শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:১২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
নবীগঞ্জে ৬ হাজার কেজি নিষিদ্ধ পলিথিন জব্দ ॥ ১ লাখ টাকা জরিমানা বানিয়াচংয়ে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে দখলমুক্ত হল সরকারী জায়গা বিদ্যুৎ বিভাগের সহকারী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে অভিযোগ মুফতি আলাউদ্দীন জিহাদীর মুক্তির দাবিতে হবিগঞ্জে আহলে সুন্নাতের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ ভাষা সৈনিক আফরোজ বখত এর মৃত্যুতে ডাঃ মুশফিক চৌধুরীর শোক হবিগঞ্জে নতুন করে ৫ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবিগঞ্জ পৌরসভার মালিকানাধীন ভূমি কৌশলে অবৈধ দখল হয়ে যাচ্ছে জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে মাধবপুর ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা শহরের পানি ট্যাংকি এলাকা থেকে মাদক বিক্রেতা আটক সৈয়দ আফরোজ বখত এর মৃত্যুতে হবিগঞ্জ গণফোরাম সভাপতির শোক
নবীগঞ্জে সম্পত্তি নিয়ে ভাই-বোনের বিরোধ ॥ অপহৃত বড় ভাই উদ্ধার ॥ ভাড়াটিয়া অপহরণকারীসহ ছোট ভাই গ্রেফতার

নবীগঞ্জে সম্পত্তি নিয়ে ভাই-বোনের বিরোধ ॥ অপহৃত বড় ভাই উদ্ধার ॥ ভাড়াটিয়া অপহরণকারীসহ ছোট ভাই গ্রেফতার

এটিএম সালাম/মখলিছ মিয়া ॥ নবীগঞ্জে পৈত্রিক সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জের ধরে ভাই-বোন মিলে বড় ভাই আব্দুল আলীকে অপহরণের ২৪ ঘন্টার মধ্যে পুলিশ উদ্ধার করেছে। ন্যাশনাল হেল্প ডেস্ক নাম্বার ৯৯৯ এর সহযোগিতায় এ উদ্ধার কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। এ সময় অপহৃত আব্দুল আলীর ছোট আব্দুল করিম ও ভাড়াটিয়া অপহরণকারী মৌলভীবাজার সদরের আছই তালুকদারের ছেলে রাজু তালুকদার ওরপে সজলকে গ্রেফতার করা হয়।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নের ঝিটকা গ্রামে আব্দুল গণি মিয়া প্রায় ১ বছর পূর্বে ইন্তেকাল করেন। এরই মধ্যে গণি মিয়ার ৪ পুত্র ও ৪ কন্যার মধ্যে পৈত্রিক সম্পত্তি ভাগ ভাটোয়াড়া নিয়ে বিরোধ দেখা দেয়। ওই বিরোধের জের ধরে সহজ সরল বড় ভাই আব্দুল আলী (৫০)র সম্পত্তি আত্মসাত করার জন্য নানা পরিকল্পনা করতে থাকে তার ভাই বোনরা। তারা আব্দুল আলীর সম্পত্তি জোরপুর্বক লিখে দেয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করে ব্যর্থ হয়। এক পর্যায়ে আব্দুল আলীর ছোট ভাই আব্দুল করিম, দুলাল মিয়া ও আব্দুল্লা মিয়াসহ বোনরা মিলে আব্দুল আলীকে অপহরণের পরিকল্পনা করে। পুর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী নিয়োগ করা হয় ভাড়াটিয়া দুবর্ৃৃত্ত। এরা গত শুক্রবার সন্ধ্যায় জোরপূর্বক অস্ত্রের মুখে ফিল্ম স্টাইলে আব্দুল আলীকে হাত পা ও মুখ বেধে একটি মাইক্রো গাড়ীতে তুলে অপহরণ করে নিয়ে যায়। সারা রাত শ্রীমঙ্গলের মির্জাপুর চা বাগান, ভৈরবসহ বিভিন্ন স্থানে গাড়ী নিয়ে ঘুরতে থাকেন। এক পর্যায়ে ভোর রাতে বানিয়াচং উপজেলার সাদকপুর গ্রামের অপহরকারীদের পূর্ব পরিচিত লিটন মিয়ার বাড়িতে একটি ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখে।
এ ঘটনায় অপহৃতের ছেলে আয়াত আলী শুক্রবার রাতেই তার চাচা আব্দুল করিম, দুলা মিয়া ও আব্দূল্লাহর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ৮/১০ জনের বিরুদ্ধে নবীগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দেয়।
বানিয়াচং থানার অফিসার ইনচার্জ রাশেদ মোবারক এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, গতকাল সকালে ট্রিপল নাইন নাম্বার থেকে থানার ডিউটি অফিসারকে এ ঘটনাটি অবহিত করা হয়। তাৎক্ষনিক এ বিষয়ে এলাকায় খোজ নিতে সাদবপুর গ্রামে পুলিশ মোতায়েন করা হয়। অপহৃত ব্যক্তি সাদবপুর গ্রামে অবস্থান করছেন বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর ওই গ্রামে অভিযান চালিয়ে অপহৃত আব্দুল আলী তালুকদারকে উদ্ধার করা হয়। এসময় অপহৃত ব্যক্তি আব্দুল আলীকে জিজ্ঞাসাবাদে বানিয়াচং থানা পুলিশকে জানান, নবীগঞ্জ থানাধীন তাদের এলাকা থেকে গত শুক্রবার তার ছোট ভাই আব্দুল করিম তাকে অপহরণ করে নিয়ে এসে এখানে আটকে রাখে। পরে উদ্ধারকৃত আব্দুল আলী, আটক তার ভাই আব্দুল করিম ও ভাড়াটে অপহরনকারী রাজু তালুকদারকে নবীগঞ্জ থানা পুলিশের কাছে হস্তাস্তর করা হয়।
এদিকে নবীগহ্জ থানা সূত্রে জানা যায়, নবীগঞ্জ থানার ওসি মোহাম্মদ ইকবাল হোসেনের তত্বাবধানে ওসি (তদন্ত) গোলাম দস্তগীর আহমেদের নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযানে নামে। মোবাইল ট্র্যাকিং করে তাদের অবস্থান বের করে পুলিশ। এক পর্যায়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বানিয়াচং থানা পুলিশের সহযোগীতায় সাদকপুর গ্রামের উল্লেখিত বাড়ি থেকে ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় ঘর থেকে পালিয়ে যাবার সময় ধাওয়া করে অপহরকারী ছোট ভাই আব্দুল করিম ও ভাড়াটিয়া কিলার মৌলভীবাজার পৌরসভার দড়গা মহল্লার আছই তালুকদারের পুত্র রাজু তালুকদার ওরপে সজলকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এদিকে গ্রেফতারকৃত রাজুর দেয়া ঠিকানা নিয়ে সন্দেহ দেখা দিলে তার সঠিক নাম ঠিকানা যাচাই করার চেষ্টা করছে পুলিশ।
এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) গোলাম দস্তগীর আহমেদ জানান, অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত দুইজনকে গ্রেফতার ও ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত অন্যান্য অপহরণকারীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2013-2019 HabiganjExpress.Com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com