শনিবার, ১৭ অগাস্ট ২০১৯, ০৩:৫৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
সদর উপজেলার যমুনাবাদে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু চুনারুঘাটে চোরাই সেগুন কাঠ উদ্ধার যুক্তরাজ্যে হবিগঞ্জবাসীর উদ্যোগে ঈদ পূনর্মিলনী “আনন্দ সন্ধ্যা” নবীগঞ্জের বনকাদিপুর আমজাদ ॥ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আর নেই বঙ্গবন্ধু ছিলেন আধুনিক বাংলার স্বপ্নদ্রষ্টা ॥ এমপি আবু জাহির নবীগঞ্জে বিষাক্ত সাপের কামড়ে গৃহবধু আহত সীমেরগাঁও গ্রামে সংঘর্ষে টেটাবিদ্ধ ২ জনসহ আহত ১০ সৌদি আরবের জেদ্দা কনস্যুলেট এর উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালন ॥ বিশেষ অতিথি হিসাবে মন্ত্রী মাহবুব আলীর যোগদান মাধবপুরে সাজাপ্রাপ্ত দুই আসামী গ্রেপ্তার নবীগঞ্জ উপজেলা ও পৌর জাতীয় পার্টির ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্টিত
নবীগঞ্জে সাংবাদিক তছনু’র উপর সন্ত্রাসী হামলা ॥ ট্রাক্টরসহ আটক ১

নবীগঞ্জে সাংবাদিক তছনু’র উপর সন্ত্রাসী হামলা ॥ ট্রাক্টরসহ আটক ১

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ এনটিভির নবীগঞ্জের প্রতিনিধি মুহিবুর রহমান চৌধুরী তছনু সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছে। এ সময় সন্ত্রাসীরা তাকে রামদা দিয়ে কুপিয়ে ও জিআই পাইপ দিয়ে এলোপাতারি ভাবে প্রহার করে গুরুতর আহত করেছে। স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আশংকাজনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন। ঘটনার খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ অভিযান চালায়। ঘটনার সময় স্থানীয় জনতা হামলাকারী আবুল হোসেন (২৫) কে আটক করে উত্তম মধ্যম দিয়ে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে। পুলিশের অভিযানের খবর পেয়ে অন্যান্য সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। অভিযান কালে পুলিশ হামলার সময় ব্যবহৃত একটি ট্রাকটর আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এ ঘটনায় নবীগঞ্জ সাংবাদিক মহলে তীব্র ক্ষোভ ও প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে।
জানা যায়, গতকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সাংবাদিক মুহিবুর রহমান চৌধুরী তছনু তার পেশাগত কাজে মোটরসাইকেল যোগে নিজ গ্রাম কুর্শি ইউনিয়নের ফুটারমাটি গ্রাম থেকে মহাসড়কে সড়ক দুর্ঘটনার সংবাদ সংগ্রহেরওয়ানা দেন। পথিমধ্যে নবীগঞ্জ-আউশকান্দি সড়কের ফুটারমাটি গ্রামের প্রবেশ মুখে পৌছা মাত্র দুর্বৃত্তরা একটি ট্রাক্টর দিয়ে বেরিকেট সৃষ্টি করে তছনুর গতিরোধ করে। এ সময় ৫/৬ জন সন্ত্রাসী তছনুকে বেধরক প্রহার করে। তাদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তছনু গুরুতর আহত হয়। এ সময় হামলাতকারীরা তছনুকে তার ব্যবহৃত মোটর সাইকেলসহ ট্রাক্টর দিয়ে চাপায় হত্যার চেষ্টা করে। কিন্তু তছনু ভাগ্যক্রমে রক্ষা পান। এ সময় সন্ত্রাসীরা তার একটি প্যানাসনিক এইস-ডি ক্যামেরা, ১টি লেফটপ, ১টি ডি এসেলার ক্যামেরা ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ সময় তছনুর আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যাবার সময় এনাতাবাদ গ্রামের মৃত আব্দুল মতিনের পুত্র আবুল হোসেন (২৫) কে স্থানীয় জনতা আটক করে উত্তম মধ্যম দেয়। ঘটনার খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার এস আই সুজিত চক্রবর্তী একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে জনতা হামলাকারী আবুল হোসেনকে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে। অভিযানকালে পুলিশ হামলার কাজে ব্যবহৃত একটি ট্রাক্টর আটক করে থানায় নিয়ে যায়। পরে লোকজন তছনুকে উদ্ধার করে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার অবস্থা বেগতিক দেখে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন।
সাংবাদিক ও স্থানীয়দের ধারনা তছনুকে পুর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী তাকে হত্যার উদ্যেশ্যে সু-কৌশলে সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে ছিল। এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল বাতেন খান বলেন, ঘটনার সংবাদ পেয়ে তাৎক্ষনিক পুলিশ অভিযান চালিয়ে ঘটনার মুল হোতাকে গ্রেফতার করেছে এবং হামলাকারীদের ব্যবহৃত একটি ট্রাকটর জব্দ করে থানায় নিয়ে আসা হয়। হামলাকারী অন্যান্যদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com