭নং ওয়ার্ড কমিটি গঠিত সারা বছরই অরক্ষিত থাকে বানিয়াচঙ্গের শহীদ মিনার বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা দ্রুত সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে-এমপি আবু জাহির
আপিল বিভাগে দুটি বেঞ্চ গঠন

আপিল বিভাগে দুটি বেঞ্চ গঠন

এক্সপ্রেস ডেস্ক ॥ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য দুটি বেঞ্চ গঠন করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি এই বেঞ্চ গঠনের আদেশ দেন। আগামী রোববার থেকে আপিল বিভাগে দুটি বেঞ্চ বসে বিচারিক কার্যক্রম পরিচালনা করবে। এর একটির নেতৃত্বে থাকবেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। তার সঙ্গে বসবেন বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী, বিচারপতি জিনাত আরা ও বিচারপতি মো. নুরুজ্জামান। অপর বেঞ্চের নেতৃত্বে থাকবেন আপিল বিভাগের সিনিয়র বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী। তার সঙ্গে একই বেঞ্চে বসবেন বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার ও বিচারপতি আবু বকর সিদ্দিকী। এছাড়া আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি হিসেবে বিচারপতি মো. নুরুজ্জামানকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এর আগে চেম্বার বিচারপতি ছিলেন বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী। প্রধান বিচারপতির দুটি বেঞ্চ গঠনের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন আইনজীবীরা। এ বিষয়ে জানতে চাইলে সুপ্রিম কোর্টের বিশেষ কর্মকর্তা ব্যারিস্টার সাইফুর রহমান বলেন, প্রধান বিচারপতি আপিল বিভাগে দুটি বেঞ্চ গঠন করেছেন। আগামী রোববার থেকে দুটি বেঞ্চ বসে বিচারিক কার্যক্রম পরিচালনা করবেন। এছাড়া আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি হিসেবে বিচারপতি মো. নুরুজ্জামানকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।
এর আগে সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা দায়িত্ব গ্রহণের পরের দিন থেকেই আপিল বিভাগের তখনকার সিনিয়র বিচারপতি আবদুল ওয়াহহাব মিয়াকে দিয়ে দ্বিতীয় একটি বেঞ্চ গঠন করেছিলেন। বিচারপতি এস কে সিনহার বিদেশ চলে যাওয়ার পর থেকে আবার একটি বেঞ্চে বিচারিক কার্যক্রম শুরু হয়। এরপর বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন গত বছরের ২ ফেব্র“য়ারি প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পান। কিন্তু বিচারপতি সংকটের কারণে তিনি দুটি বেঞ্চ গঠন করতে পারেননি। এই সুযোগে মামলার জটও বেড়ে যায়।
জানা যায়, গত বছরের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আপিল বিভাগে বিচারাধীন মামলার সংখ্যা দাড়ায় প্রায় ২০ হাজার। মামলার জট বেড়ে যাওয়ায় বিচারের দীর্ঘ সূত্রিতার কারণে বিচারপ্রার্থীদের দুর্ভোগও বাড়তে থাকে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com